মাত্র এক মরশুম ভারতে এসেই ফুটবল প্রেমীদের মন জয় করেছিলেন। ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের নয়নের মণি হয়ে উঠেছিলেন রাশিয়া বিশ্বকাপ খেলেই ভারতে আসা জনি অ্যাকোস্টা। ঠান্ডা মাথায় বিশ্বমানের ডিফেন্ডিং কাকে বলে, তা ভারতের ফুটবল ময়দানে দেখিয়ে দিয়ে গিয়েছেন জনি। 

মরশুম শেষ হওয়ার আগেই অবশ্য বোঝা গিয়েছিল, লাল- হলুদে আর হয়তো ফিরবেন না তিনি। ভারতেও আর ফিরবেন কি না, তা নিয়েও সংশয় ছিল। শেষ পর্যন্ত নিজের দেশের ক্লাবেই নতুন মরশুমে সই করে দিলেন গত মরশুমে ইস্টবেঙ্গল রক্ষণের দায়িত্ব সামলানো অ্যাকোস্টা।  নতুন মরশুমে কোস্টা রিকার প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্লাব ইউসিআর-এর হয়ে খেলতে যাবে অ্যাকোস্টাকে। বর্তমানে সেদেশের লিগা এফপিডি-তে খেলে এই ক্লাবটি। গত মরশুমে দশম স্থানে শেষ করেছিল তারা। 

অ্যাকোস্টার ভারতে খেলতে আসা সাম্প্রতিক কালে ভারতীয় ফুটবলের অন্যতম বড় ঘটনা ছিল। কারণ অবসর নিয়ে ফেলা বা অতীতে সাড়া জাগানো বেশ কিছু তারকা আইএসএল-এ যোগ দিলেও সদ্য বিশ্বকাপ খেলে ভারতে আসা প্রথম ফুটবলারই ছিলেন জনি। প্রথম দিকে তাঁর দক্ষতা নিয়ে কলকাতা ময়দানে অনেক প্রশ্নও উঠেছিল। কিন্তু পরিবেশ, পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতেই ইস্টবেঙ্গল রক্ষণে নির্ভরতার নাম হয়ে উঠেছিলেন অ্যাকোস্টা। স্পেনীয়  সতীর্থ বোরহা গোমেজের সঙ্গে জুটি বেঁধে আই লিগের দৌড়ে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত দলকে টিকিয়ে রেখেছিলেন অভিজ্ঞ এই ডিফেন্ডার। 

শেষ পর্যন্ত ইস্টবেঙ্গল আই লিগ না জিতলেও সমর্থকদের মন জিতে নিয়েছিলেন জনি। অনেক সমর্থকই চেয়েছিলেন, অন্তত আরও একটি মরশুম লাল হলুদে থাকুন অ্যাকোস্টা। শোনা গিয়েছিল, তাঁর কাছে আইএসএলের কয়েকটি দলেরও অফার রয়েছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত নতুন মরশুমে আর ভারতে না ফেরারই সিদ্ধান্ত নিলেন কোস্টারিকান ডিফেন্ডার।