মেসি থেকে রোনাল্ডো ও ইংলিশ ফুটবল। এই নিয়ে উন্মাদনা সব সময় থাকে বাঙালিদের। সেই ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, স্প্যানিশ লিগ ও সব থেকে বেশি নজর কাড়া লিগ হল ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। কোন দলের পরিসংখ্যান কেমন সেটা দেখে নেওয়া যাক এক নজরে।  ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে এই মুহূর্তে লিগ তালিকায় এগিয়ে রয়েছে লিভারপুল। গত বারের চ্যাম্পিয়ন ম্যানসিটিকে পিছনে ফেলে এখনও পর্যন্ত এই তালিকার এক নম্বরে রয়েছে লিভারপুল দল। ১১ ম্যাচ খেলে লিভারপুলের পয়েন্ট ৩১। দ্বিতীয় স্থানে থাকা গত বারের চ্যাম্পিয়নদের থেকে এখনও পর্যন্ত ৬ পয়েন্টে এগিয়ে রয়েছে লিভারপুল দল। দ্বিতীয় নম্বরে রয়েছে ম্যানসিটি ২৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় তবে গোল পার্থক্যে লিগের সবাইকে ছাড়িয়ে গিয়েছে গত বারের চ্যাম্পিয়নরা। তিনে রয়েছে লেস্টার সিটি ও চতুর্থ স্থানে আছে চেলসি। তবে এবছর বেশ পিছিয়ে রয়েছে ম্যানঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের মতন বড় দল। ১০ নম্বরে রয়েছে ম্যানইউ।

 


অপরদিকে লালিগায় প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করছে বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ দল। ১১ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে প্রথম স্থানে রয়েছে বার্সা। তবে মেসির দলের সঙ্গে লিগ তালিকায় একই পয়েন্টে দাঁড়িয়ে আছে রিয়াল মাদ্রিদও। কিন্তু গোল পার্থক্যে বার্সার থেকে ৩ গোল পিছিয়ে রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। একই সঙ্গে এই লিগে একই পয়েন্ট রিয়াল সোসিডাডেরও। তবে গোল পার্থক্যে বার্সা ও রিয়ালের থেকে বেশ খানিকটা পিছিয়ে রয়েছে এই দল। চতুর্থ স্থানে রয়েছে অ্যাটলিটিকো মাদ্রিদ।

 


ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও বিশ্বের বাকি লিগ গুলোর সঙ্গে তুলনা করলে বেশ বড় লিগ ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। আর সেখানে গ্রুপ লিগে একে অপরকে বেশ জোরদার টেক্কা দিচ্ছে দলগুলি। গ্রুপ এ-তে রিয়ালকে পিছনে ফেলে প্রথম স্থানে রয়েছে পিএসিজ দল। গ্রুপ লিগের তিন ম্যাচে জিতে এই গ্রুপের শীর্ষে নেইমারের দল। একই সঙ্গে বি গ্রুপের ফার্স বয় হিসাবে রয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। গ্রুপ সিতে বাকিদের টেক্কা দিয়ে প্রথম স্থানে ম্যানঞ্চেস্টার সিটি। গ্রুপ ডি-তে রয়েছে জুভেন্তাস। অ্যাটলিটিকো মাদ্রিদকে পিছনে ফেলে প্রথম স্থানে রোনাল্ডোর দল। গ্রুপ ই-তে প্রথম স্থানে রয়েছে নাপোলি। গ্রুপ এফ-এর প্রথম স্থানে মেসির বার্সেলোনা। গ্রুপ এইচয়ের শীর্ষে চেলসি।