২০২০-র শেষ লগ্নে এসে তে ভারতীয় ক্রীড়া ক্ষত্রে আরও এক নক্ষত্রপতন। পি কে বন্দ্যোপাধ্যায়, চুনী গোস্বামীর পর ভারতীয় ফুটবল ২০২০-তে হারাল আরও এক রত্নকে। প্রয়াত হলেন কিংবদন্তী অলিম্পিয়ান ফুটবলার নিখিল নন্দী। দীর্ঘিদন ধরে অসুস্থ ছিলেন তিনি।  সেপ্টেম্বর মাসে কোভিড আক্রান্ত হয়েছিলেন। মাহামারী ভাইরাসকে হারালেও, কিডনির সমস্যা নিয়ে দেড় মাস হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। শেষে বাড়ি ফিরেও শেষ রক্ষা হল না। 

দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থতার পর মঙ্গলবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন নিখিল নন্দী। মৃত্যু কালে তার বয়স হয়েছিল ৮৯ বছর। ভারতীয় ফুটবলে নিখিল নন্দীর অবদান অপরীসিম। ১৯৫৬ সালে মেলবোর্ন অলিম্পিকে চতুর্থ স্থানাধিকারী ভারতীয় ফুটবল দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ভারতীয় দলের মাঝমাঠের দায়িত্ব ছিলেন তাঁর হাতে। সেবার সেমিফাইনালে যুগোশ্লোভিয়ার বিরুদ্ধে ৪-১ গোলে হারলেও, নিখিল নন্দীর খেলার প্রশংসা করেছিলেন  যুগোশ্লাভিয়ার কোচ স্ট্যানলি ম্যাথুজ।

শুধু জাতীয় দলের জার্সি গায়েই নয়, ঘরোয়া ফুটবলে অনন্য কৃতিত্বের অধিকারী নিখিল নন্দী। ১৯৫৮-য় তাঁর নেতৃত্বেই দুই প্রধান ইস্ট-মোহনকে টপকে কলকাতা লিগ জেতে ইস্টার্ন রেল। নিখিলের নেতৃত্বে এবং কোচিংয়ে এক সময় ইস্টার্ন রেলে খেলেছেন প্রয়াত পি কে বন্দ্যোপাধ্যায়। দু’জনে একসঙ্গে জাতীয় দলেও খেলেছেন। কিংবদন্তী ফুটবলারের প্রয়াণে শোকের ছায়া ফুটবল মহলে। শোকজ্ঞাপন করেছেন ময়দানের বর্তমান ও প্রাক্তন ফুটবলাররা।