ইস্টবেঙ্গলের মতোই শেষ মুহূর্তের করা গোলে লুধিয়ানা থেকে এক পয়েন্ট নিয়ে ফিরছে মোহনবাগান। ৮৮ মিনিটে গোল করে বাগান কোচ কিবুর মুখে হাসি ফোটালেন বঙ্গসন্তান শুভ ঘোষ। বাঙালি এই ফুটবলারকে আগেই মনে ধরেছিল বাগানের স্প্যানিশ কোচের। এ দিনের পর কিবুর সেই আস্থা আরও বাড়ল।

প্রবল ঠান্ডার মধ্যেই লুধিয়ানায় পরীক্ষা ছিল মোহনবাগানের। তার সঙ্গে যোগ হয়েছিল খারাপ মাঠ। এ দিন অবশ্য মোহনবাগানের সামনে কার্যত ত্রাস হয়ে হাজির হন সবুজ মেরুনেরই প্রাক্তনী ডিপান্ডা ডিকা। ১৯ মিনিটে গোল করে পঞ্জাবের দলটিকে  এগিয়ে ডিকা। 

আরও পড়ুন- মোহনবাগান- এটিকে চুক্তিও সম্পন্ন, ঘোষণা শুধু সময়ের অপেক্ষা

প্রথমার্ধে পিছিয়ে থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণের ঝাঁঝ আরও বাড়ান কিবু। কিন্তু মাঝমাঠে বেইতিয়া সেভাবে ছন্দে না থাকায় বাগান আক্রমণ দানা বাঁধেনি। তার মধ্যেই বাগানের নতুন বিদেশি স্ট্রাইকার পাপা দিওয়ারা, ভি পি সুহেররা গোলের সহজ সুযোগ নষ্ট করেন। গোল পেতে মরিয়া কিবু শেষ পর্যন্ত আর এক বিদেশি তাজাকিস্তানের কোমরোন তুরুসনভ-কেও নামিয়ে দেন। 

বাগান যখন গোলের খোঁজে মরিয়া, তখন পাল্টা আক্রমণে প্রায় গোল পেয়ে যাচ্ছিল পঞ্জাব এফসি। ৮২ মিনিটে কেভিন লোবোর শট ক্রসবারে লাগে। নাহলে সেখানেই বাগানের সব আশা শেষ হয়ে যেত। শেষ পর্যন্ত ৮৮ মিনিটে ঠান্ডা মাথায় গোল করে মোহনবাগানের এক পয়েন্ট নিশ্চিত করেন শুভ। 

পঞ্জাব এফসি-র সঙ্গে ড্রয়ের ফলে ৭ ম্যাচ থেকে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে একনম্বরেই থাকল মোহনবাগান। পঞ্চাব ৮ ম্যাচ থেকে ১১ পয়েন্ট নিয়ে দু' নম্বরে উঠে এল। অন্য ম্যাচে ইম্ফলে নেরোকা ১-০ গোলে হারাল রিয়াল কাশ্মীরকে।