চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম সেমি ফাইনালে প্রত্যাশা মতই আরপি লেইপজিগকে হারাল পিএসজি। ৩-০ গোলে জিতে প্রথমার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে উঠল নেইমার-এমব্যাপে-দি মারিয়াদের ক্লাব। সেমিতে দুরন্ত ফুটবল খেলেন আর্জেন্টাইন তারকা অ্য়াঞ্জেল দি  মারিয়া। ম্যাচে গোল করেন মারকিউনস, দি মারিয়া ও বার্নার্ড। ইতিহাস তৈরি করে পিএসজির উচ্ছাস ছিল চোখে পড়ার মত। কিন্তু একটি ঘটনা সেই উৎসবে কিছুটা হলেও ম্লান করে দিল। কারণ ফাইনালে ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারকে নাও পেতে পারে পিএসজি। তাও আবার নেইমারের করা একটি ভুলের জন্যই।

আরও পড়ুনঃদুর্দান্ত দি মারিয়া, লেপজিগ-কে তিন গোলে হারিয়ে ফাইনালে পিএসজি

ম্যাচের শেষে নেইমার প্রতিপক্ষের খেলোয়ার হালস্টেনবার্গের সঙ্গে জার্সি বিনিময় করেন। আর সেই কারণেই বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন ব্রাজিলের ওয়ান্ডার বয়।  কারণ করোনা আবহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে যে নিয়মগুলি লাগু করেছে উএফা তার মধ্যে একটি হল ম্যাচ শেষে জার্সি বদলাতে পারবেন না প্লেয়াররা। জার্সি বদল করলে জীবাণু সংক্রমিত হতে পারে। সেই কারণেই উয়েফা নিয়ম করেছে, জার্সি বদল একেবারেই নয়। কিন্তু পিএসজি তারকা নইমার ম্যাচ শেষে সেই নিয়ম বিরুদ্ধ কাজটাই করেছেন। বিষয়টি দৃষ্টি এড়ায়নি উয়েফার। তাই শাস্তি হিসেবে ফাইনাল ম্যাচে নির্বাসিত হতে পারেন নেইমার।

 

 

আরও পড়ুনঃধোনির পর অ্যারন ফিঞ্চ, অবসরের নিয়ে সিদ্ধান্তের কথা জানালেন অসি অধিনায়ক

আরও পড়ুনঃআইপিএলের নয়া টাইটেল স্পনসরেরও নাকি রয়েছে চিনা যোগ, অস্বস্তিতে বিসিসিআই

উয়েফা তার নিয়মে স্পষ্ট উল্লেখ করে দিয়েছে, বর্তমান সময়ে সংক্রমণের কথা ভেবে প্লেয়াররা জার্সি বদলাতে পারবেন না।  নিয়ম লঙ্ঘন করে ম্যাচের পর জার্সি বদল করলে সংশ্লিষ্ট খেলোয়াড়কে উয়েফার নিয়ম অনুযায়ী শাস্তি দেওয়া হবে। তা ছাড়া সংশ্লিষ্ট ফুটবলারকে সেলফ আইসোলেশনে থাকতে হবে ১২ দিন।  ফলে উয়েফার নিয়ম মেনে যদি সত্যিই নেইমারকে ১২ দিন আইসোলেশনে থাকতে হয়,তাহলে ৫ দিন পর হতে চলা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ব্রাজিলিয়ান তারকাকে পাবে না পিএসজি। যার ফলে এত বড় ম্যাচে নেইমারকে না পাওয়ারল আশঙ্কা কিছুটা হলেও ভাবাচ্ছে ফরাসী ক্লাবকে। এখন দেখার বিষয় নেইমারের বিষয়ে কি সিদ্ধান্ত নেয় উয়েফা।