একদিকে আইপিএলের জনপ্রিয়তা যখন বিশ্ব জুড়ে। ঠিক অপরদিকে জাঁকজমকের সঙ্গে শুরু হলেও, কমছিল আইএসএলের জনপ্রিয়তা। কিন্তু এবছর বাংলার দুই শতাব্দী প্রাচীন দল ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগানের অন্তর্ভূক্তি ঘটেছে ভারতের সবথেকে বড় ফুটবল লিগে। যার ফলে জনপ্রিয়তায় যে ভাঁটা পড়ছিল, তা অনেকটাই দূর হবে বলে মনে করছেন এফএসডিএল কর্তৃপক্ষ। এবছর ইস্টবেঙ্গল ও মোহনবাগানের জন্য উন্মাদনা বাড়ছে আইএসএলকে ঘিরে। আইএসএলে এটিকের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে খেলছে মোহনবাগান। ২০ তারিখ প্রথম ম্যাচে কেরলার ব্লাস্টারের মুখোমুখি এটিকে মোহনবাগান। 

গতবছর আইএসএল জিতেছিল এটিকে। স্প্যানিশ কোচ আন্তেনিও লোপেজ হাবাসকে পুনরায় দায়িত্ব দেওয়ার পরই দলকে সাফল্য এনে দিয়েছিলেন তিনি। এবছরও গত মরসুমের শক্তিশালী দল ধরে রেখেছে এটিকে। তার সঙ্গে যোগ হয়েছে মোহনবাগানের বেশ কয়েক জন তারকা। তারউপর দলে নতুন যোগ দিয়েছেন জাতীয় দলের প্লেয়ার লেফট ব্যাক শুভাশিস বোস, ফরওয়ার্ড মনবীর সিং,মাঝমাঠে সংযুক্তি ঘটেছে গ্লেন মার্টিন্স এবং শেখ সাহিলের মতো তরুণ ফুটবলারদের। আর ডিফেন্সে অন্তর্ভুক্তি ঘটেছে তারক সন্দেশ ঝিঙ্গানের। এছাড়াও রয়েছে প্রীতম কোটাল, প্রবীর দাস, রয় কৃষ্ণাদের মত তারকারা। ইতিমধ্যেই ২৭ জনের দল ঘোষণা করেছে এটিকে মোহনবাগান কর্তৃপক্ষ। ফলে তারকা খোচিত দল গড়ে এবছর ট্রফি ধরে রাখার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী এটিকে মোহন বাগান।

একনজরে দেখে নেওয়া যাক আইএসএল ২০২০-২১-এ এটিকে মোহন বাগান দলের টিম প্রোফাইল- 
প্রধান কোচ- আন্তেনিও লোপেজ হাবাস
সহকারী কোচ- মুয়ানুয়েল ক্যাসকালানা এবং সঞ্জয় সেন 
গোলরক্ষক- অরিন্দম ভট্টাচার্য, ধীরজ সিং, অভিলাষ পাল, অর্শ শেখ, আরিয়ান লাম্বা
ডিফেন্ডার- তিরি, প্রীতম কোটাল, সন্দেশ ঝিঙ্গান, প্রবীর দাস, শুভাশিষ বোস, সুমিত রাঠী
মিডফিল্ডার- প্রণয় হালদার, ব্র্যাড ইনমান, জাভি হার্নান্ডেজ, এডু গার্সিয়া, কার্ল ম্যাকহিউ, গ্লেন মার্টিন্স, জয়েশ রানে, মাইকেল সুসাইরাজ, বরিস সিং, মাইকেল রেগিন, শেখ সাহিল, নিগোম্বাম এংসন সিং
ফরোয়ার্ড- ডেভিড উইলিয়ামস, রয় কৃষ্ণা, মনবীর সিং, মহম্মদ ফরদিন আলি।