৪৬-এও নজর কাড়া লুক, শরীর ধরে রাখার জন্য কী কী করেন ঐশ্বর্য

First Published 20, Feb 2020, 5:14 PM IST

বয়সের সঙ্গে সঙ্গে ভাঙন ধরে শরীরের বিভিন্ন ভাঁজে। মহিলাদের ক্ষেত্রে এ কথা যেন চিরন্তন। কিন্তু সেই মিথই ভেঙে নয়া পথ দেখিয়েছেন তারকাদের এক শ্রেণী। যাঁদের মধ্যে ঐশ্বর্য রায় অন্যতম। বয়স ৪৬। একটি সন্তানের মাও তিনি। কিন্তুু কোথাও গিয়ে যেন শরীরে তাঁর ছাপ পড়েনি বিন্দু মাত্র। কীভাবে নিজেকে ধরে রাখেন ঐশ্বর্য। 

বিশ্ব সুন্দরী বলে কথা। শরীর স্বাস্থ্য নিয়ে বরাবরই সচেতন ঐশ্বর্য রায়। এখনও পর্যন্ত নিজেকে যেভাবে ধরে রেখেছেন অভিনেত্রী, তা দেখে অনেকেই হতবাক।

বিশ্ব সুন্দরী বলে কথা। শরীর স্বাস্থ্য নিয়ে বরাবরই সচেতন ঐশ্বর্য রায়। এখনও পর্যন্ত নিজেকে যেভাবে ধরে রেখেছেন অভিনেত্রী, তা দেখে অনেকেই হতবাক।

কীভাবে নিজেকে মেইন্টেন করেন তিনি। সম্প্রতি প্রকাশ্যে এল সেই তথ্য। শরীরচর্চা থেকে শুরু করে খাওয়া দাওয়া, কড়া নিয়মের মধ্যেই থাকেন তিনি।

কীভাবে নিজেকে মেইন্টেন করেন তিনি। সম্প্রতি প্রকাশ্যে এল সেই তথ্য। শরীরচর্চা থেকে শুরু করে খাওয়া দাওয়া, কড়া নিয়মের মধ্যেই থাকেন তিনি।

মসৃণ ত্বক থেকে শুরু করে রূপ সবই যেন যত্নের সঙ্গে বজায় রেখে চলেছেন বচ্চন বধু। দিনের শুরুটা হয় ঐশ্বর্যর হালকা ব্যায়ামের মধ্যে দিয়ে।

মসৃণ ত্বক থেকে শুরু করে রূপ সবই যেন যত্নের সঙ্গে বজায় রেখে চলেছেন বচ্চন বধু। দিনের শুরুটা হয় ঐশ্বর্যর হালকা ব্যায়ামের মধ্যে দিয়ে।

সপ্তাহে চারদিন জিমে যান ঐশ্বর্য। বাকি দিনগুলো বাড়িতেই হালকা ওয়ার্ক আউট করে থাকেন তিনি।

সপ্তাহে চারদিন জিমে যান ঐশ্বর্য। বাকি দিনগুলো বাড়িতেই হালকা ওয়ার্ক আউট করে থাকেন তিনি।

খুব একটা পরিশ্রম করে জিম করা পছন্দ করেন না ঐশ্বর্য। সকালে উঠে যোগব্যায়ামই যথেষ্ট।

খুব একটা পরিশ্রম করে জিম করা পছন্দ করেন না ঐশ্বর্য। সকালে উঠে যোগব্যায়ামই যথেষ্ট।

খাদ্য তালিকা নিয়ে যথেষ্ট সচেতন থাকেন ঐশ্বর্য। হালকা খাবার, সঙ্গে বেশি পরিমানে জল পান করে থাকেন তিনি।

খাদ্য তালিকা নিয়ে যথেষ্ট সচেতন থাকেন ঐশ্বর্য। হালকা খাবার, সঙ্গে বেশি পরিমানে জল পান করে থাকেন তিনি।

আরাধ্যার জন্মের সময়ও নিজেকে এভাবেই ধরে রেখেছিলেন অভিনেত্রী। খাদ্য তালিকাতে ুষ্টির ভারসাম্য বজায় রাখাই প্রধান লক্ষ্য তাঁর।

আরাধ্যার জন্মের সময়ও নিজেকে এভাবেই ধরে রেখেছিলেন অভিনেত্রী। খাদ্য তালিকাতে ুষ্টির ভারসাম্য বজায় রাখাই প্রধান লক্ষ্য তাঁর।

শাক-সব্জি সেদ্ধ করে দিনে দুবার খেয়ে থাকেন ঐশ্বর্য। সকালে ঘিম থেকে উঠে ওটস ও ব্রাউন ব্রেড খান।

শাক-সব্জি সেদ্ধ করে দিনে দুবার খেয়ে থাকেন ঐশ্বর্য। সকালে ঘিম থেকে উঠে ওটস ও ব্রাউন ব্রেড খান।

রাতে ব্রাউন রাইস, সঙ্গে বেকড ফিস ৮টার মধ্যে চাই। সারা দিনে অল্প ফল ও হালকা ড্রাইফ্রুটস খান।

রাতে ব্রাউন রাইস, সঙ্গে বেকড ফিস ৮টার মধ্যে চাই। সারা দিনে অল্প ফল ও হালকা ড্রাইফ্রুটস খান।

বাইরের খাবার বা ফাস্টফুড, তেল, চর্বি জাতীয় জিনিস থেকে দূরে থাকাই পছন্দ করেন ঐশ্বর্য রায়।

বাইরের খাবার বা ফাস্টফুড, তেল, চর্বি জাতীয় জিনিস থেকে দূরে থাকাই পছন্দ করেন ঐশ্বর্য রায়।

loader