বাহুবলী করে তিনি নয়নের মণি, সেই প্রভাসের জন্মদিনে রইল জানা অজানা তথ্য়

First Published 23, Oct 2019, 2:51 PM

বিদেশি বই দেখতে প্রভাস খুবই পছন্দ করেন। ভক্তরা তাঁকে পাবসি, মিস্টার পারফেক্ট বলেও ডাকেন। প্রভাসের প্রিয় হিরোর নাম  রবার্ট ডে নিরো। একটি ব্লাইন্ড স্কুলে তিনি প্রায় ১০ লাখ টাকা দান করেন।

প্রভাসকে অনেকেই ভালবেসে নানা নামে ডাকেন। ঘনিষ্ঠরা তাঁকে ভালবেসে ডার্লিং বলে সম্মধোন করেন। আবার ভক্তরা তাঁকে  প্রভা, পাবসি, মিস্টার পারফেক্ট বলেও ডাকেন।

প্রভাসকে অনেকেই ভালবেসে নানা নামে ডাকেন। ঘনিষ্ঠরা তাঁকে ভালবেসে ডার্লিং বলে সম্মধোন করেন। আবার ভক্তরা তাঁকে প্রভা, পাবসি, মিস্টার পারফেক্ট বলেও ডাকেন।

২০০২ সালে প্রভাস, তিনি তাঁর ফিল্মি কেরিয়ার  শুরু করেন। অবশ্য় বলিউডে কাজ করেন, তারও অনেক পরে। 'অ্য়াকশন জ্য়াকসন' ছবিতে তিনি প্রথম একটি ছোট্ট ক্য়ামিও চরিত্রে কাজ করেন।

২০০২ সালে প্রভাস, তিনি তাঁর ফিল্মি কেরিয়ার শুরু করেন। অবশ্য় বলিউডে কাজ করেন, তারও অনেক পরে। 'অ্য়াকশন জ্য়াকসন' ছবিতে তিনি প্রথম একটি ছোট্ট ক্য়ামিও চরিত্রে কাজ করেন।

প্রভাস কে কেউ কখনও কোনও জায়গায়  দান করতে দেখেন নি। এই নিয়ে সোশ্য়াল মিডিয়ায় তার কোনও ভিডিও নেই।  আসলে তিনি দানে বিশ্বাসি, দেখানোতে নয়। তার দানের মধ্য়ে অন্য়তম কাজ হল, দক্ষিণ ভারতের  একটি ব্লাইন্ড স্কুলে তিনি প্রায় ১০ লাখ টাকা দান করেন।

প্রভাস কে কেউ কখনও কোনও জায়গায় দান করতে দেখেন নি। এই নিয়ে সোশ্য়াল মিডিয়ায় তার কোনও ভিডিও নেই। আসলে তিনি দানে বিশ্বাসি, দেখানোতে নয়। তার দানের মধ্য়ে অন্য়তম কাজ হল, দক্ষিণ ভারতের একটি ব্লাইন্ড স্কুলে তিনি প্রায় ১০ লাখ টাকা দান করেন।

প্রভাস  যে শুধু ছবির জগতেই সেরা তা কিন্তু নয়, তিনি পড়াশোনায়ও অত্য়ন্ত ভাল। তিনি ইঞ্জিনিয়ারিং এ সুযোগ পান, তারপর  পড়াশোনাকে এগিয়ে নিয়ে যান।

প্রভাস যে শুধু ছবির জগতেই সেরা তা কিন্তু নয়, তিনি পড়াশোনায়ও অত্য়ন্ত ভাল। তিনি ইঞ্জিনিয়ারিং এ সুযোগ পান, তারপর পড়াশোনাকে এগিয়ে নিয়ে যান।

তিনি অনেক বন্ধু পেয়েছিলেন তবে তার সেরা বন্ধুরা মাত্র কয়েকজন। ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁর সেরা বন্ধু হলেন গোপীচাঁদ এবং আল্লু অর্জুন। বাহুবলী মুভিতে তাঁর সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার পরে রানাও তাঁর সেরা বন্ধু হয়েছিলেন।

তিনি অনেক বন্ধু পেয়েছিলেন তবে তার সেরা বন্ধুরা মাত্র কয়েকজন। ইন্ডাস্ট্রিতে তাঁর সেরা বন্ধু হলেন গোপীচাঁদ এবং আল্লু অর্জুন। বাহুবলী মুভিতে তাঁর সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার পরে রানাও তাঁর সেরা বন্ধু হয়েছিলেন।

বিদেশি বই দেখতে প্রভাস খুবই পছন্দ করেন। তার প্রিয় নায়কের নাম  রবার্ট ডে নিরো। প্রিয় নায়িকারা হলেন- জয়াসুধা, তৃষা এবং শ্রেয়া।

বিদেশি বই দেখতে প্রভাস খুবই পছন্দ করেন। তার প্রিয় নায়কের নাম রবার্ট ডে নিরো। প্রিয় নায়িকারা হলেন- জয়াসুধা, তৃষা এবং শ্রেয়া।

প্রভাস তার অবসর সময়ে স্পোর্টস নিয়ে থাকতে খুব পছন্দ করেন। ভলিবল তার পছন্দের খেলার মধ্য়ে অন্য়তম।

প্রভাস তার অবসর সময়ে স্পোর্টস নিয়ে থাকতে খুব পছন্দ করেন। ভলিবল তার পছন্দের খেলার মধ্য়ে অন্য়তম।

loader