'বাবা আর নেই, কে সামলাবে দোকান', মায়ের থেকে কিছুটা সময় চেয়েছিলেন ইরফান

First Published 29, Apr 2020, 1:13 PM

দিল্লির নিম্নবিত্ত পরিবারের সন্তান ইরফান, অযভিনেতা হওয়ার স্বপ্ন দেখলে সবাই মজা করত। তবুও দিন রাত সেই স্বপ্নই দুচোখে বুনতেন ইরফান। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পরিস্থিতি জটিল হচ্ছিল, বড় হয়ে ইরফান বুঝতে পারেন, পাড়ার দোকানই ভরসা। তবুও মিথ্যেকে আশ্রয় করে বাড়ি ছেরে ছিলেন ইরফান খান। 

<p>ছোট থেকেই ইরফান স্থির করে নিয়েছিলেন যে তিনি অভিনেতাই হবেন। জীবনে অন্য কিছু করার কথা কোনও দিন ভাবতে পারেননি ইরফান।&nbsp;</p>

ছোট থেকেই ইরফান স্থির করে নিয়েছিলেন যে তিনি অভিনেতাই হবেন। জীবনে অন্য কিছু করার কথা কোনও দিন ভাবতে পারেননি ইরফান। 

<p>স্কুলের পড়ায় ছিল না খুব একটা মন। অভিনয় জগতের জন্যই মনে মনে নিজেকে তৈরি করছিলেন তিনি। কিন্তু কোনও দিন মাকে বলতে পারেননি।&nbsp;</p>

স্কুলের পড়ায় ছিল না খুব একটা মন। অভিনয় জগতের জন্যই মনে মনে নিজেকে তৈরি করছিলেন তিনি। কিন্তু কোনও দিন মাকে বলতে পারেননি। 

<p>পরিবারে ক্রমেই নেমে এসছিল দুর্যোগ। অল্প বয়সেই হারাতে হল বাবাকে। রয়েছে ছোট ভাই। এমন সময় তিনি স্থির করলেন নিজেকে কিছুটা সময় দেবেন।&nbsp;</p>

পরিবারে ক্রমেই নেমে এসছিল দুর্যোগ। অল্প বয়সেই হারাতে হল বাবাকে। রয়েছে ছোট ভাই। এমন সময় তিনি স্থির করলেন নিজেকে কিছুটা সময় দেবেন। 

<p>মায়ের চোখে তখন একটাই ভরসা, ইরফান এবার বসবে বাবার দোকানে, ধরবে সংসারের হাল। কিন্তু তা পারলেন না ইরফান।</p>

মায়ের চোখে তখন একটাই ভরসা, ইরফান এবার বসবে বাবার দোকানে, ধরবে সংসারের হাল। কিন্তু তা পারলেন না ইরফান।

<p>মাকে জানিয়ে ছিলেন তিনি যাচ্ছেন এক চাকরির পড়া পড়তে। সেখানে পাশ করলেই মিলবে মোটা অঙ্কের টাকা।&nbsp;</p>

মাকে জানিয়ে ছিলেন তিনি যাচ্ছেন এক চাকরির পড়া পড়তে। সেখানে পাশ করলেই মিলবে মোটা অঙ্কের টাকা। 

<p><span style="color:null;">স্বপ্ন বুকে বেঁধে মা দিয়েছিলেন অনুমতি। কিন্তু কোনও চাকরি&nbsp;নয়। ইরফান খান ঘর ছেড়েছিলেন অভিনয় শিখবেন বলে।&nbsp;</span></p>

স্বপ্ন বুকে বেঁধে মা দিয়েছিলেন অনুমতি। কিন্তু কোনও চাকরি নয়। ইরফান খান ঘর ছেড়েছিলেন অভিনয় শিখবেন বলে। 

<p style="text-align: justify;">ইরফানের ভাই তখন ছোট। সামনেই তার পরীক্ষা। হাতে মাত্র দুটো বছর সময়। ছুটিতে বাড়িতে গিয়ে দোকানে বসতেন। বাকিটা সময় ভাই সামলাতেন সব।</p>

ইরফানের ভাই তখন ছোট। সামনেই তার পরীক্ষা। হাতে মাত্র দুটো বছর সময়। ছুটিতে বাড়িতে গিয়ে দোকানে বসতেন। বাকিটা সময় ভাই সামলাতেন সব।

<p style="text-align: justify;">ইরফানের এই ইচ্ছের কথা জানতেন তাঁর এক বন্ধু। তবে কখনই তিনি কাউকে জানতে দেননি। তবে দুটো বছরই যথেষ্ট ছিল।&nbsp;</p>

ইরফানের এই ইচ্ছের কথা জানতেন তাঁর এক বন্ধু। তবে কখনই তিনি কাউকে জানতে দেননি। তবে দুটো বছরই যথেষ্ট ছিল। 

<p>এরপর সংসারে হাল না ফিরলেও ইরফানের ভরসা জেগেছিল তিনি পারবেন। আর তার পরের কাহিনি আজ রূপোলী পর্দার ইতিহাস।&nbsp;</p>

এরপর সংসারে হাল না ফিরলেও ইরফানের ভরসা জেগেছিল তিনি পারবেন। আর তার পরের কাহিনি আজ রূপোলী পর্দার ইতিহাস। 

loader