৪৫ লাখ টাকার মঙ্গলসূত্রের রাতারাতি ডিজাইন বদল, কেন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ঐশ্বর্য

First Published 13, Aug 2020, 6:56 PM

স্টাইল স্টেটমেন্ট থেকে শুরু করে লুক, ঐশ্বর্য রাই বচ্চন মানেই খবরের শিরোনামে তা জায়গা করে নেওয়া। বচ্চন বধূর গোপন অন্দরমহলের খবর জানতে বরাবরই আগ্রহী থাকে ভক্তরা। ঠিক এমনভাবেই একবার চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছিল ঐশ্বর্য রাই বচ্নের মঙ্গলসূত্র। ঠিক কী ঘটিয়েছিলেন বচ্চন বধূ...

<p>যেকোনও বিবাহিতা মেয়েদের কাছেই মঙ্গলসূত্র এক ভিন্ন মাত্রা রাখে। বচ্চন বধূও তার ব্যক্তিম নয়। বিয়ের সময় এই মঙ্গলসূত্রে পরিয়ে দিয়েছিলেন অভিষেক।&nbsp;</p>

যেকোনও বিবাহিতা মেয়েদের কাছেই মঙ্গলসূত্র এক ভিন্ন মাত্রা রাখে। বচ্চন বধূও তার ব্যক্তিম নয়। বিয়ের সময় এই মঙ্গলসূত্রে পরিয়ে দিয়েছিলেন অভিষেক। 

<p>২০০৭ সালে এই জুটি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। তখনই হাজারও গহণার মধ্যে নজর কেড়েছিল ঐশ্বর্যের গলায় থাকা মঙ্গলসূত্র।&nbsp;</p>

২০০৭ সালে এই জুটি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। তখনই হাজারও গহণার মধ্যে নজর কেড়েছিল ঐশ্বর্যের গলায় থাকা মঙ্গলসূত্র। 

<p>দুই ধাপে গাঁথা এই মঙ্গলসূত্রের মাঝে রয়েছে একটি বড় হীরে। যা এই মঙ্গলসূত্রকে সকলের থেকে আলাদা করে রেখেছে।&nbsp;</p>

দুই ধাপে গাঁথা এই মঙ্গলসূত্রের মাঝে রয়েছে একটি বড় হীরে। যা এই মঙ্গলসূত্রকে সকলের থেকে আলাদা করে রেখেছে। 

<p>ঐশ্বর্যের এই মঙ্গলসূত্রের দাম নিয়েছিল ৪৫ লাখ। এত দামী একটা মঙ্গলসূত্র কেন রাতারাতি বদলে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বচ্চন বধূ!&nbsp;</p>

ঐশ্বর্যের এই মঙ্গলসূত্রের দাম নিয়েছিল ৪৫ লাখ। এত দামী একটা মঙ্গলসূত্র কেন রাতারাতি বদলে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বচ্চন বধূ! 

<p>না, তাঁদের মধ্যে থাকা সম্পর্কের জল্পানা ঘিরেও নয়, বা মঙ্গলসূত্র পাল্টে ফেলার জন্যও নয়, ঐশ্বর্য কেবল মাত্র এক সমস্যার কারণেই নিয়েছিলেন এই সিদ্ধান্ত।&nbsp;</p>

না, তাঁদের মধ্যে থাকা সম্পর্কের জল্পানা ঘিরেও নয়, বা মঙ্গলসূত্র পাল্টে ফেলার জন্যও নয়, ঐশ্বর্য কেবল মাত্র এক সমস্যার কারণেই নিয়েছিলেন এই সিদ্ধান্ত। 

<p>ঐশ্বর্য বরাবরই বড় কোনও গলার হার পরা পছন্দ করেন না। এই মঙ্গলসূত্রের সাইজ ছিল বেশ বড়। তাই তিনি তা ছোট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।&nbsp;</p>

ঐশ্বর্য বরাবরই বড় কোনও গলার হার পরা পছন্দ করেন না। এই মঙ্গলসূত্রের সাইজ ছিল বেশ বড়। তাই তিনি তা ছোট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। 

<p>এখানেই শেষ নয়, দুই ধাপের ফলে এর সাইজ বড় হয়ে যাচ্ছি, যা আরাধ্যা জন্মানোর সময় অসুবিধে তৈরি করতে পারত, তাই তার কথা ভেবেও এই সিদ্ধান্ত নেওয়া।&nbsp;</p>

এখানেই শেষ নয়, দুই ধাপের ফলে এর সাইজ বড় হয়ে যাচ্ছি, যা আরাধ্যা জন্মানোর সময় অসুবিধে তৈরি করতে পারত, তাই তার কথা ভেবেও এই সিদ্ধান্ত নেওয়া। 

<p>মাঝের হীরেটা রেখে এর সাইজ ছোট করেন ঐশ্বর্য পাশাপাশি এটিকে একটা ধাপের বানিয়ে নেন। এতে বারো মাস পড়তে তাঁর সুবিধে হয়।&nbsp;</p>

মাঝের হীরেটা রেখে এর সাইজ ছোট করেন ঐশ্বর্য পাশাপাশি এটিকে একটা ধাপের বানিয়ে নেন। এতে বারো মাস পড়তে তাঁর সুবিধে হয়। 

loader