একই পাত্রে বাথরুম-স্নান-চা, কেমন ছিল সলমন খানের জেলে থাকার দিনগুলো

First Published 26, Mar 2020, 11:48 AM IST

১৯৯৮ সালে হাম সাত সাত হ্যায় ছবির শ্যুটিং-এ গিয়ে দুই কৃষ্ণসার হরিণকে শিকার করেছিলেন সলমন খান। জয়পুরে শ্যুটিং চলাকালিন ঘটে এই বিপত্তি। যার সাজা হিসেবে পাঁচ বছরের জেল হয়েছিল সলমন খানের। যদিও বর্তমানে তিনি বেলে রয়েছেন। 

১৯৯৮ সালে কৃষ্ণসার হরিণ শিকার করেছিলেন সলমন খান। সেই দোষেই তাঁর শাস্তি হয় পাঁচ বছরের।

১৯৯৮ সালে কৃষ্ণসার হরিণ শিকার করেছিলেন সলমন খান। সেই দোষেই তাঁর শাস্তি হয় পাঁচ বছরের।

জেলে থাকার দিনগুলো কেমন কেটেছিল সলমন খানের! সেই কথা নিজেই জানিয়ে ছিলেন ভাইজান।

জেলে থাকার দিনগুলো কেমন কেটেছিল সলমন খানের! সেই কথা নিজেই জানিয়ে ছিলেন ভাইজান।

২০০৮ সালে এক সাক্ষাৎকারে প্রকাশ্যে জেলের দিনগুলোর কথা জানিয়েছিলেন সলমন খান। তিনি স্টার, কেমন ছিল তাঁর জন্য জেলে ব্যবস্থা!

২০০৮ সালে এক সাক্ষাৎকারে প্রকাশ্যে জেলের দিনগুলোর কথা জানিয়েছিলেন সলমন খান। তিনি স্টার, কেমন ছিল তাঁর জন্য জেলে ব্যবস্থা!

পর পর ছিল দশটা ঘর। দশটা ঘরের একটাই বাথরুম। এটাই ছিল সলমন খানের সব থেকে বেশি চিন্তার বিষয়। একই বাথরুম ব্যবহার করতেন সকলে।

পর পর ছিল দশটা ঘর। দশটা ঘরের একটাই বাথরুম। এটাই ছিল সলমন খানের সব থেকে বেশি চিন্তার বিষয়। একই বাথরুম ব্যবহার করতেন সকলে।

দেওয়া হয়েছিল একটাই মগ। তা দিয়েই সব কাজ করতে হল সকলকে। সলমনের ক্ষেত্রে তা আলাদা হয়নি।

দেওয়া হয়েছিল একটাই মগ। তা দিয়েই সব কাজ করতে হল সকলকে। সলমনের ক্ষেত্রে তা আলাদা হয়নি।

সকালে ওই মগেই চা পান করা। তারপর তা ধুয়ে নিয়ে তাতেই স্নান সারতে হত। সেটাকে ধুয়ে আবার দুপুরে খেতে হত ডাল ভাত।

সকালে ওই মগেই চা পান করা। তারপর তা ধুয়ে নিয়ে তাতেই স্নান সারতে হত। সেটাকে ধুয়ে আবার দুপুরে খেতে হত ডাল ভাত।

যদিও এ সব কিছু মধ্যে নিজের শরীরকে ঠিক রাখান জন্য দুবেলা জিম করলেন তিনি। পুশ আপ থেকে শুরু করে সিট আপ, বাদ থাকত না কিছুই।

যদিও এ সব কিছু মধ্যে নিজের শরীরকে ঠিক রাখান জন্য দুবেলা জিম করলেন তিনি। পুশ আপ থেকে শুরু করে সিট আপ, বাদ থাকত না কিছুই।

বর্তমানে বেলে রয়েছেন সলমন খান। তবে জেলে কাটানো সেই ভয়াবহ দিনগুলো আজও ভোলেননি তিনি।

বর্তমানে বেলে রয়েছেন সলমন খান। তবে জেলে কাটানো সেই ভয়াবহ দিনগুলো আজও ভোলেননি তিনি।

সলমন খানের শেষ মুক্তি পাওয়া ছবি দাবাং থ্রি, বক্স অফিসে সেভাবে প্রভাব ফেলেনি। এরই মধ্যে একাধিক ছবির শ্যুটিং শুরু হয়ে গিয়েছে।

সলমন খানের শেষ মুক্তি পাওয়া ছবি দাবাং থ্রি, বক্স অফিসে সেভাবে প্রভাব ফেলেনি। এরই মধ্যে একাধিক ছবির শ্যুটিং শুরু হয়ে গিয়েছে।

দেশের পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে সব ছবির শ্যুটিংই স্থগিত করেছেন ভাইজান। বাড়িতে বসেই কাটছে তাঁর সময়।

দেশের পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে সব ছবির শ্যুটিংই স্থগিত করেছেন ভাইজান। বাড়িতে বসেই কাটছে তাঁর সময়।

loader