14

অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে কাটোয়া কলেজের  দুটি হোস্টেল ভগ্নপ্রায় হয়ে পড়েছে। একটি লেডিস একটি বয়েজ হোস্টেলের অবস্থা খুবই খারাপ। ভেঙে পড়েছে ছাদ। পড়ুয়াদের অভিযোগ, হোস্টেলে আতঙ্কে সময় কাটাতে হয় তাদের। বার বার বলা সত্ত্বেও কোনও সংস্কারের ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।  

Subscribe to get breaking news alerts

24

প্রত্যেক আবাসিক ছাত্র  মোট ১২ হাজার টাকা  জমা দেয়। অথচ সেই টাকার কোনও হিসাব নেই। ছাত্রদের অভিযোগ এই আর্থিক তছরুপ এর পরিমাণ প্রায়  প্রায় ৯ লক্ষ টাকা। 
 

34

 কাটোয়া কলেজের অধ্যক্ষ নির্মলেন্দু সরকার জানিয়েছেন, ছাত্রদের কাছ থেকে হোস্টেলের  টাকা তছরুপের অভিযোগ তদন্ত করে দেখা হবে। হোস্টেলের দায়িত্বে থাকা  অধ্যাপক দয়াময় বিশুইকে পরিচালন সমিতির বৈঠকে ডাকা হবে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

44

 ৯ লক্ষ টাকা নয়ছয়ের অভিযোগ,তোলপাড়  বর্ধমানের কাটোয়া কলেজ। যার বিরুদ্ধে অভিযোগ সেই দয়াময় বিশুই জানিয়েছেন, অভিযোগ মিথ্যা। এটা একটা চক্রান্ত।