18

২০১২ সালে প্রথম আরসিবি হর্ষল প্যাটেলকে দলে নিয়েছিল। ২০১৭ পর্যন্ত বিরাটের (Virat Kohli) দলেই ছিলেন হর্ষল প্যাটেল। প্রথম বছর ১২ ম্যাচে ৯ উইকেট নিয়েছিলেন। ২০১৫ সালেও তাঁকে ১৫টি ম্যাচ খেলিয়েছিল আরসিবি। নিয়েছিলেন ১৭ উইকেট। তবে এর পরের দুই মরসুমে, সব মিলিয়ে মাত্র ৬টি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। 

Subscribe to get breaking news alerts

28

২০১৮ সালে আরসিবি তাঁকে ছেড়ে দিয়েছিল। ২০ লক্ষ টাকার বেস প্রাইস দিয়ে তাঁকে কিনেছিল দিল্লি ক্যাপিটালস (Delhi Capitals)। প্রথমে অবশ্য অবিক্রিতই ছিলেন তিনি। পরে এক সাংবাদিক সম্মেলনে হর্ষল বলেছিলেন, কোনও দলই তাঁকে না নেওয়ায় তিনি খুবই অপমানিত বোধ করেছিলেন। তারপর থেকে মন দিয়েছিলেন তাঁর ব্যাটিংয়ে। বোলার হিসাবে সুযোগ না পাওয়ায় চেয়েছিলেন  অলরাউন্ডার হতে।

38

২০১৮ থেকে ২০২০ পর্যন্ত তিনি ডিসি দলেই ছিলেন। সব মিলিয়ে ৩ মরসুমে সুযোগ পেয়েছিলেন সাকুল্যে ৯টি ম্যাচে। নিয়েছিলেন ৯টি উইকেট।  

48

১৪তম আইপিএলে তিনি আবার ফিরে এসেছেন রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর দলে। আরসিবি-র দরজা তাঁর সামনে সরাসরি খোলেনি। আইপিএল ২০২১-এর ট্রেড উইন্ডোতে দিল্লি ক্যাপিটালস তাঁকে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর হাতে তুলে দিয়েছিল। 

58

দ্বিতীয়বার আরসিবিতে যোগ দেওয়ার পরই তাঁর ভাগ্যের চাকা ঘুরে গিয়েছে। ভারতে হওয়া আইপিএল-এর প্রথম পর্বেও তিনিই ছিলেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী। এমআই-এর বিরুদ্ধে তিনি ৫ উইকেট নিয়েছিলেন। মরুদেশেও সেই ফর্ম সঙ্গে করে নিয়ে এসেছেন তিনি। 

68

বিশেষ করে সামনে এমআই-কে দেখলে যেন বেশি করে জ্বলে ওঠেন হর্ষল। ৯ এপ্রিল, মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে প্রথম পর্বের খেলায় তিনি ৪ ওভারে ২৭ রানের বিনিময়ে ৫টি উইকেট নিয়েছিলেন। । মূলত তাঁর বোলিং দাপটেই এমআই-কে ১৫৯ রানে আটকে দিয়ে, ম্যাচটি সহজেই জিতে নিয়েছিল আরসিবি। আর রবিবার রাতে এমআই-এর বিরুদ্ধে হ্যাটট্রিক করেছেন তিনি।

78

১৯৯০ সালের ২৩ নভেম্বর গুজরাটের (Gujarat) সানন্দ জেলায় জন্মেছিলেন হর্ষল প্যাটেল। ছোটবেলা থেকেই ক্রিকেট খেলার খুব শখ ছিল তাঁর। তবে সেই সঙ্গে পড়াশোনাও চালিয়ে গিয়েছিলেন সমান তালে। 

88

চলতি আইপিএল-এ এখনও পর্যন্ত ১০ ম্যাচে ২৩টি উইকেট শিকার করেছেন হর্ষল। উইকেট শিকারের দিক থেকে তাঁর ধারে কাছে নেই আর কোনও বোলার। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে থাকা ডিসির আবেশ খান এবং এমআই-এর জসপ্রিত বুমরা, সমসংখ্যাক ম্যাচ খেরে উইকেট পেয়েছেন যথাক্রমে ১৫ ও ১৪টি। কাজেই পরের মরসুমে আইপিএল-এর পূর্ণাঙ্গ নিলামে, আরসিবি তাঁকে ধরে না রাখলে প্রচুর দর উঠতে চলেছে তাঁর।