110

টি ২০ বিশ্বকাপে ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়েছে পাকিস্তান । প্রথমে ব্যাট করে ১৫১ রান করে ভারতীয় দল । জবাবে একটিও উইতেট না হারিয়ে ম্যাচ জিতে নিয়েছিল বাবর আজমের দল। এটিই  বিশ্বকাপে ভারতের বিরুদ্ধে প্রথম জয় পাকিস্তানের।

Subscribe to get breaking news alerts

210

মাঠে খেলা শেষে দেখা গিয়েছিল সৌহার্দ্যের ছবি। মহম্মদ রিজওয়ানকে জড়িয়ে ধরেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বাবর আজমের সঙ্গেও হয় সৌজন্য বিনিময়। পাকিস্তান প্লেয়ারদের সঙ্গে কথা বলতে দেখা গিয়েছিল ধোনিকেও।
 

310

মাঠে সৌহার্দ্যের ছবি ধরা পড়লেও মাঠের বাইরের ছবিটা কিন্তু সম্পূর্ণ আলাদা। ভারত-পাক ম্যাচ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় চলছে বাগযুদ্ধ। যেখানে সবথেকে বেশি বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েছেন প্রাক্তন পাকিস্তানি পেসার মহম্মদ আমির ও ভারতীয় স্পিনার হরভজন সিং।

410

আসলে প্রথমে ট্যুইটারে হরভজন সিংকে ট্যাগ করে একটি পোস্ট শেয়ার করেন মহম্মদ আমির। সেখানে লিখেছেন,'সবাইকে হ্যালো, আমি জানতে চাই যে যে হরভজন পাজি তার টিভি তো ভাঙেননি? এটা দিনের শেষে ক্রিকেট খেলা।'
 

510

আমিরকে পাল্টা জবাব দিতে দেরি করেননি হরভজন সিং। হরভজন সিং ১৯ জুন, ২০২১০-এ ডাম্বুলায় খেলা এশিয়া কাপের চতুর্থ ম্যাচের ভিডিও শেয়ার করেছেন। যেখানে আমিরকে ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ জেতান ভাজ্জি। ভিডিও শেয়ার করে লেখেন,'এখন তুমি বল মহম্মদ আমির এই ছয়ের ল্যান্ডিং তো তোমার ঘরের টিভিতে হয়নি তো। এটা শুধু একটা খেলা, যেমনটা তুমি বলেছ..'
 

610

ট্যুইটারে আমির ও হরভজনের মধ্যে লড়াই এখানেই থামেনি। প্রাক্তন পাক পেসার লেখেন, “ইউটিউবে তোমার বোলিং দেখছিলাম। যেখানে লালা (শাহিদ আফ্রিদির ডাকনাম) তোমাকে চার বলে চারটে ছক্কা হাঁকিয়েছিল। ক্রিকেটে এমনটা হতেই পারে, কিন্তু টেস্ট ম্যাচে এমন ঘটনা দেখাই যায় না। মারটা একটু বেশিই হয়ে গিয়েছিল।”

710

এর পর ভাজ্জি পাজি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন এবং তার টুইটের জবাব দিতে গিয়ে লর্ডসে স্পট ফিক্সিং কাণ্ড টেনে নিয়ে আসেন। হরভজন লেখেন, “লর্ডসে নো-বল কী করে হয়েছিল? কত টাকা নিয়েছিলে আর কে-ই বা টাকা দিয়েছিল? টেস্ট ক্রিকেটে নো-বল হয় কী করে? তোমার এবং তোমার ভক্তদের লজ্জিত হওয়া উচিত ক্রিকেটকে কলুষিত করার জন্য।”

810

পরে ফের আমিরকে আক্রমণ করে হরভজন লেখেন, “শুধু টাকা, টাকা আর টাকা। সম্মানের কোনও মূল্যই নেই তোমাদের কাছে। দেশবাসী এবং তোমার সমর্থকদের কি বলতে পারবে, কত টাকা পেয়েছিলে? দূর হও। তোমাদের সঙ্গে কথাই বলা
উচিত নয়।”
 

910

হরভজনের এই টুইট দেখে আমির তাকে গালিগালাজ করে লেখেন, 'তুমি খুব অভদ্র, তুমি আমার অতীতের কথা বলছ, নিজের অবৈধ বোলিং অ্যাকশন নিয়ে কিছু বলো।  তিনদিন আগেই তোমাদের মুখ বন্ধ করে দিয়েছি। এখন দেখো, কী ভাবে আমরা বিশ্বকাপ জিতি। পার্কে গিয়ে হাওয়া খাও। মন ভাল থাকবে।”
 

1010

মহম্মদ আমির ও হরভজন সিংয়ের এই বাকযুদ্ধে নেট দুনিয়ায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে। এর লড়াই এখন কোথায় থামে, উভয় পক্ষ আর কোনও জবাব দেয় কিনা উত্তর -পাল্টা উত্তর দেয় কিনা এটাই দেখার। ভারত-পাক ম্যাচ হয়ে গেলেও সেই উত্তাপ এখনও অব্যাহত।