মনের ইচ্ছে পূরণ থেকে রোগ ব্যাধি দূর, মহাঅষ্ঠমীর সন্ধিপুজো করলেই মিলবে এই সাত ফল

First Published 23, Oct 2020, 10:34 AM

সন্ধিপুজোর তিথি। দূর্গা পুজোর সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ লগ্ন। যে সময় দেবী দুষ্টের দমন করেছিলেন। শাত্রমতে, মায়ের তেজ, জ্যোতি এই সময় থাকে সব থেকে বেশি। তাই এই সময় মায়ের কাছে ভক্তিভরে পুজো দিলে মেলে সাত ফল, কী কী জেনে নিন

<p>কোনও কাজে বাধা, বারে বারে চেষ্টা করেও মিলছে না ফল, ভক্তিভরে মহাঅষ্টমীর পুজো করুন। দেখবেন আটকে থাকা কাজ নির্বিঘ্নেই হয়ে যাচ্ছে।&nbsp;</p>

কোনও কাজে বাধা, বারে বারে চেষ্টা করেও মিলছে না ফল, ভক্তিভরে মহাঅষ্টমীর পুজো করুন। দেখবেন আটকে থাকা কাজ নির্বিঘ্নেই হয়ে যাচ্ছে। 

<p>মহাঅষ্টমীর মন্ত্র যপ করলে ভেতর থেকে শক্তি পাওয়া যায়। ভেঙে না পড়ে নতুন পথ চলার সাহস পাওয়া যায়। নতুন উদ্যোমে জীবন শুরু করা যায়।&nbsp;</p>

মহাঅষ্টমীর মন্ত্র যপ করলে ভেতর থেকে শক্তি পাওয়া যায়। ভেঙে না পড়ে নতুন পথ চলার সাহস পাওয়া যায়। নতুন উদ্যোমে জীবন শুরু করা যায়। 

<p>পরিবারের সুখ শান্তি বজায় রাখতে এই সময় পুজোর ভুমিকা অন্যতম। ১০৮টা পদ্ম দিয়ে মাকে পুজো দিয়ে পরিবারের যে কোনও অশান্তিই দূর হয়ে যায়।&nbsp;</p>

পরিবারের সুখ শান্তি বজায় রাখতে এই সময় পুজোর ভুমিকা অন্যতম। ১০৮টা পদ্ম দিয়ে মাকে পুজো দিয়ে পরিবারের যে কোনও অশান্তিই দূর হয়ে যায়। 

<p>কারুর গ্রহে যদি কোনও সমস্যা থাকে, সেই গ্রহের দোষও কেটে যায় এই সন্ধিপুজোর ফলে। ফলে মুহূর্তে ঘুরে যায় ভাগ্যের চাকা।&nbsp;</p>

কারুর গ্রহে যদি কোনও সমস্যা থাকে, সেই গ্রহের দোষও কেটে যায় এই সন্ধিপুজোর ফলে। ফলে মুহূর্তে ঘুরে যায় ভাগ্যের চাকা। 

<p>দীর্ঘ অসুখে ভোগা থেকে শুরু করে অসুখের হাত থেকে মুক্তি। এদিন ভক্তিভরে পুজো দিলে কেটে যায় সেই কালো ছায়া।&nbsp;</p>

দীর্ঘ অসুখে ভোগা থেকে শুরু করে অসুখের হাত থেকে মুক্তি। এদিন ভক্তিভরে পুজো দিলে কেটে যায় সেই কালো ছায়া। 

<p>শরীরের সৌন্দর্যতা বেড়ে ওঠে এই পুজো করলে। ভেতর থেকে শুদ্ধ মনে হয়। অন্তরের একাধিক সমস্যা যেন মুহূর্তে সমাধান হয়ে ভেতর থেকে ফ্রেস অনুভুত হয়।&nbsp;</p>

শরীরের সৌন্দর্যতা বেড়ে ওঠে এই পুজো করলে। ভেতর থেকে শুদ্ধ মনে হয়। অন্তরের একাধিক সমস্যা যেন মুহূর্তে সমাধান হয়ে ভেতর থেকে ফ্রেস অনুভুত হয়। 

<p>খারাপ স্বপ্ন দেখা থেকে শুরু মনে মনের রোগ সেরে যাওয়া, সৎ ইচ্ছে পূর হওয়া, সবই হতে পারে এই মহালগ্ন দেবীর আরাধনায়।&nbsp;</p>

খারাপ স্বপ্ন দেখা থেকে শুরু মনে মনের রোগ সেরে যাওয়া, সৎ ইচ্ছে পূর হওয়া, সবই হতে পারে এই মহালগ্ন দেবীর আরাধনায়।