পুজোর থিমের উদ্বোধনে বাংলার স্মার্ট রোবট, যন্ত্রমানবীর প্রেমে পড়ল ঠাকুরপুকুরবাসী

First Published 26, Sep 2020, 3:58 PM


এই প্রথমবার যন্ত্রমানবী দেখা যাবে কলকাতার দুর্গা পুজোতে। শনিবার সকাল এগারোটা নাগাদ এই যন্ত্রমানবী এবারের পুজোর থিম উদ্বোধন করল ঠাকুরপুকুর এসবি পার্ক সার্বজনীন দূর্গা উৎসব কমিটির মাঠে। মানুষকেও হার মানাল মানুষের তৈরি রোবট।  প্রযুক্তিগত ভাবে কোনও ভূল না থাকলে আপনি বাড়ি থেকে বের হবার পর স্য়ানিটাইজার দিতে ভূলে গেলেও এই রোবট বাবাজি ভূলবেন না। আজ্ঞে হ্য়াঁ সেই রোবট নাকি এবার নিজে হাতেই দর্শনার্থীদের স্য়ানিটাইজার দেবে।
 

<p>শনিবার অসাধরণ বিজ্ঞানসম্মত এক কারিগরির ঝলক দেখতে পেল ঠাকুরপুকুর এসবি পার্কের বাসিন্দারা। তাঁর এবারে তাঁদের পুজোর থিম উদ্বোধন করল জলজ্য়ান্ত রোবট। তবে এখানেই শেষ নয় করোনা আবহে পরিস্থিতি বুঝেই রয়েছে রোবটের আরও কিছু স্মার্ট কাজ-কারবার।<br />
&nbsp;</p>

শনিবার অসাধরণ বিজ্ঞানসম্মত এক কারিগরির ঝলক দেখতে পেল ঠাকুরপুকুর এসবি পার্কের বাসিন্দারা। তাঁর এবারে তাঁদের পুজোর থিম উদ্বোধন করল জলজ্য়ান্ত রোবট। তবে এখানেই শেষ নয় করোনা আবহে পরিস্থিতি বুঝেই রয়েছে রোবটের আরও কিছু স্মার্ট কাজ-কারবার।
 

<p>মানুষকে হার মানাল মানুষের তৈরি রোবট। প্রযুক্তিগত ভাবে কোনও ভূল না থাকলে আপনি বাড়ি থেকে বের হবার পর স্য়ানিটাইজার দিতে ভূলে গেলেও এই রোবট বাবাজি ভূলবেন না। আজ্ঞে হ্য়াঁ সেই রোবট নাকি এবার নিজে হাতেই দর্শনার্থীদের স্য়ানিটাইজার দেবে।<br />
&nbsp;</p>

মানুষকে হার মানাল মানুষের তৈরি রোবট। প্রযুক্তিগত ভাবে কোনও ভূল না থাকলে আপনি বাড়ি থেকে বের হবার পর স্য়ানিটাইজার দিতে ভূলে গেলেও এই রোবট বাবাজি ভূলবেন না। আজ্ঞে হ্য়াঁ সেই রোবট নাকি এবার নিজে হাতেই দর্শনার্থীদের স্য়ানিটাইজার দেবে।
 

<p>&nbsp;শনিবার সকাল এগারোটা নাগাদ এই যন্ত্রমানবী এবারের পুজোর থিম উদ্বোধন করল ঠাকুরপুকুর এসবি পার্ক সার্বজনীন দূর্গা উৎসব কমিটির মাঠে।এই বিশাল যন্ত্রমানবী রোবটটি মন্ডপ উদ্বোধন থেকে মানুষকে শুভেচ্ছা জানাবে।&nbsp;<br />
&nbsp;</p>

 শনিবার সকাল এগারোটা নাগাদ এই যন্ত্রমানবী এবারের পুজোর থিম উদ্বোধন করল ঠাকুরপুকুর এসবি পার্ক সার্বজনীন দূর্গা উৎসব কমিটির মাঠে।এই বিশাল যন্ত্রমানবী রোবটটি মন্ডপ উদ্বোধন থেকে মানুষকে শুভেচ্ছা জানাবে। 
 

<p>এস বি পার্ক পুজো কমিটির সম্পাদক সঞ্জয় মজুমদার বলেন 'করোনা আবহে মানুষের যে ছোঁয়াছুঁয়ি সেই ছোঁয়াছুঁয়ি থেকে নিজেদেরকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য ফিজিক্যাল ডিসটেন্স এর বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করলাম'।&nbsp;<br />
&nbsp;</p>

এস বি পার্ক পুজো কমিটির সম্পাদক সঞ্জয় মজুমদার বলেন 'করোনা আবহে মানুষের যে ছোঁয়াছুঁয়ি সেই ছোঁয়াছুঁয়ি থেকে নিজেদেরকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য ফিজিক্যাল ডিসটেন্স এর বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করলাম'। 
 

<p>সঞ্জয় বাবুর দাবি, কলকাতা তথা বাংলা তথা ভারতেও কখনও কোনও পুজো মণ্ডপে এই যন্ত্রমানবী রোবট &nbsp;উদ্বোধন করেনি। যা এসবি পার্ক এবছর ইতিহাস গড়ল। তবে সবথেকে ভাল লাগার যেটা, &nbsp;রোবটটি তৈরি করেছে বাংলার ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের&nbsp;পড়ুয়ারা।&nbsp;</p>

সঞ্জয় বাবুর দাবি, কলকাতা তথা বাংলা তথা ভারতেও কখনও কোনও পুজো মণ্ডপে এই যন্ত্রমানবী রোবট  উদ্বোধন করেনি। যা এসবি পার্ক এবছর ইতিহাস গড়ল। তবে সবথেকে ভাল লাগার যেটা,  রোবটটি তৈরি করেছে বাংলার ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের পড়ুয়ারা। 

loader