'সোশ্যাল মিডিয়ায় দুঃখিত না লিখে মানুষের পাশে দাঁড়ান', সাফ জানালেন অক্কি

First Published 15, Apr 2020, 12:48 PM

প্রাকৃতিক দুর্যোগই হোক, বা মহামারী, মানুষের মধ্যে যখনই কোনও বিপদ নেমে আসে, তখনই পাশে এসে দাঁড়ায় অনেকেই সাধ্যমত। তবে বেশ কিছু মানুষ এমনও আছেন, যাঁরা প্রতিটা মুহূর্তে কেবল সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় দুঃখই প্রকাশ করে চলেন। তাঁদের এবার এক হাত নিলেন অক্ষয় কুমার। 
যখনই প্রয়োজন হয়েছে তখনই সাধ্য মত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে থাকেন অক্ষয় কুমার। অর্থও দিয়ে থাকেন বিভিন্ন খাতে। 

যখনই প্রয়োজন হয়েছে তখনই সাধ্য মত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে থাকেন অক্ষয় কুমার। অর্থও দিয়ে থাকেন বিভিন্ন খাতে। 

এই সুবাদেই অক্ষয় কুমার একাধিকবার খবরের শিরোনামে এসেছেন। দেশের প্রয়োজনে, সাধারণ মানুষের প্রয়োজনে, সব সময় তিনি থেকেছেন। 

এই সুবাদেই অক্ষয় কুমার একাধিকবার খবরের শিরোনামে এসেছেন। দেশের প্রয়োজনে, সাধারণ মানুষের প্রয়োজনে, সব সময় তিনি থেকেছেন। 

করোনা ভাইরাসঃ করোনা ভাইরাস ঠেকাতে প্রত্যেকটা মানুষকেই থাকতে বলা হচ্ছে ঘরে, চলছে লক ডাউন। এমন পরিস্থিতে মানুষকে সচেতনও করেছেন অক্কি।

করোনা ভাইরাসঃ করোনা ভাইরাস ঠেকাতে প্রত্যেকটা মানুষকেই থাকতে বলা হচ্ছে ঘরে, চলছে লক ডাউন। এমন পরিস্থিতে মানুষকে সচেতনও করেছেন অক্কি।

দেশের মানুষকে নিয়ে তিনি বরাবরই ভাবেন, এক সাংবাদিক বৈঠকে তাঁকে প্রশ্ন করা হয়, তিনি মাঝে মধ্যেই কেন এত টাকা দেন!

দেশের মানুষকে নিয়ে তিনি বরাবরই ভাবেন, এক সাংবাদিক বৈঠকে তাঁকে প্রশ্ন করা হয়, তিনি মাঝে মধ্যেই কেন এত টাকা দেন!

এরপরই বিস্ফোরক মন্তব্য করেন অক্ষয় কুমার। জানান, তাঁর কাছে রয়েছে প্রচুর টাকা। তাই তিনি তা দান করে থাকেন। 

এরপরই বিস্ফোরক মন্তব্য করেন অক্ষয় কুমার। জানান, তাঁর কাছে রয়েছে প্রচুর টাকা। তাই তিনি তা দান করে থাকেন। 

তবে পরবর্তীতে নিজেই খোলসা করেন কারণ। তিনি জানান, মানুষ যেভাবে প্রতিটা মুহূর্তে পরিস্থিতিতর সঙ্গে লড়াই করছে, তাতে এইটুকু তাঁর কর্তব্য তাঁদের পাশে দাঁড়ানো।

তবে পরবর্তীতে নিজেই খোলসা করেন কারণ। তিনি জানান, মানুষ যেভাবে প্রতিটা মুহূর্তে পরিস্থিতিতর সঙ্গে লড়াই করছে, তাতে এইটুকু তাঁর কর্তব্য তাঁদের পাশে দাঁড়ানো।

এখানেই শেষ নয়, তিনি আরও জানান, যে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানোটা বেশি জরুরী, কিন্তু অনেকেই আছেন, যাঁরা কেবল সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় আহারে বলে ছেড়ে দেন। 

এখানেই শেষ নয়, তিনি আরও জানান, যে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানোটা বেশি জরুরী, কিন্তু অনেকেই আছেন, যাঁরা কেবল সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় আহারে বলে ছেড়ে দেন। 

এটাতেই অস্বস্তি বোধ করেন অক্কি। তাঁর মতে সাধ্য মত সাহায্য করাটা প্রয়োজন, যে পঁচিশ টাকাই হোক বা পঁচিশ লাখ। 

এটাতেই অস্বস্তি বোধ করেন অক্কি। তাঁর মতে সাধ্য মত সাহায্য করাটা প্রয়োজন, যে পঁচিশ টাকাই হোক বা পঁচিশ লাখ। 

অক্কির এই মন্তব্য বিনোদন জগতে ঝড় উঠেছিল, কিন্তু অক্কি প্রকাশ্যে কখনই বুঝতে দেননি যে তিনি কাউতে তোপের শিকার করতে চেয়েছিলেন। 

অক্কির এই মন্তব্য বিনোদন জগতে ঝড় উঠেছিল, কিন্তু অক্কি প্রকাশ্যে কখনই বুঝতে দেননি যে তিনি কাউতে তোপের শিকার করতে চেয়েছিলেন। 

loader