রাতে দেরি করে খাওয়া স্বাস্থ্যের উপর তা কতটা প্রভাব ফেলে, জেনে নিন বিশেষজ্ঞদের মত

First Published 12, Sep 2020, 2:13 PM

গবেষণা অনুসারে, আপনি যদি প্রতিদিন রাতে একটি নির্দিষ্ট সময়ে খাবার খান, তবে এটি একটি স্বাস্থ্যকর জীবনধারা তৈরি করতে সহায়তা করে। তবে ভারতীয়রা প্রায়শই বেশি রাতে খেতে পছন্দ করেন। রাতে পরিবারের সবার সঙ্গে খেতে বসা পারিবারিক বন্ধন জোরালো করে ঠিকই। তবে আপনার অবশ্যই জানা উচিত যে আপনার স্বাস্থ্যের জন্য রাতে দেরি করে খাদ্য গ্রহণ কীভাবে প্রভাব ফেলতে পারে। এই গবেষণা অনুসারে, ডিনারের অভ্যাস ক্যালোরি গ্রহণ এবং দুর্বল পুষ্টির পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। তাই জেনে নিন রাতে দেরিতে খাদ্য গ্রহণ সম্পর্কিত গবেষণা সম্পর্কে বিস্তারিত-
 

<p><strong>এই গবেষণায়&nbsp;অংশগ্রহণকারী দলকে চারটি ভাগে ভাগ করা হয়েছিল। তারা কী কী পরিমাণে খাবেন তা গবেষণায় দেখা হয়েছিল। এর ভিত্তিতে, অংশগ্রহণকারীদের পুষ্টিকর খাদ্য সূচক অনুসারে একটি খাদ্য তালিকা বজায় রাখতে বলা হয়েছিল। যাতে এই পুষ্টি উপাদানগুলি এবং ক্যালোরির মাত্রার ভিত্তিতে এই খাবারগুলি স্থান দেওয়া সম্ভব হয়।</strong></p>

এই গবেষণায় অংশগ্রহণকারী দলকে চারটি ভাগে ভাগ করা হয়েছিল। তারা কী কী পরিমাণে খাবেন তা গবেষণায় দেখা হয়েছিল। এর ভিত্তিতে, অংশগ্রহণকারীদের পুষ্টিকর খাদ্য সূচক অনুসারে একটি খাদ্য তালিকা বজায় রাখতে বলা হয়েছিল। যাতে এই পুষ্টি উপাদানগুলি এবং ক্যালোরির মাত্রার ভিত্তিতে এই খাবারগুলি স্থান দেওয়া সম্ভব হয়।

<p><strong>গবেষণায় পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, আমাদের এই ক্ষুধার্ত বোধ প্রক্রিয়াটিও একটি নির্দিষ্ট সময় অনুসরণ করে। এটি দিনের শেষে সবচেয়ে তীব্র হয়। এই গবেষণার বিজ্ঞানীদের মতে, আপনি যে ডায়েট গ্রহণ করেন এবং এর ধরণ উভয়ই আপনার স্বাস্থ্যের উপর গভীর প্রভাব ফেলে।&nbsp;</strong></p>

গবেষণায় পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, আমাদের এই ক্ষুধার্ত বোধ প্রক্রিয়াটিও একটি নির্দিষ্ট সময় অনুসরণ করে। এটি দিনের শেষে সবচেয়ে তীব্র হয়। এই গবেষণার বিজ্ঞানীদের মতে, আপনি যে ডায়েট গ্রহণ করেন এবং এর ধরণ উভয়ই আপনার স্বাস্থ্যের উপর গভীর প্রভাব ফেলে। 

<p><strong>এই সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে যে সন্ধ্যায় খাবারের সময়, অংশগ্রহণকারীরা দিনের ৪০ শতাংশ ক্যালোরি ব্যবহার করেছিলেন। তবে যারা সন্ধ্যের খাবার গ্রহণ করেন, তারা দিনের বেলাতে কম ক্যালোরি গ্রহণ করেন। তবে যে অংশগ্রহণকারীরা সর্বাধিক ক্যালোরি গ্রহণ করেছিলেন তারা অন্যদের তুলনায় পুষ্টিকর সূচকে খুব কম স্কোর করেছিলেন।</strong></p>

এই সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে যে সন্ধ্যায় খাবারের সময়, অংশগ্রহণকারীরা দিনের ৪০ শতাংশ ক্যালোরি ব্যবহার করেছিলেন। তবে যারা সন্ধ্যের খাবার গ্রহণ করেন, তারা দিনের বেলাতে কম ক্যালোরি গ্রহণ করেন। তবে যে অংশগ্রহণকারীরা সর্বাধিক ক্যালোরি গ্রহণ করেছিলেন তারা অন্যদের তুলনায় পুষ্টিকর সূচকে খুব কম স্কোর করেছিলেন।

<p><strong>গবেষকদের মতে আপনার খাওয়ার সময় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়, যা আপনার খাদ্যাভাসকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করে। গবেষকরা এই গবেষণার ফল স্বরূপ আরও জানিয়েছিলেন, সন্ধ্যায় স্বল্প পরিমাণে ক্যালোরি গ্রহণ আপনার দৈনন্দিন ক্যালোরির সঙ্গে যুক্ত হতে পারে। এছাড়াও, সন্ধ্যায় ক্যালোরি গ্রহণ কম ডায়েটারি মানের স্কোরের সঙ্গে যুক্ত হতে পারে।</strong></p>

গবেষকদের মতে আপনার খাওয়ার সময় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়, যা আপনার খাদ্যাভাসকে ব্যাপকভাবে প্রভাবিত করে। গবেষকরা এই গবেষণার ফল স্বরূপ আরও জানিয়েছিলেন, সন্ধ্যায় স্বল্প পরিমাণে ক্যালোরি গ্রহণ আপনার দৈনন্দিন ক্যালোরির সঙ্গে যুক্ত হতে পারে। এছাড়াও, সন্ধ্যায় ক্যালোরি গ্রহণ কম ডায়েটারি মানের স্কোরের সঙ্গে যুক্ত হতে পারে।

<p><strong>ব্রেকফাস্টের মত ডিনার সময় মতো করা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। একই সঙ্গে বিজ্ঞানও এটিকে সমর্থন করে। গভীর রাতে খাওয়া আপনার সার্কেডিয়ান রিদমকে অনুসরণ করে না এবং এজন্য আপনাকে রাতে শোওয়ার অন্তত বেশ কয়েক ঘন্টা আগেই খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। পুষ্টি বিশেষজ্ঞের মতে, সময় মতো খাবার খাওয়া আপনার স্বাস্থ্যউন্নতি করে কারণ, এটি আপনার অন্ত্রগুলি মেরামত করে এবং সহজেই এ্যাক্টিভ রাখতে সাহায্য করে। রাতে বেশি পরিমানে খাওয়া বা গভীর রাতে খাওয়ার ফলে স্থূলত্ব এবং অন্যান্য কার্ডিওমেটাবলিক রোগ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।</strong></p>

ব্রেকফাস্টের মত ডিনার সময় মতো করা একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। একই সঙ্গে বিজ্ঞানও এটিকে সমর্থন করে। গভীর রাতে খাওয়া আপনার সার্কেডিয়ান রিদমকে অনুসরণ করে না এবং এজন্য আপনাকে রাতে শোওয়ার অন্তত বেশ কয়েক ঘন্টা আগেই খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। পুষ্টি বিশেষজ্ঞের মতে, সময় মতো খাবার খাওয়া আপনার স্বাস্থ্যউন্নতি করে কারণ, এটি আপনার অন্ত্রগুলি মেরামত করে এবং সহজেই এ্যাক্টিভ রাখতে সাহায্য করে। রাতে বেশি পরিমানে খাওয়া বা গভীর রাতে খাওয়ার ফলে স্থূলত্ব এবং অন্যান্য কার্ডিওমেটাবলিক রোগ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

<p><strong>পুষ্টি বিশেষজ্ঞের মতে আপনার রাতের খাবার এবং শোওয়ার সময়কালের মধ্যে আপনাকে অবশ্যই সর্বদা ২-৩ ঘন্টার ব্যবধান রাখতে হবে। এটির সঙ্গে, আপনার সারা দিন অল্প পরিমাণে খাবার খাওয়া উচিত। যাঁরা দ্রুত ডিনার করতে অক্ষম তাদের উচিত রাতে ভারী খাবার এড়িয়ে যাওয়া উচিত। খাবার ত্যাগ করা কখনই একটি ভাল বিকল্প নয় কারণ এটি আপনাকে দুর্বল করে তুলতে পারে। তাই ডিনারের বিষয়ে এই বিষয়গুলি মাথার রাখা অত্যন্ত জরুরী।</strong></p>

পুষ্টি বিশেষজ্ঞের মতে আপনার রাতের খাবার এবং শোওয়ার সময়কালের মধ্যে আপনাকে অবশ্যই সর্বদা ২-৩ ঘন্টার ব্যবধান রাখতে হবে। এটির সঙ্গে, আপনার সারা দিন অল্প পরিমাণে খাবার খাওয়া উচিত। যাঁরা দ্রুত ডিনার করতে অক্ষম তাদের উচিত রাতে ভারী খাবার এড়িয়ে যাওয়া উচিত। খাবার ত্যাগ করা কখনই একটি ভাল বিকল্প নয় কারণ এটি আপনাকে দুর্বল করে তুলতে পারে। তাই ডিনারের বিষয়ে এই বিষয়গুলি মাথার রাখা অত্যন্ত জরুরী।

loader