সর্বনাশ, ধূমপানের থেকেও মারাত্মক ক্ষতিকর এই ৬ খাদ্য

First Published 31, Oct 2020, 3:48 PM

সারাদিনে যখনই আমাদের খিদে পায় আমরা পেট ভরার মতো হাতের সামনে যা পাই তাই খেয়ে নিই। বিশেষ করে যখন হাতে কম সময় থাকে তখন প্রিয় খাবার খোঁজার সময়ও থাকে না, তাই যাতে পেট অনেকক্ষণ ভরা থাকে সেরকম কিছু একটা পেলেই কাজ চলে যাবে। তবে এই প্রতিবেদনটি পড়ার পর প্রতিবার খাবার আগে অন্তত একবার হলেও ভাববেন। জানলে অবাক হবে আপনার পছন্দের এই খাবারগুলি ধূমপানের থেকেও মারাত্মক ক্ষতিকর। এই ধরণের খাদ্য শরীরের পক্ষে যে এতটা ক্ষতিকর তা আমাদের তা আমাদের জেনে রাখা উচিত, জেনে নিন এই ৬টি খাদ্য সম্বন্ধে-

<p>&nbsp;</p>

<p>মাছ- মাছ বিভিন্ন পুষ্টিগুণ থাকে। বিশেষ করে ওমেগা থ্রি সমৃদ্ধ ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে মাছে। তবে মাছের ফলন বৃদ্ধির জন্য অনেক সময় বিভিন্ন রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়, যেগুলি আমাদের শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।</p>

<p>&nbsp;</p>

 

মাছ- মাছ বিভিন্ন পুষ্টিগুণ থাকে। বিশেষ করে ওমেগা থ্রি সমৃদ্ধ ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে মাছে। তবে মাছের ফলন বৃদ্ধির জন্য অনেক সময় বিভিন্ন রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়, যেগুলি আমাদের শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

 

<p>ফ্যাট ফ্রি খাদ্য- যাদের প্রচুর ওজন বৃ্দ্ধির সমস্যা রয়েছে তারা অনেক সময় ফ্যাট ফ্রি খাদ্যের খোঁজ করেন। তবে বহু স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে এই ফ্যাট ফ্রি খাবারই আসলে শরীরের জন্য বেশি ক্ষতিকারক। যদিও এই বিষয়ে মতভেদ রয়েছে।</p>

ফ্যাট ফ্রি খাদ্য- যাদের প্রচুর ওজন বৃ্দ্ধির সমস্যা রয়েছে তারা অনেক সময় ফ্যাট ফ্রি খাদ্যের খোঁজ করেন। তবে বহু স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে এই ফ্যাট ফ্রি খাবারই আসলে শরীরের জন্য বেশি ক্ষতিকারক। যদিও এই বিষয়ে মতভেদ রয়েছে।

<p>সয়াবিন- এটি একটি অত্যন্ত পুষ্টিসমৃদ্ধ খাদ্য। প্রানী দেহের জন্যে প্রয়োজনীয় প্রোটিনের প্রাথমিক উৎস মনে করা হয় সয়াবিন-কে। তবে যাঁদের থাইরয়েডের সমস্যা রয়েছে তাঁদের জন্য এই পদ অত্যন্ত ক্ষতিকর বলে প্রমাণিত হতে পারে। তাঁদের চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে তবেই সয়াবিন খাওয়া উচিৎ।</p>

সয়াবিন- এটি একটি অত্যন্ত পুষ্টিসমৃদ্ধ খাদ্য। প্রানী দেহের জন্যে প্রয়োজনীয় প্রোটিনের প্রাথমিক উৎস মনে করা হয় সয়াবিন-কে। তবে যাঁদের থাইরয়েডের সমস্যা রয়েছে তাঁদের জন্য এই পদ অত্যন্ত ক্ষতিকর বলে প্রমাণিত হতে পারে। তাঁদের চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে তবেই সয়াবিন খাওয়া উচিৎ।

<p>গ্রানোলা বার- গ্রানোলাতে চিনির পরিমান অত্যন্ত বেশি থাকে ফলে এটি খেলে খিদের প্রবণতাকে কমিয়ে দেয়। এই খাদ্যে অত্যাধিক চিনি থাকার ফলে শরীরের পক্ষে অত্যন্ত ক্ষতিকর বলে মনে করা হয়।</p>

গ্রানোলা বার- গ্রানোলাতে চিনির পরিমান অত্যন্ত বেশি থাকে ফলে এটি খেলে খিদের প্রবণতাকে কমিয়ে দেয়। এই খাদ্যে অত্যাধিক চিনি থাকার ফলে শরীরের পক্ষে অত্যন্ত ক্ষতিকর বলে মনে করা হয়।

<p>পাউরুটি- সাদা ব্রেড বা ময়দার পাউরুটি শরীরের পক্ষে ভাল হলেও অন্যান্য ব্রেড বা বিশেষ করে ব্রাউন ব্রেডে বেশি ফাইবার সমৃদ্ধ। শরীরে ওজন বৃদ্ধির জন্য ঝুঁকি থাকে বেশি পরিমানে ব্রেড খেলে।</p>

পাউরুটি- সাদা ব্রেড বা ময়দার পাউরুটি শরীরের পক্ষে ভাল হলেও অন্যান্য ব্রেড বা বিশেষ করে ব্রাউন ব্রেডে বেশি ফাইবার সমৃদ্ধ। শরীরে ওজন বৃদ্ধির জন্য ঝুঁকি থাকে বেশি পরিমানে ব্রেড খেলে।

<p>ফলের রস- ফলের রসের পুষ্টিগুন কারও অজানা নয়। তবে বিশেষ কিছু ফলের রস অত্যধিক পরিমাণে শর্করা থাকে যা শরীরে ডায়াবেটিস, স্থূলতা এবং আনুসঙ্গিক সমস্যা বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে এই ধরণের খাদ্য গ্রহণ করা উচিৎ।</p>

ফলের রস- ফলের রসের পুষ্টিগুন কারও অজানা নয়। তবে বিশেষ কিছু ফলের রস অত্যধিক পরিমাণে শর্করা থাকে যা শরীরে ডায়াবেটিস, স্থূলতা এবং আনুসঙ্গিক সমস্যা বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে এই ধরণের খাদ্য গ্রহণ করা উচিৎ।