চিনকে মোক্ষম জবাব দিতে ঢেলে সামরিক সজ্জা , যুদ্ধবিমান-সহ কেনা হচ্ছে আরও ৯ হাজার কোটির অস্ত্র

First Published 12, Aug 2020, 9:31 AM

সেনাবাহিনীর শক্তি বৃদ্ধিতে ফের পদক্ষেপ ভারত সরকারের। ডিফেন্স অ্যাকিউজেশন কাউন্সিল থেকে ফের ৮৭২২.৩৮ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হলো নতুন অস্ত্রশস্ত্র কেনার জন্য। কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং-এর উপস্থিতিতে একটি বৈঠকে  এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে কিছু অস্ত্রশস্ত্র ‘আত্মনির্ভর ভারত’ প্রকল্পের অধীনে দেশেই  বানানো হবে।

<p><br />
<strong>চিন ও পাকিস্তান জোট বেঁধেছে। বেসুরো বাজছে নেপালও। সেনাবাহিনীর শক্তি বৃদ্ধিতে তাই আবার বড় পদক্ষের মোদী সরকারের। রাফালের পর এবার ৮,৭২২.৩৮ কোটি টাকার প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম কেনার অনুমোদন দিল ডিএসি।</strong></p>

<p>&nbsp;</p>


চিন ও পাকিস্তান জোট বেঁধেছে। বেসুরো বাজছে নেপালও। সেনাবাহিনীর শক্তি বৃদ্ধিতে তাই আবার বড় পদক্ষের মোদী সরকারের। রাফালের পর এবার ৮,৭২২.৩৮ কোটি টাকার প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম কেনার অনুমোদন দিল ডিএসি।

 

<p><strong>সম্প্রতি দেশে রাফাল এসেছে। যাতে বায়ু সেনার শক্তি অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। এবার &nbsp;চিন আর পাকিস্তানের চোখে চোখ রেখে জবাব দিতে অস্ত্রভান্ডারে সামিল হতে চলেছে আরও একাধিক অত্যাধুনিক অস্ত্র এবং প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম। নতুন করে আরও ৮,৭২২.৩৮ কোটি টাকার সামরিক সরঞ্জাম কেনার অনুমোদন দিয়েছে ডিএসি বা ডিফেন্স অ্যাক্যুইজেশন কাউন্সিল।</strong><br />
&nbsp;</p>

সম্প্রতি দেশে রাফাল এসেছে। যাতে বায়ু সেনার শক্তি অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। এবার  চিন আর পাকিস্তানের চোখে চোখ রেখে জবাব দিতে অস্ত্রভান্ডারে সামিল হতে চলেছে আরও একাধিক অত্যাধুনিক অস্ত্র এবং প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম। নতুন করে আরও ৮,৭২২.৩৮ কোটি টাকার সামরিক সরঞ্জাম কেনার অনুমোদন দিয়েছে ডিএসি বা ডিফেন্স অ্যাক্যুইজেশন কাউন্সিল।
 

<p><strong>ভয়ঙ্কর শক্তিশালী সব অস্ত্র সামিল হতে চলেছে সেনা বাহিনীতে। ১০৬টি বেসিক ট্রেনার এয়ারক্রাফট, সুপার ব়্যাপিড গান মাউন্ট। নৌসেনার কামানে এই যন্ত্র বসালে শত্রু পক্ষের বিমান ও মিসাইলকে আরও নিখুঁত নিশানায় বিঁধতে পারবে।</strong></p>

ভয়ঙ্কর শক্তিশালী সব অস্ত্র সামিল হতে চলেছে সেনা বাহিনীতে। ১০৬টি বেসিক ট্রেনার এয়ারক্রাফট, সুপার ব়্যাপিড গান মাউন্ট। নৌসেনার কামানে এই যন্ত্র বসালে শত্রু পক্ষের বিমান ও মিসাইলকে আরও নিখুঁত নিশানায় বিঁধতে পারবে।

<p><strong>প্রতিরক্ষমন্ত্রক জানাচ্ছে, এই বরাদ্দের মধ্যে থেকে হিন্দুস্তান এরোনটিক্স লিমিটেড (হ্যাল) এর তৈরি ১০৬টি বেসিক ট্রেনার এয়ারক্রাফটসও আনা হবে। এই এয়ারক্রাফটগুলি ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে তুলে দেওয়া হবে। এর আগে এরকম বিমান হিন্দুস্তান এরোনটিক্স লিমিটেড বানিয়েছে যেগুলি এখন সার্টিফিকেশন পদ্ধতির অধীনে রয়েছে। এখন আরও ১০৬টি এই প্রকারের বিমানের অর্ডার দেওয়া হয়েছে এই হিন্দুস্তান এরোনটিক্স লিমিটেড থেকে। প্রথম ধাপে ৭০ টি এবং তার পরের ধাপে ৩৬টি বেসিক ট্রেনার এয়ারক্রাফট ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে তুলে দেবে হ্যাল।</strong></p>

প্রতিরক্ষমন্ত্রক জানাচ্ছে, এই বরাদ্দের মধ্যে থেকে হিন্দুস্তান এরোনটিক্স লিমিটেড (হ্যাল) এর তৈরি ১০৬টি বেসিক ট্রেনার এয়ারক্রাফটসও আনা হবে। এই এয়ারক্রাফটগুলি ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে তুলে দেওয়া হবে। এর আগে এরকম বিমান হিন্দুস্তান এরোনটিক্স লিমিটেড বানিয়েছে যেগুলি এখন সার্টিফিকেশন পদ্ধতির অধীনে রয়েছে। এখন আরও ১০৬টি এই প্রকারের বিমানের অর্ডার দেওয়া হয়েছে এই হিন্দুস্তান এরোনটিক্স লিমিটেড থেকে। প্রথম ধাপে ৭০ টি এবং তার পরের ধাপে ৩৬টি বেসিক ট্রেনার এয়ারক্রাফট ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে তুলে দেবে হ্যাল।

<p><strong>এছাড়াও ভারতীয় সংস্থা ভেল-কে সুপার র‍্যাপিড গান মাউন্ট বানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ডিএসি থেকে। এইগুলি যাবে ভারতীয় নেভির কাছে।&nbsp;</strong></p>

এছাড়াও ভারতীয় সংস্থা ভেল-কে সুপার র‍্যাপিড গান মাউন্ট বানানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ডিএসি থেকে। এইগুলি যাবে ভারতীয় নেভির কাছে। 

<p><strong>এছাড়াও ভারতীয় স্থল সেনার জন্য ১২৫ মিমি এপিএফএসডিএস বুলেট &nbsp;বরাদ্দ করা হয়েছে। এছাড়াও ডিএসি একে ২০৩ এবং যন্ত্রচালিত এরিয়াল ভেহিক্যাল-কেও &nbsp;ভারতীয় সেনায় অন্তর্ভুক্ত করার অনুমতি দিয়েছে।</strong><br />
&nbsp;</p>

এছাড়াও ভারতীয় স্থল সেনার জন্য ১২৫ মিমি এপিএফএসডিএস বুলেট  বরাদ্দ করা হয়েছে। এছাড়াও ডিএসি একে ২০৩ এবং যন্ত্রচালিত এরিয়াল ভেহিক্যাল-কেও  ভারতীয় সেনায় অন্তর্ভুক্ত করার অনুমতি দিয়েছে।
 

<p><strong>সম্প্রতি প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ঘোষণা করেছিলেন যে ১০১ ধরনের মিলিটারি অস্ত্র ভারতে আনা ব্যান করা হচ্ছে, &nbsp;কারণ এবার থেকে ভারত মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্পে বেশি জোর দেবে। এই তালিকায় আরও দীর্ঘায়িত হবে বলেই তিনি জানিয়েছিলেন।&nbsp;</strong></p>

সম্প্রতি প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ঘোষণা করেছিলেন যে ১০১ ধরনের মিলিটারি অস্ত্র ভারতে আনা ব্যান করা হচ্ছে,  কারণ এবার থেকে ভারত মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্পে বেশি জোর দেবে। এই তালিকায় আরও দীর্ঘায়িত হবে বলেই তিনি জানিয়েছিলেন। 

<p><br />
<strong>১০১টি প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম আমদানির ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারির &nbsp;কিছুক্ষণ পরেই মোদী সরকারের নতুন অস্ত্রের ঘোষণা যা তৈরি করবে ভারতীয় সংস্থাই, তা ভারতীয় সেনার মনোবল অবশ্যই বাড়িয়ে তুলবে।</strong></p>


১০১টি প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম আমদানির ওপরে নিষেধাজ্ঞা জারির  কিছুক্ষণ পরেই মোদী সরকারের নতুন অস্ত্রের ঘোষণা যা তৈরি করবে ভারতীয় সংস্থাই, তা ভারতীয় সেনার মনোবল অবশ্যই বাড়িয়ে তুলবে।

loader