ব্যর্থতার নিরিখে তারাই সেরা, চিনে নিন এবারের আইপিএলের সেরা ৫ ফল্প স্টারদের

First Published 12, Nov 2020, 10:08 PM

শেষ হয়েছে আইপিএল ২০২০। প্রায় দুমাসের প্রতিযোগিতায় জন্ম নিয়েছে একাধিক নতুন তারকা। আবার অনেক ক্রিকেটাররা করতে পারেননি আশানরূপ পারফরমেন্স। যাদের উপর তাদের ফ্র্যাঞ্চাইজি ও ফ্যানেরা অনেক আশা করেছিল। সেই তালিকায় রয়েছে বেশ কয়েক জন সুপার স্টার ক্রিকেটারদের নামও। তো চলুন দেখা যাক এবারের আইপিএলের ৫ জন ফ্লপ স্টারকে। 
 

<p><strong>মহেন্দ্র সিং ধোনি-</strong><br />
অবসরের পর চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক এমএস ধোনি ক্রিকেটে ফেরেন। প্রতিবারের মতো এবারও ধোনির কাছ থেকে বিপুল প্রত্যাশা ছিল অনুরাগীদের। যদিও ধোনি মোটেও ব্যাট হাতে নজর কাড়তে পারেননি। এটাই তাঁর কেরিয়ারের সবথেকে খারাপ আইপিএল মরশুম হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকে। ১৪ ম্যাচে মাত্র ২০০ রান করেন তিনি। একটিও হাফ-সেঞ্চুরি করতে পারেননি এমএসডি। তার দল সিএসকেও প্রতিযোগিতা শেষ করেছে ৭ নম্বর স্থানে থেকে।</p>

মহেন্দ্র সিং ধোনি-
অবসরের পর চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক এমএস ধোনি ক্রিকেটে ফেরেন। প্রতিবারের মতো এবারও ধোনির কাছ থেকে বিপুল প্রত্যাশা ছিল অনুরাগীদের। যদিও ধোনি মোটেও ব্যাট হাতে নজর কাড়তে পারেননি। এটাই তাঁর কেরিয়ারের সবথেকে খারাপ আইপিএল মরশুম হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকে। ১৪ ম্যাচে মাত্র ২০০ রান করেন তিনি। একটিও হাফ-সেঞ্চুরি করতে পারেননি এমএসডি। তার দল সিএসকেও প্রতিযোগিতা শেষ করেছে ৭ নম্বর স্থানে থেকে।

<p><strong>দীনেশ কার্তিক-</strong><br />
কেকেআরের ক্যাপ্টেন হিসেবে আইপিএল অভিযান শুরু করেছিলেন দীনেশ কার্তিক। খারাপ পারফরমেন্সের কারণে মাঝপথে নেতৃত্ব ছাড়েন কার্তিক। ব্যাটিংয়ে মনোনিবেশ করার জন্যই অধিনায়কত্ব ছাড়েন তিনি। ১৪ ম্যাচে ১টি অর্ধশতরান-সহ মাত্র ১৬৯ রান সংগ্রহ করেন ডিকে। এমনকি পরেরবার কেকেআর দলে কার্তিক থাকবে কিনা তা নিয়েও জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে।</p>

দীনেশ কার্তিক-
কেকেআরের ক্যাপ্টেন হিসেবে আইপিএল অভিযান শুরু করেছিলেন দীনেশ কার্তিক। খারাপ পারফরমেন্সের কারণে মাঝপথে নেতৃত্ব ছাড়েন কার্তিক। ব্যাটিংয়ে মনোনিবেশ করার জন্যই অধিনায়কত্ব ছাড়েন তিনি। ১৪ ম্যাচে ১টি অর্ধশতরান-সহ মাত্র ১৬৯ রান সংগ্রহ করেন ডিকে। এমনকি পরেরবার কেকেআর দলে কার্তিক থাকবে কিনা তা নিয়েও জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে।

<p><strong>আন্দ্রে রাসেল-</strong><br />
কলকাতা নাইট রাইডার্সের সব থেকে বড় ম্যাচ উইনার ভাবা হয়েছিল আন্দ্রে রাসেলকে। ২০১৯ সালেও একার দায়িত্বে কেকেআরকে জিতিয়েছেন একাধিক ম্যাচ।কিন্তু এবার &nbsp;প্রত্যাশা অনুযায়ী নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি ক্যারিবিয়ান অল-রাউন্ডার। চোট পেয়ে বেশ কয়েকটা ম্যাচে মাঠের বাইরেও থাকতে হয় তাঁকে। ১০ ম্যাচে রাসেল মাত্র ১১৭ রান সংগ্রহ করেন। কোনও হাফ-সেঞ্চুরি আসেনি তাঁর ব্যাট থেকে। ৬টি উইকেট নিয়েছেন তিনি। কেকেআরের প্লে অফে জায়গা না করতে পারারও অন্যতম কারণ রাসেলের অফ ফর্ম।<br />
&nbsp;</p>

আন্দ্রে রাসেল-
কলকাতা নাইট রাইডার্সের সব থেকে বড় ম্যাচ উইনার ভাবা হয়েছিল আন্দ্রে রাসেলকে। ২০১৯ সালেও একার দায়িত্বে কেকেআরকে জিতিয়েছেন একাধিক ম্যাচ।কিন্তু এবার  প্রত্যাশা অনুযায়ী নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি ক্যারিবিয়ান অল-রাউন্ডার। চোট পেয়ে বেশ কয়েকটা ম্যাচে মাঠের বাইরেও থাকতে হয় তাঁকে। ১০ ম্যাচে রাসেল মাত্র ১১৭ রান সংগ্রহ করেন। কোনও হাফ-সেঞ্চুরি আসেনি তাঁর ব্যাট থেকে। ৬টি উইকেট নিয়েছেন তিনি। কেকেআরের প্লে অফে জায়গা না করতে পারারও অন্যতম কারণ রাসেলের অফ ফর্ম।
 

<p><strong>ঋষভ পন্থ-</strong><br />
দিল্লি ক্যাপিটালসের উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যানকে দলের অন্যতম স্তম্ভ হিসেবেই বিবেচনা করা হচ্ছিল আইপিএল শুরুর আগে। তবে ফিটনেস সমস্যায় জর্জরিত পন্ত শেষ পর্যন্ত নিজেকে যথাযথ মেলে ধরতে পারেননি। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে ফাইনালে হাফ-সেঞ্চুরি করলেও সার্বিকভাবে টুর্নামেন্টে তাঁকে ব্যর্থ বলাই শ্রেয়। ১৪ ম্যাচে ৩৪৩ রান করলেও প্রয়োজনের খাতিরে খুব একটা মূল্যবান ছিল না তাঁর ইনিংগুলি। তিনি একটি মাত্র হাফ-সেঞ্চুরি করেন টুর্নামেন্টে।</p>

ঋষভ পন্থ-
দিল্লি ক্যাপিটালসের উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যানকে দলের অন্যতম স্তম্ভ হিসেবেই বিবেচনা করা হচ্ছিল আইপিএল শুরুর আগে। তবে ফিটনেস সমস্যায় জর্জরিত পন্ত শেষ পর্যন্ত নিজেকে যথাযথ মেলে ধরতে পারেননি। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে ফাইনালে হাফ-সেঞ্চুরি করলেও সার্বিকভাবে টুর্নামেন্টে তাঁকে ব্যর্থ বলাই শ্রেয়। ১৪ ম্যাচে ৩৪৩ রান করলেও প্রয়োজনের খাতিরে খুব একটা মূল্যবান ছিল না তাঁর ইনিংগুলি। তিনি একটি মাত্র হাফ-সেঞ্চুরি করেন টুর্নামেন্টে।

<p style="text-align: justify;"><strong>গ্লেন ম্যাক্সওয়েল-</strong><br />
এবারের আইপিএলের সব থেকে ফ্লপ স্টার বলা চলে অজি তারকা গ্লেন ম্য়াক্সওয়েলকে। ইংল্যান্ডে সেঞ্চুরি করে আসার পর বাবা হয়েছিল আইপিএলেও কথা বলবে তার ব্যাট। কিন্তু কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের আস্থার মর্যাদা রাখতে পারেননি ম্যাক্সওয়েল। ১৩ ম্যাচে মাত্র ৯টি বাউন্ডারির সাহায্যে সাকুল্যে ১০৮ রান সংগ্রহ করেন ম্যাক্সওেল। তিনি একটিও ছক্কা মারতে পারেননি। উইকেট নিয়েছেন মাত্র ৩টি। আগামি মরসুমে তাকে দলে রাখা হবে কিনা তা নিয়ে রয়েছে সংশয়।<br />
&nbsp;</p>

গ্লেন ম্যাক্সওয়েল-
এবারের আইপিএলের সব থেকে ফ্লপ স্টার বলা চলে অজি তারকা গ্লেন ম্য়াক্সওয়েলকে। ইংল্যান্ডে সেঞ্চুরি করে আসার পর বাবা হয়েছিল আইপিএলেও কথা বলবে তার ব্যাট। কিন্তু কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের আস্থার মর্যাদা রাখতে পারেননি ম্যাক্সওয়েল। ১৩ ম্যাচে মাত্র ৯টি বাউন্ডারির সাহায্যে সাকুল্যে ১০৮ রান সংগ্রহ করেন ম্যাক্সওেল। তিনি একটিও ছক্কা মারতে পারেননি। উইকেট নিয়েছেন মাত্র ৩টি। আগামি মরসুমে তাকে দলে রাখা হবে কিনা তা নিয়ে রয়েছে সংশয়।