111

ঘরোয়া ক্রিকেটে কর্ণাটক ও আইপিএলে কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের ওপেনার মায়াঙ্ক আগরওয়াল নিজের ব্য়াটিংকে আইপিএল ২০২০-তে এক অন্য পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছেন তিনি। রাজস্থানের বিরুদ্ধে তার দল হারলেও, অনবদ্য শতরান করেন তিনি। ৫০ বলে ১০৬ রনে করেন তিনি। এর আগে দিল্লির বিরুদ্ধে ৮৯ রানের স্মরণীয় ইনিংস খেলছিলেন তিনি। 

Subscribe to get breaking news alerts

211

শুধু ক্রিকেটার মায়াঙ্ক আগরওয়াল নয়, প্রেমিক মায়াঙ্ক আগরওয়ালও প্রেমের ২২ গজে যথেষ্ট পারদর্শী। বর্তমানে তার স্ত্রী আশিতা সুদের সঙ্গে মায়াঙ্কের প্রেমের গল্প হার মানাবে বড় পর্দাকেও।

311

রবিবার কিংস ইলেভেন পঞ্জাব হারলেও দুরন্ত শতরান করেন দলের অন্যতম তারকা ব্যাটসম্য়ান মায়াঙ্ক আগরওয়াল। ৪৫ বলের নিজের সেঞ্চুরি পূরণ করেন তিনি। যা আইপিএলের ইতিহাসে ভারতীয়দের মধ্যে দ্বিতীয় দ্রুততম সেঞ্চুরি। ম্য়াচে ১০টি চার ও ৭টি ছয়ের সৌজন্যে ৫০ বলে ১০৬ রানেপ ইনিংস খেলেন তিনি। এবারের আইপিএলে বিধ্বংসী ফর্মে রয়েছেন তিনি। স্টার তিনি ছিলেন, কিন্তু আইপিএল ২০২০ তাকে সুপার স্টার বানিয়ে দিয়েছে। শুধু ২২ গজে নয়, ব্যক্তিগত জীবনেও বলিউডের স্টারদের থেকে কিছু কম যান না তিনি। মায়াঙ্ক নিজের প্রেমিকাকে কীভাবে প্রপোজ করেছিলেন জানলে ইবাক হবেন আপনিও। চলুন আজ জানা যাক তারকা ব্যাটসম্যান মায়াঙ্ক আগরওয়ালের প্রেম কাহিনি।
 

411

মায়াঙ্কের স্ত্রী আসিদা সুদ ব্যাঙ্গালোরে থাকতেন। তিনি 'ল' নিয়ে পড়াশোনা কেরছেন। আশিতার দুটি হবে রয়েছে। তিনি ঘুরতে ও রান্না করতে খুব ভালবাসেন। 
 

511

মায়াঙ্কের প্রেম কাহিনি কেনও বলিউডের থেকে কম নয়,তার বলার পেছনে প্রধান কারণ হচ্ছে মায়াঙ্ক যেইভাবে আশিতা সুদকে প্রোপজ করেন তা হার মানাবে বলিউডের সিনেমাকেও।
 

611

মায়াঙ্ক ২০১৮ সালে আশিতাকে লন্ডনের টেমস নদীর ধারে যে বিশালাকার নাগরদোলা 'মিলেনিয়াম হুইল' বা 'লন্ডন আই' রয়েছে তার উপরে হাঁটু গেড়ে বসে  প্রপোজ করেছিলেন আশিতাকে। 

711

লন্ডনের টেমস নদীর ধারে ১৩৫ ফুট উঁচুতে যেখান থেকে পুরো শহর দেখা যায়, এমন পরিবেশে প্রপোজাল পেয়ে হ্যা না বলে থাকতে পারেননি আশিকা। মায়াঙ্কের রোমান্টিকতা মুগ্ধ করেছিল তাকে।

811

২০১৮ সালের ৪ জুন মায়াঙ্ক ও আশিতা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। নিজের শহরে বিয়ে করেন তিনি। খুব একটা জাঁকজমক না করলেও, বিয়েতে উপস্থিত ছিলেন একাধিক ভারতীয় ক্রিকেটার। 
 

911

ক্রিকেটের বাইরে মায়াঙ্ক আগরওয়াল নিজের ব্যক্তিগত জীবনে খুবই রোমান্টিক। স্ত্রী-র সঙ্গে সময় কাটানোর সুযোগ পেলেও সেটাকে কোয়ালিটি টাইম বানিয়ে তোলেন তিনি।
 

1011

সোশ্যাল মিডিয়ায় খুবই সক্রিয় মায়াঙ্ক আগরওয়াল। সময় পেলেই নিজের ও স্ত্রী-র সঙ্গে ছবি আপলোড করেন তিনি। তার ফলোয়ারের সংখ্যাও প্রচুর। দ্বিতীয় বিবাহ বার্ষিকীতেও একটি রোমান্টিক ছবি পোস্ট করেন তিনি।
 

1111

এছাড়াও বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ছবি পোস্ট করেন তিনি। দেখে বোঝা না গেলেও, মায়াঙ্ক আগরওয়াল যে কতটা রোমান্টিক ও স্ত্রীকে কতটা ভালোবাসেন এই ছবিগুলিই তার প্রমাণ।