পরিত্যক্ত টায়ার দিয়ে অভিনব পার্ক, কলকাতার বুকে নতুন ভ্রমণের ঠিকানা

First Published 31, Oct 2020, 3:54 AM

করোনার কোপে পড়ে দীর্ঘ দিন যাবত বন্ধ শহরের বিভিন্ন পার্কের দরজা। এমনই সময় বেশ কিছু পার্ক ঢেলে সাজিয়ে তোলা হচ্ছে। সামনেই শীতের মরসুম, ভিড় বাড়ে পার্কগুলিতে। সেই কথা মাথায় রেখেই এবার কলকাতায় অভিনব পার্ক তৈরি করা হল ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্রান্সপোর্ট করপরেশনের উদ্যোগে। 

<p>ফেলে দেওয়া জিনিস দিয়ে বড় চমক দেখালো ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্রান্সপোর্ট করপরেশন। তৈরি করা হল শহর কলকাতার নতুন পার্ক।&nbsp;</p>

ফেলে দেওয়া জিনিস দিয়ে বড় চমক দেখালো ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্রান্সপোর্ট করপরেশন। তৈরি করা হল শহর কলকাতার নতুন পার্ক। 

<p>ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশন এর এসপ্ল্যানেড অফিসের ঠিক উল্টোদিকে নষ্ট হয়ে যাওয়ার টায়ার দিয়ে তৈরি করা হয়েছে একটি আস্ত পার্ক।&nbsp;</p>

ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশন এর এসপ্ল্যানেড অফিসের ঠিক উল্টোদিকে নষ্ট হয়ে যাওয়ার টায়ার দিয়ে তৈরি করা হয়েছে একটি আস্ত পার্ক। 

<p>এখানেই মিলবে কফির দোকান।&nbsp;রাখা হবে সঙ্গীতের ব্যবস্থাও। ট্রামে কফি তো অনেক হল, এবার নতুন ঠিকানা।&nbsp;</p>

এখানেই মিলবে কফির দোকান। রাখা হবে সঙ্গীতের ব্যবস্থাও। ট্রামে কফি তো অনেক হল, এবার নতুন ঠিকানা। 

<p>সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর রজনভির কাপুর জানিয়েছেন, খুব শীঘ্রই এই পার্ক খুলে দেওয়া হবে। বর্তমানে করোনার কোপে বন্ধ পার্ক।&nbsp;</p>

সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর রজনভির কাপুর জানিয়েছেন, খুব শীঘ্রই এই পার্ক খুলে দেওয়া হবে। বর্তমানে করোনার কোপে বন্ধ পার্ক। 

<p>সময় কাটানো সঙ্গে খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা থাকবে এই পার্কে। তিনি আরো জানিয়েছে, এই পার্কের মূল চমক ফেলে দিয়ে সামগ্রী।&nbsp;</p>

সময় কাটানো সঙ্গে খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা থাকবে এই পার্কে। তিনি আরো জানিয়েছে, এই পার্কের মূল চমক ফেলে দিয়ে সামগ্রী। 

<p>কলকাতার একাধিক ডিপোতে জমে থাকা নষ্ট হয়ে যাওয়া টায়ার দিয়ে একাধিক সুন্দর রূপ দেওয়া হয়েছে, যা এই পার্কের শোভা বাড়াবে।&nbsp;</p>

কলকাতার একাধিক ডিপোতে জমে থাকা নষ্ট হয়ে যাওয়া টায়ার দিয়ে একাধিক সুন্দর রূপ দেওয়া হয়েছে, যা এই পার্কের শোভা বাড়াবে। 

<p>টায়ারের উপরে বিভিন্ন রং এর ব্যবহার করা হয়েছে, ফলে এই পার্ক যে যথেষ্টই রঙিন হবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।&nbsp;</p>

টায়ারের উপরে বিভিন্ন রং এর ব্যবহার করা হয়েছে, ফলে এই পার্ক যে যথেষ্টই রঙিন হবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। 

<p>একই সঙ্গে টায়ার কেটে কোথায় কাপ প্লেট, কোথায় বিভিন্ন পশু পাখির চেহারা দেওয়া হয়েছে, যা শিশুদের মন কাড়তে বাধ্য।&nbsp;</p>

একই সঙ্গে টায়ার কেটে কোথায় কাপ প্লেট, কোথায় বিভিন্ন পশু পাখির চেহারা দেওয়া হয়েছে, যা শিশুদের মন কাড়তে বাধ্য।