অগ্নিমূল্য এবার ডিম, বাজারে আলুর দাম বেঁধে দিল নবান্ন

First Published 4, Sep 2020, 3:30 PM


 আলুর দামের সঙ্গে আকাশ ছুঁল এবার ডিমের বাজারও। গত কয়েকদিনে চড়চড়িয়ে বেড়েছে ডিমের দাম। শুক্রবার বাজার কিছুটা নামলেও এখনই সেভাবে কমছে না ডিমের দাম।শুধু কলকাতা বা পশ্চিমবঙ্গ নয় ডিমের দাম বাড়ছে দেশজুড়েই। অপরদিকে, আলুর দামে আগুন লাগতেই কলকাতার একাধিক বাজারে ইবি আধিকারিকরা পরিদর্শনে যান। এরপরেই আলুর নির্দিষ্ট দাম বেঁধে দেয় নবান্ন। সরকারি নির্দেশিকা স্পষ্ট, পাইকারি ব্যবসায়ীরা ২২ টাকায় প্রতি কেজি হিসাবে আলু কিনে ২৫ টাকায় খুচরো ব্যবসায়ীদের বিক্রি করবেন। আর, খুচরো বাজারে সাধারণ মানুষকে ২৭ টাকা দরে বিক্রি করতেই হবে।

<p>আলুর দামের সঙ্গে আকাশ ছুঁল এবার ডিমের বাজারও। গত কয়েকদিনে চড়চড়িয়ে বেড়েছে ডিমের দাম। শুক্রবার বাজার কিছুটা নামলেও এখনই সেভাবে কমছে না ডিমের দাম।শুধু কলকাতা বা পশ্চিমবঙ্গ নয় ডিমের দাম বাড়ছে দেশজুড়েই।&nbsp;</p>

আলুর দামের সঙ্গে আকাশ ছুঁল এবার ডিমের বাজারও। গত কয়েকদিনে চড়চড়িয়ে বেড়েছে ডিমের দাম। শুক্রবার বাজার কিছুটা নামলেও এখনই সেভাবে কমছে না ডিমের দাম।শুধু কলকাতা বা পশ্চিমবঙ্গ নয় ডিমের দাম বাড়ছে দেশজুড়েই। 

<p>&nbsp;এইমুহূর্তে চড়চড়িয়ে বেড়েছে ডিমের দাম। শুক্রবার বাজার কিছুটা নামলেও এখনই সেভাবে কমছে না ডিমের দাম। আনলক ৪ পর্বে &nbsp;দোকানপাট খুললেও, চাহিদা বাড়তেই দামও বাড়ছে ডিমের। হোলসেল মার্কেট প্রতি পিস ৫ টাকা আর খুচরো বাজারে সেটা ৬ টাকায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে। &nbsp;</p>

 এইমুহূর্তে চড়চড়িয়ে বেড়েছে ডিমের দাম। শুক্রবার বাজার কিছুটা নামলেও এখনই সেভাবে কমছে না ডিমের দাম। আনলক ৪ পর্বে  দোকানপাট খুললেও, চাহিদা বাড়তেই দামও বাড়ছে ডিমের। হোলসেল মার্কেট প্রতি পিস ৫ টাকা আর খুচরো বাজারে সেটা ৬ টাকায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে।  

<p>শিয়ালদহের বৈঠকখানা বাজারে ডিমের আড়ত অগাস্ট মাসে ৯৫০ টাকার কমে ডিম বিক্রি হয়েছে। ২১০টি করে ডিমের পেটি থাকে রিটেলারদের জন্যে। ১ একটি ডিমের পেটিতে লাফিয়ে দাম বেড়েছে অগাস্টের শেষ ও সেপ্টেম্বরের শুরুতে। অগাস্টের শেষে পেটি প্রতি দাম ৯৮০ থেকে ১০০০ ছুঁয়েছে। আর এদিকে সেপ্টেম্বরের শুরুতে সেই দাম পৌঁছেছে ১০২০ থেকে ১০৩০ টাকায়।</p>

শিয়ালদহের বৈঠকখানা বাজারে ডিমের আড়ত অগাস্ট মাসে ৯৫০ টাকার কমে ডিম বিক্রি হয়েছে। ২১০টি করে ডিমের পেটি থাকে রিটেলারদের জন্যে। ১ একটি ডিমের পেটিতে লাফিয়ে দাম বেড়েছে অগাস্টের শেষ ও সেপ্টেম্বরের শুরুতে। অগাস্টের শেষে পেটি প্রতি দাম ৯৮০ থেকে ১০০০ ছুঁয়েছে। আর এদিকে সেপ্টেম্বরের শুরুতে সেই দাম পৌঁছেছে ১০২০ থেকে ১০৩০ টাকায়।

<p>অপরদিকে, আলুর দামে আগুন লাগতেই কলকাতার একাধিক বাজারে ইবি আধিকারিকরা পরিদর্শনে যান। এরপরেই আলুর নির্দিষ্ট দাম বেঁধে দেয় নবান্ন। সরকারি নির্দেশিকা স্পষ্ট, পাইকারি ব্যবসায়ীরা ২২ টাকায় প্রতি কেজি হিসাবে আলু কিনে ২৫ টাকায় খুচরো ব্যবসায়ীদের বিক্রি করবেন। আর, খুচরো বাজারে সাধারণ মানুষকে ২৭ টাকা দরে বিক্রি করতেই হবে।</p>

অপরদিকে, আলুর দামে আগুন লাগতেই কলকাতার একাধিক বাজারে ইবি আধিকারিকরা পরিদর্শনে যান। এরপরেই আলুর নির্দিষ্ট দাম বেঁধে দেয় নবান্ন। সরকারি নির্দেশিকা স্পষ্ট, পাইকারি ব্যবসায়ীরা ২২ টাকায় প্রতি কেজি হিসাবে আলু কিনে ২৫ টাকায় খুচরো ব্যবসায়ীদের বিক্রি করবেন। আর, খুচরো বাজারে সাধারণ মানুষকে ২৭ টাকা দরে বিক্রি করতেই হবে।

<p>উল্লেখ্য, অবৈধভাবে আলু পাচার হচ্ছে ভিন রাজ্যে। আলুর ফলনের ওঠাপড়া বুঝে আগেভাগে আলু মজুত করে রেখেছিলেন কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। ভিন রাজ্যে বেশি চাহিদা থাকায় ও সেখানে ফলন আরও কম হওয়ায় বেশি মুনাফার লোভে রাজ্যের আলু চলে যাচ্ছে &nbsp;ওড়িশা, ঝাড়খণ্ডে।&nbsp;</p>

উল্লেখ্য, অবৈধভাবে আলু পাচার হচ্ছে ভিন রাজ্যে। আলুর ফলনের ওঠাপড়া বুঝে আগেভাগে আলু মজুত করে রেখেছিলেন কিছু অসাধু ব্যবসায়ী। ভিন রাজ্যে বেশি চাহিদা থাকায় ও সেখানে ফলন আরও কম হওয়ায় বেশি মুনাফার লোভে রাজ্যের আলু চলে যাচ্ছে  ওড়িশা, ঝাড়খণ্ডে। 

<p>তাই দাম নিয়ন্ত্রণে আনতে বাজারে বাজারে হানা দিয়ে এমনই তথ্য জেনেছেন নবান্ন ও এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চের আধিকারিকরা। তাই এবার ভিন রাজ্যে আলু পাচার রুখতে কড়া প্রশাসন।</p>

তাই দাম নিয়ন্ত্রণে আনতে বাজারে বাজারে হানা দিয়ে এমনই তথ্য জেনেছেন নবান্ন ও এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চের আধিকারিকরা। তাই এবার ভিন রাজ্যে আলু পাচার রুখতে কড়া প্রশাসন।

loader