মদ খেতে বাধা দেওয়ায় অন্তসত্বা স্ত্রীকে মেরে ঝুলিয়ে দিল স্বামী, তীব্র চাঞ্চল্য হরিদেবপুরে

First Published 19, Nov 2020, 5:31 PM

গৃহ বধূর মৃত্যুতে উত্তেজনা হরিদেবপুর সরণিতে। মদ খাওয়ার প্রতিবাদ করায় গৃহবধূকে মেরে ঝুলিয়ে দিল স্বামী, এমনি অভিযোগ বধূর পরিবারের লোকজনের। বৃহস্পতিবার সকাল বেলায় বধূর মৃত্যু দেহ নিয়ে শশুর বাড়ির লোকজন নার্সিংহোমে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করে। সূত্রের খবর, ৪ মাস আগে মেয়েটি ভালোবেসে বিয়ে করে ছিল সেক হাবিব নামে এক যুবককে। বিয়ের পর থেকে শশুর বাড়ির লোক জন মেয়েটির উপর মানসিক ও শারীরিক অত্যাচার করে বলে অভিযোগ।  ইতিমধ্যে শশুর বাড়ির স্বামী সহ ৪ জনকে আটক করেছে হরিদেবপুর থানার পুলিশ।


 

<p>গৃহ বধূর মৃত্যুতে উত্তেজনা হরিদেবপুর সরণিতে। মদ খাওয়ার প্রতিবাদ করায় গৃহবধূকে মেরে ঝুলিয়ে দিল স্বামী, এমনি অভিযোগ বধূর পরিবারের লোকজনের। বৃহস্পতিবার সকাল বেলায় বধূর মৃত্যু দেহ নিয়ে শশুর বাড়ির লোকজন নার্সিংহোমে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করে।<br />
&nbsp;</p>

গৃহ বধূর মৃত্যুতে উত্তেজনা হরিদেবপুর সরণিতে। মদ খাওয়ার প্রতিবাদ করায় গৃহবধূকে মেরে ঝুলিয়ে দিল স্বামী, এমনি অভিযোগ বধূর পরিবারের লোকজনের। বৃহস্পতিবার সকাল বেলায় বধূর মৃত্যু দেহ নিয়ে শশুর বাড়ির লোকজন নার্সিংহোমে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করে।
 

<p>&nbsp; আবার শশুর বাড়ির লোকজন দেহ বাড়ি ফেরত নিয়ে আসে। তখন এলাকার লোকেরা দেখতে পেয়ে মেয়েটির পরিবারকে পুরো বিষয় জানায়। মেয়েটির পরিবারের লোকেরা ও পাড়ার লোকেরা এসে দেহ আটকে রাখে। &nbsp;</p>

  আবার শশুর বাড়ির লোকজন দেহ বাড়ি ফেরত নিয়ে আসে। তখন এলাকার লোকেরা দেখতে পেয়ে মেয়েটির পরিবারকে পুরো বিষয় জানায়। মেয়েটির পরিবারের লোকেরা ও পাড়ার লোকেরা এসে দেহ আটকে রাখে।  

<p><br />
হরিদেবপুর এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।শশুর বাড়ির লোকেদের গ্রেফতারের দাবি করে। পুলিশ আসলে পুলিশকে ঘিরে এলাকার লোকেরা বিক্ষোভ দেখায়। মেয়েটির নাম পাপিয়া মন্ডল।&nbsp;</p>


হরিদেবপুর এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।শশুর বাড়ির লোকেদের গ্রেফতারের দাবি করে। পুলিশ আসলে পুলিশকে ঘিরে এলাকার লোকেরা বিক্ষোভ দেখায়। মেয়েটির নাম পাপিয়া মন্ডল। 

<p>&nbsp;সূত্রের খবর, ৪ মাস আগে মেয়েটি ভালোবেসে বিয়ে করে ছিল সেক হাবিব নামে এক যুবককে। বিয়ের পর থেকে শশুর বাড়ির লোক জন মেয়েটির উপর মানসিক ও শারীরিক অত্যাচার করে বলে অভিযোগ।<br />
&nbsp;</p>

 সূত্রের খবর, ৪ মাস আগে মেয়েটি ভালোবেসে বিয়ে করে ছিল সেক হাবিব নামে এক যুবককে। বিয়ের পর থেকে শশুর বাড়ির লোক জন মেয়েটির উপর মানসিক ও শারীরিক অত্যাচার করে বলে অভিযোগ।
 

<p><br />
এদিকে জানা গিয়েছে, পাপিয়া অন্তসত্বা ছিল। এমন নৃশংস ঘটনার পর ইতিমধ্যে শশুর বাড়ির স্বামী সহ ৪ জনকে আটক করেছে হরিদেবপুর থানার পুলিশ। এলাকায় এখনও উত্তেজনা রয়েছে।</p>


এদিকে জানা গিয়েছে, পাপিয়া অন্তসত্বা ছিল। এমন নৃশংস ঘটনার পর ইতিমধ্যে শশুর বাড়ির স্বামী সহ ৪ জনকে আটক করেছে হরিদেবপুর থানার পুলিশ। এলাকায় এখনও উত্তেজনা রয়েছে।