শীতের এই সব্জিতেই নিমেষে দূর হবে বলিরেখা, আজই ট্রাই করুন

First Published 30, Jan 2020, 5:14 PM IST

ত্বকের সমস্যা নিয়ে প্রত্যেকেই নাজেহাল। শীতকালে এই সমস্যা যেন আরও বেড়ে যায়।  বছর ৩০ পেরোলেই ত্বকের শিথিলতা কমতে শুরু করে। অকালেই বলিরেখা যেন ত্বককে আর বুড়িটে করে দেয়।  বয়স বাড়ার আগেই বলিরেখার চেহারাকে বয়সের তুলনায় বেশি দেখায়। বলিরেখা ঢাকতে পার্লারে দিয়ে নানারকমের ট্রিটমেন্ট করলেও তা যেন সম্পূর্ণ দূর করা যায় না। কিন্তু খাওয়া-দাওয়ার মধ্যে সামান্য পরিবর্তন আনলেই এই বলিরেখার থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

শীতকাল আসা মানেই বাজারে বিট-গাজরে ঠাসা। স্যালাড থেকে শুরু করে নানা রকমের তরি-তরকারিতে বিট-গাজরের ব্যবহার করা হয়।

শীতকাল আসা মানেই বাজারে বিট-গাজরে ঠাসা। স্যালাড থেকে শুরু করে নানা রকমের তরি-তরকারিতে বিট-গাজরের ব্যবহার করা হয়।

বিটের মধ্যে ম্যাঙ্গানিজ, পটাশিয়াম, ভিটামিন সি ও আয়রন থাকে।

বিটের মধ্যে ম্যাঙ্গানিজ, পটাশিয়াম, ভিটামিন সি ও আয়রন থাকে।

কেবল খাবারের স্বাদ বাড়াতেই নয়, বিটের মধ্যে রয়েছে এমন কিছু গুণ রয়েছে  যা ত্বকের জন্য কার্যকরী। বলিরেখা কমাতেও অত্যন্ত কার্যকর এই সব্জি।

কেবল খাবারের স্বাদ বাড়াতেই নয়, বিটের মধ্যে রয়েছে এমন কিছু গুণ রয়েছে যা ত্বকের জন্য কার্যকরী। বলিরেখা কমাতেও অত্যন্ত কার্যকর এই সব্জি।

রক্তে শর্করার পরিমান বেশি থাকলে বিট না খাওয়াই ভাল।

রক্তে শর্করার পরিমান বেশি থাকলে বিট না খাওয়াই ভাল।

ত্বক সুস্থ ও সতেজ রাখার জন্য প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় বিট রাখুন।

ত্বক সুস্থ ও সতেজ রাখার জন্য প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় বিট রাখুন।

beetroot jশরীরে আয়রনের ঘাটতিতে ত্বকের ঔজ্জ্বল্য কমতে শুরু করে। যা থেকে দেখা দেবে বলিরেখা।uice

beetroot jশরীরে আয়রনের ঘাটতিতে ত্বকের ঔজ্জ্বল্য কমতে শুরু করে। যা থেকে দেখা দেবে বলিরেখা।uice

বিটের মধ্যে ভিটামিন এ ও ক্যারোটিনয়েড থাকে।

বিটের মধ্যে ভিটামিন এ ও ক্যারোটিনয়েড থাকে।

বিটের মধ্যে লুয়েটিন নামে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকে।

বিটের মধ্যে লুয়েটিন নামে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকে।

বিটে ভিটামিস সি রয়েছে  যা কোলজেন সিন্থেসিসের হার বাড়ায়। ত্বক টানটান রাখতে বিট সাহায্য করে।

বিটে ভিটামিস সি রয়েছে যা কোলজেন সিন্থেসিসের হার বাড়ায়। ত্বক টানটান রাখতে বিট সাহায্য করে।

শরীরের প্রতিটি কোষে রক্ত পরিবহনের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় খনিজ আয়রণ।

শরীরের প্রতিটি কোষে রক্ত পরিবহনের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় খনিজ আয়রণ।

বেশি পরিমাণ নুন শরীরে ব্লাড প্রেসারের সমস্যা করে তা নয়, বরং চুল ও ত্বকের ক্ষতি করে। খাবার পাতে বাড়তি নুন একদম খাবেন না। মরশুমী ফল খান। এতে ত্বকের জেল্লা ফিরে আসবে।

বেশি পরিমাণ নুন শরীরে ব্লাড প্রেসারের সমস্যা করে তা নয়, বরং চুল ও ত্বকের ক্ষতি করে। খাবার পাতে বাড়তি নুন একদম খাবেন না। মরশুমী ফল খান। এতে ত্বকের জেল্লা ফিরে আসবে।

loader