সামনেই পুজো, কিছু সহজ উপায়ে সাজিয়ে তুলুন নিজের বাড়িটিকে

First Published 21, Aug 2019, 10:20 AM IST

হাতে মাত্র কটা দিনের অপেক্ষা আর তার পরই বাঙালিদের সবথেকে বড় উৎসব দূর্গা পূজো। মায়ের ঘড়ে ফেরার আনন্দে সেজে ওঠে সব বাড়ির অন্দোর। সেই আনন্দই দ্বিগুণ করে তুলতে ঘড়ের অন্দোরসাজে আনতে পারেন বদল। যা দেখে তাক লেগে যাবে সকলের। লিভিং থেকে ডাইনিং সবকিছু এক নতুন উপায়ে সাজিয়ে তুলতে এক নজরে দেখেনিন কি করবেন-

পুজোর সময় অনেকের বাড়িতেই আত্মীয়েরা এসে থাকে। ঘুরতে যাওয়া ছাড়া দিনের বেশিরভাগ সময়টা লিভিং রুম কাটাতেই পছন্দ করে থাকেন। তাই বাড়ির মধ্যে এই ঘরটিকে বিশেষভাবে সাজিয়ে তুলুন।

পুজোর সময় অনেকের বাড়িতেই আত্মীয়েরা এসে থাকে। ঘুরতে যাওয়া ছাড়া দিনের বেশিরভাগ সময়টা লিভিং রুম কাটাতেই পছন্দ করে থাকেন। তাই বাড়ির মধ্যে এই ঘরটিকে বিশেষভাবে সাজিয়ে তুলুন।

সোফার কভারে বদল আনতে ম্যাট ফিনিসের কভার বেছে নিতে পারেন যা বেশ একটা রয়্যাল লুক দেবে। ব্যবহার করতে পারেন লুডো সোফাও। যা ঘরটির চেহরায় বদল এনে দেবে।

সোফার কভারে বদল আনতে ম্যাট ফিনিসের কভার বেছে নিতে পারেন যা বেশ একটা রয়্যাল লুক দেবে। ব্যবহার করতে পারেন লুডো সোফাও। যা ঘরটির চেহরায় বদল এনে দেবে।

সোফার কভারে বদল আনতে ম্যাট ফিনিসের কভার বেছে নিতে পারেন যা বেশ একটা রয়্যাল লুক দেবে। ব্যবহার করতে পারেন লুডো সোফাও। যা ঘরটির চেহরায় বদল এনে দেবে।

সোফার কভারে বদল আনতে ম্যাট ফিনিসের কভার বেছে নিতে পারেন যা বেশ একটা রয়্যাল লুক দেবে। ব্যবহার করতে পারেন লুডো সোফাও। যা ঘরটির চেহরায় বদল এনে দেবে।

এবার তাহলে আসে যাক ডাইনিং-এর কথায়। খাওয়ার কথা মাথায় এলেই মনে পরে ডাইনিং-এর কথা। পুজো মানেই খাওয়া দাওয়া আর তার জন্য যেতেই হবে ডাইনিং -এ। এই ডাইনিং -কে এমনভাবে সাজিয়ে তুলুন যাতে এক সঙ্গে অনেকে বসে খাওয়া-দাওয়া করতে পারে। আর তার সঙ্গেই যেন জমে ওঠে খেতে সেই আড্ডা।

এবার তাহলে আসে যাক ডাইনিং-এর কথায়। খাওয়ার কথা মাথায় এলেই মনে পরে ডাইনিং-এর কথা। পুজো মানেই খাওয়া দাওয়া আর তার জন্য যেতেই হবে ডাইনিং -এ। এই ডাইনিং -কে এমনভাবে সাজিয়ে তুলুন যাতে এক সঙ্গে অনেকে বসে খাওয়া-দাওয়া করতে পারে। আর তার সঙ্গেই যেন জমে ওঠে খেতে সেই আড্ডা।

খাওয়ার পরেই আসে ঘুমের চিন্তা আর তার জন্য পরিষ্কার পরিছন্ন রাখুন বেডরুমটি। ঘড়ে রাখতে পারেন বুক সেল্ফ, তবে সেখানে রাখতেই হবে একটি ড্রেসিং টেবিল যাতে ঘুম থেকে উঠে সহজেই সেজে-গুজে ঘুড়তে বেড়তে পারেন। জিনিস পত্র রাখার বিশেষ ব্যবস্থা করুন যাতে কোনও কিছু ছড়িয়ে ছিটিয়ে না থাকে। ঘড়ে রাখুন একটি ডাস্টবিনও।

খাওয়ার পরেই আসে ঘুমের চিন্তা আর তার জন্য পরিষ্কার পরিছন্ন রাখুন বেডরুমটি। ঘড়ে রাখতে পারেন বুক সেল্ফ, তবে সেখানে রাখতেই হবে একটি ড্রেসিং টেবিল যাতে ঘুম থেকে উঠে সহজেই সেজে-গুজে ঘুড়তে বেড়তে পারেন। জিনিস পত্র রাখার বিশেষ ব্যবস্থা করুন যাতে কোনও কিছু ছড়িয়ে ছিটিয়ে না থাকে। ঘড়ে রাখুন একটি ডাস্টবিনও।

নিজের পছন্দের রান্নাঘড়টিকে পরিষ্কার রাখুন। গুছিয়ে রাখুন সব জিনিসপত্র। এছাড়াও ফ্রিজে সবসময় অল্প কিছু খাবার রাখুন। যাতে বাড়িতে কেও এলে খাবার আনতে বাইরে যেতে না হয়।

নিজের পছন্দের রান্নাঘড়টিকে পরিষ্কার রাখুন। গুছিয়ে রাখুন সব জিনিসপত্র। এছাড়াও ফ্রিজে সবসময় অল্প কিছু খাবার রাখুন। যাতে বাড়িতে কেও এলে খাবার আনতে বাইরে যেতে না হয়।

বারান্দাতে রাখতে পারেন গাছ। যা দেখতে বেশ সুন্দর লাগে। যেখানে বসেই কেটে যাবে অনেকটা সময়। এছাড়াও এমন কিছু আসবাব রাখুন যা বেশ একটা রয়্যাল লুক দেবে।

বারান্দাতে রাখতে পারেন গাছ। যা দেখতে বেশ সুন্দর লাগে। যেখানে বসেই কেটে যাবে অনেকটা সময়। এছাড়াও এমন কিছু আসবাব রাখুন যা বেশ একটা রয়্যাল লুক দেবে।

loader