করোনা আবহে এবার সাপের আতঙ্ক, সতর্কবার্তা জারি করল স্বাস্থ্য দপ্তর

First Published 18, Jul 2020, 7:22 PM

করোনা কালে নয়া আতঙ্ক। মেদিনীপুর জেলার বিভিন্ন প্রান্তে বিষধর সাপের উপদ্রবে ঘুম উড়েছেন স্থানীয় বাসিন্দাদের। পরিস্থিতি এমনই যে, বন্যা কবলিত ঘাটালে বাড়িতে থাকতেও ভয় পাচ্ছেন অনেকেই। সাধারণ মানুষকে সতর্ক থাকার পরামর্শ স্বাস্থ্য দপ্তর।
 

<p>বর্ষা এলেই আর রক্ষা নেই। প্রতিবছর বন্যায় ভাসে পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটাল ও লাগোয়া এলাকা। বিষধর সাপেদের দেখতে পাওয়া যায় এলাকায়। কিন্তু এবছর পরিস্থিতি সম্পূর্ণ আলাদা।<br />
 </p>

বর্ষা এলেই আর রক্ষা নেই। প্রতিবছর বন্যায় ভাসে পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটাল ও লাগোয়া এলাকা। বিষধর সাপেদের দেখতে পাওয়া যায় এলাকায়। কিন্তু এবছর পরিস্থিতি সম্পূর্ণ আলাদা।
 

<p>স্রেফ ঘাটাল শহরই নয়, দাসপুর-চন্দ্রকোনার মতো বিভিন্ন এলাকায়ও বাড়িতে প্রায় রোজই উদ্ধার হচ্ছে বিষধর সাপ! দাসপুরের ১ নম্বর ব্লকের সামাট গ্রামের একটি বাড়ির ভিতর গর্ত থেকে বেরিয়েছে ২০টি গোখরো<br />
 </p>

স্রেফ ঘাটাল শহরই নয়, দাসপুর-চন্দ্রকোনার মতো বিভিন্ন এলাকায়ও বাড়িতে প্রায় রোজই উদ্ধার হচ্ছে বিষধর সাপ! দাসপুরের ১ নম্বর ব্লকের সামাট গ্রামের একটি বাড়ির ভিতর গর্ত থেকে বেরিয়েছে ২০টি গোখরো
 

<p>রেহাই মিলছে না কোয়ারেন্টাইন সেন্টারেও। দিন কয়েক আগে দাসপুর কোয়ারেন্টাইনে সেন্টারে এক পরিযায়ী শ্রমিককে ছোবল মারে বিষধর সাপ। চিকিৎসায় অবশ্য বেঁচে যান তিনি।<br />
 </p>

রেহাই মিলছে না কোয়ারেন্টাইন সেন্টারেও। দিন কয়েক আগে দাসপুর কোয়ারেন্টাইনে সেন্টারে এক পরিযায়ী শ্রমিককে ছোবল মারে বিষধর সাপ। চিকিৎসায় অবশ্য বেঁচে যান তিনি।
 

<p>বিষধর সাপ ধরা পড়েছে মেদিনীপুর ও খড়গপুর শহরেও। গত কয়েক মাস মেদিনীপুর শহরের বিভিন্ন বাড়িতে কমপক্ষে ৬০টি সাপ উদ্ধার হয়েছে বলে খবর।<br />
 </p>

বিষধর সাপ ধরা পড়েছে মেদিনীপুর ও খড়গপুর শহরেও। গত কয়েক মাস মেদিনীপুর শহরের বিভিন্ন বাড়িতে কমপক্ষে ৬০টি সাপ উদ্ধার হয়েছে বলে খবর।
 

<p>স্বাস্থ্য দপ্তরের তথ্য, ছ'মাসে মেদিনীপুর জেলায় সাপের কামড় খেয়েছেন দেড়শো জনেরও বেশি। মারা দিয়েছেন অনেকেই। স্থানীয় বাসিন্দাদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। <br />
 </p>

স্বাস্থ্য দপ্তরের তথ্য, ছ'মাসে মেদিনীপুর জেলায় সাপের কামড় খেয়েছেন দেড়শো জনেরও বেশি। মারা দিয়েছেন অনেকেই। স্থানীয় বাসিন্দাদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। 
 

loader