কপর্দক শূন্য হয়ে রাশিয়া থেকে আমেরিকায়, টেনিসের গ্ল্যামার গার্ল মাশার না-জানা কাহিনি

First Published 27, Feb 2020, 1:50 PM IST

পেশাদার টেনিস খেলোয়াড় এবং চারবারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম সিঙ্গেলস চ্যাম্পিয়ন ও তিনবারের রানার আপ তিনি।  ২১ মে, ২০১২ সালে তাঁর র‌্যাংকিং ২ নম্বরে ছিল। বুধবার অবসরের কথা ঘোষণা করেছেন বিশ্বের প্রাক্তন ১ নম্বর এই টেনিস তারকা।

মারিয়া শারাপোভার এই সিদ্ধান্ত নিঃসন্দেহে ভক্তদের কাছে এক বড় ধাক্কা। মাত্র চার বছর বয়সে জীবনে প্রথম টেনিস র‌্যাকেটটি হাতে তুলে নিয়েছিল তিনি। এর পর ১৭ বছর বয়েসে ২০০৪ সালে, উইম্বলডন ফাইনালে সেরিনা উইলিয়ামসকে হারিয়ে বিশ্ব টেনিসে নিজের জায়গা পাকা করে নেন তিনি।

মারিয়া শারাপোভার এই সিদ্ধান্ত নিঃসন্দেহে ভক্তদের কাছে এক বড় ধাক্কা। মাত্র চার বছর বয়সে জীবনে প্রথম টেনিস র‌্যাকেটটি হাতে তুলে নিয়েছিল তিনি। এর পর ১৭ বছর বয়েসে ২০০৪ সালে, উইম্বলডন ফাইনালে সেরিনা উইলিয়ামসকে হারিয়ে বিশ্ব টেনিসে নিজের জায়গা পাকা করে নেন তিনি।

১৮ বছর বয়সে প্রথম একজন রুশ মহিলা টেনিস বিশ্বে এক নম্বর হওয়ার সম্মান অর্জন করেন। বিশ্বের এক নম্বর মহিলা টেনিস খেলোয়াড়ের মুকুট ওঠে তাঁর মাথায়।

১৮ বছর বয়সে প্রথম একজন রুশ মহিলা টেনিস বিশ্বে এক নম্বর হওয়ার সম্মান অর্জন করেন। বিশ্বের এক নম্বর মহিলা টেনিস খেলোয়াড়ের মুকুট ওঠে তাঁর মাথায়।

জাপানের টোকিওতে ২০০৪ সালের অক্টোবর মাসে, এরিয়াক কোলিজিয়ামে এআইজি ওপেনের ছয় দিনে উইমেনস সিঙ্গলস জয়ের ট্রফির ঘরে তোলেন মারিয়া শারাপোভা। ২০০৬-এ ইউএস ওপেন উইমেনস সিঙ্গলস শিরোপা ট্রফিও জিতে পেয়ে যান তাঁর দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম টেনিস খেতাব।

জাপানের টোকিওতে ২০০৪ সালের অক্টোবর মাসে, এরিয়াক কোলিজিয়ামে এআইজি ওপেনের ছয় দিনে উইমেনস সিঙ্গলস জয়ের ট্রফির ঘরে তোলেন মারিয়া শারাপোভা। ২০০৬-এ ইউএস ওপেন উইমেনস সিঙ্গলস শিরোপা ট্রফিও জিতে পেয়ে যান তাঁর দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম টেনিস খেতাব।

এরপর ২০১২ সালে ফরাসি ওপেন জেতার সঙ্গে সঙ্গে দশম মহিলা হিসেবে কেরিয়ার গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ীদের তালিকায় জায়গা করে নেন তিনি। ঘরে আনেন অলিম্পিক্স পদকও ।

এরপর ২০১২ সালে ফরাসি ওপেন জেতার সঙ্গে সঙ্গে দশম মহিলা হিসেবে কেরিয়ার গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ীদের তালিকায় জায়গা করে নেন তিনি। ঘরে আনেন অলিম্পিক্স পদকও ।

২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে ডোপ টেস্টে তাঁর নাম জড়ায়। আসে তাঁর কেরিয়ারের সবচেয়ে খারাপ সময়। ফলে ১৫ মাসের জন্য নির্বাসনে কাটাতে হয় এই সুন্দরী টেনিস তারকা-কে। পরে টেনিসে ফিরেই তাঁর চোট লাগার ফলে আর সেভাবে ফর্মে ফিরতে পারেননি তিনি। বিদায়ের আগে শারাপোভার র‌্যাঙ্কিং ছিল ৩৭৩ স্থানে।

২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে ডোপ টেস্টে তাঁর নাম জড়ায়। আসে তাঁর কেরিয়ারের সবচেয়ে খারাপ সময়। ফলে ১৫ মাসের জন্য নির্বাসনে কাটাতে হয় এই সুন্দরী টেনিস তারকা-কে। পরে টেনিসে ফিরেই তাঁর চোট লাগার ফলে আর সেভাবে ফর্মে ফিরতে পারেননি তিনি। বিদায়ের আগে শারাপোভার র‌্যাঙ্কিং ছিল ৩৭৩ স্থানে।

গত বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে ডনা ভেকিচের কাছে স্ট্রেট সেটে হেরে যান এককালের সেরা টেনিস তারকা। তাতে তাঁর আত্মবিশ্বাস আরও কমে আসে। যার ফলাফল মাত্র বত্রিশ বছর বয়সেই টেনিস থেকে অবসর।

গত বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে ডনা ভেকিচের কাছে স্ট্রেট সেটে হেরে যান এককালের সেরা টেনিস তারকা। তাতে তাঁর আত্মবিশ্বাস আরও কমে আসে। যার ফলাফল মাত্র বত্রিশ বছর বয়সেই টেনিস থেকে অবসর।

নির্বাসন কাটিয়ে ফিরে এসেও খুব একটা সাফল্য পাননি। সেই সঙ্গে ভুগছিলেন হাতের চোটে। উইম্বলড‌ন, অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও ইউএস ওপেনের প্রথম রাউন্ড থেকেই ছিটকে যেতে হয়েছিল তাঁকে।

নির্বাসন কাটিয়ে ফিরে এসেও খুব একটা সাফল্য পাননি। সেই সঙ্গে ভুগছিলেন হাতের চোটে। উইম্বলড‌ন, অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও ইউএস ওপেনের প্রথম রাউন্ড থেকেই ছিটকে যেতে হয়েছিল তাঁকে।

শুধু টেনিস নয় পাশাপাশি মডেল দুনিয়াতেও অতি পরিচিত মুখ শারাপোভার। একজন দুঁদে ফ্যাশন মডেল তিনি। বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি সোশ্যাল মিডিয়াতে আবেগঘন পোস্ট করে নিজের অবসরের কথা জানালেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়া পেজে তিনি লিখেছনে, "আমি যেমন টেনিস-কে আমার জীবন দিয়েছি, একইভাবে টেনিসও আমাকে জীবনে অনেক কিছু দিয়েছে, বিদায় টেনিস।"

শুধু টেনিস নয় পাশাপাশি মডেল দুনিয়াতেও অতি পরিচিত মুখ শারাপোভার। একজন দুঁদে ফ্যাশন মডেল তিনি। বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি সোশ্যাল মিডিয়াতে আবেগঘন পোস্ট করে নিজের অবসরের কথা জানালেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়া পেজে তিনি লিখেছনে, "আমি যেমন টেনিস-কে আমার জীবন দিয়েছি, একইভাবে টেনিসও আমাকে জীবনে অনেক কিছু দিয়েছে, বিদায় টেনিস।"

১৯ বছর টেনিসে কাটানোর পর এবং পাঁচটি গ্র্যান্ডস্লাম টাইটেলের পর এবার নতুনের পথে হাঁটতে তৈরি তারকা সুন্দরী টেনিস তারকা শারাপোভা।

১৯ বছর টেনিসে কাটানোর পর এবং পাঁচটি গ্র্যান্ডস্লাম টাইটেলের পর এবার নতুনের পথে হাঁটতে তৈরি তারকা সুন্দরী টেনিস তারকা শারাপোভা।

মারিয়া শারাপোভা টুইটে লেখেন, ‘‘টেনিস আমাকে এক অন্য পৃথিবী দেখিয়েছে দেখিয়েছে আমি সেই মতোই তৈরি হয়েছি। এবার আমি কী বেছে নেব, তাই হবে আমার পরবর্তী সিদ্ধান্ত, সেই মত আমি এগিয়ে যাব। আমি তাতেই উঠতে থাকব, বড় হতে থাকব।'' তিনি এই টুইটের সঙ্গে তাঁর একটি ছোটবেলার ছবিও পোস্ট করেছেন।

মারিয়া শারাপোভা টুইটে লেখেন, ‘‘টেনিস আমাকে এক অন্য পৃথিবী দেখিয়েছে দেখিয়েছে আমি সেই মতোই তৈরি হয়েছি। এবার আমি কী বেছে নেব, তাই হবে আমার পরবর্তী সিদ্ধান্ত, সেই মত আমি এগিয়ে যাব। আমি তাতেই উঠতে থাকব, বড় হতে থাকব।'' তিনি এই টুইটের সঙ্গে তাঁর একটি ছোটবেলার ছবিও পোস্ট করেছেন।

loader