লাদাখে আক্রান্ত ভারতীয় সেনা. চিনের বিরুদ্ধে জাতীয় সড়কে বিক্ষোভ এবিভিপি-র

First Published 17, Jun 2020, 10:53 PM

লালফৌজের হামলায় রক্ত ঝরল চিন সীমান্তে। লাদাখের সংঘর্ষে প্রাণ হারালেন ভারতীয় সেনার কমপক্ষে ২০ জন জওয়ান। শহিদ হয়েছেন এ রাজ্যের দু'জন। 'কমিউনিস্ট' চিনের অন্যায় আক্রমণের প্রতিবাদে জাতীয় সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখালেন ভারতীয় বিদ্যার্থীর পরিষদের সদস্যরা। উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জে।

<p>গত কয়েকদিন ধরেই উত্তেজনা বাড়ছিল সীমান্তে। লাদাখে গালওয়ান উপত্যকায় ভারতীয় বাহিনীর উপর হামলা চালায় চিনা সেনা। পাল্টা জবাব দেন জওয়ানরা। সেই সংঘর্ষে মারা যান কমপক্ষে এ রাজ্যের দু'জন-সহ কমপক্ষে ২০। <br />
 </p>

গত কয়েকদিন ধরেই উত্তেজনা বাড়ছিল সীমান্তে। লাদাখে গালওয়ান উপত্যকায় ভারতীয় বাহিনীর উপর হামলা চালায় চিনা সেনা। পাল্টা জবাব দেন জওয়ানরা। সেই সংঘর্ষে মারা যান কমপক্ষে এ রাজ্যের দু'জন-সহ কমপক্ষে ২০। 
 

<p>লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা লাগোয়া ভারতের ভূ-খণ্ডে তাঁবু ঘাটিয়েছিল ভারতীয় সেনা। সেই তাঁবুকে সরানোকে কেন্দ্র দু'পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়।<br />
 </p>

লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা লাগোয়া ভারতের ভূ-খণ্ডে তাঁবু ঘাটিয়েছিল ভারতীয় সেনা। সেই তাঁবুকে সরানোকে কেন্দ্র দু'পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়।
 

<p>সরকারি সূত্রের দাবি, দু'দেশের সেনার সংঘর্ষে কোনও আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করা হয়নি। তাঁবু সরানোর কথা বলতে অতর্কিতে উঁচু জায়গা থেকে পাথর বৃষ্টি শুরু করে চিনের সেনাবাহিনী।<br />
 </p>

সরকারি সূত্রের দাবি, দু'দেশের সেনার সংঘর্ষে কোনও আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করা হয়নি। তাঁবু সরানোর কথা বলতে অতর্কিতে উঁচু জায়গা থেকে পাথর বৃষ্টি শুরু করে চিনের সেনাবাহিনী।
 

<p> ঘটনার চিনের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছে গোটা দেশ। বদলা নেওয়ার দাবি উঠেছে সর্বত্রই।<br />
 </p>

 ঘটনার চিনের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছে গোটা দেশ। বদলা নেওয়ার দাবি উঠেছে সর্বত্রই।
 

<p>সোমবার পড়শি দেশের বিরুদ্ধে রায়গঞ্জে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে বিক্ষোভ দেখালেন ভারতীয় বিদ্যার্থীর পরিষদের সদস্যরা। রাস্তায় জ্বলল টাওয়ার। দীর্ঘক্ষণ বন্ধ থাকল যান চলাচল।<br />
 </p>

সোমবার পড়শি দেশের বিরুদ্ধে রায়গঞ্জে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে বিক্ষোভ দেখালেন ভারতীয় বিদ্যার্থীর পরিষদের সদস্যরা। রাস্তায় জ্বলল টাওয়ার। দীর্ঘক্ষণ বন্ধ থাকল যান চলাচল।
 

loader