শিকেয় উঠল সরকারি নিষেধাজ্ঞা, কৌশিকী অমাবস্যায় তারাপীঠে পুজো দিলেন পুলিশ সুপার

First Published 20, Aug 2020, 1:29 AM

খাতায়-কলমে করোনা আতঙ্কে মন্দির বন্ধ। সেবাইত ছাড়া ভিতরে ঢোকার অনুমতি নেই কারও। কিন্তু সেই নিষেধাজ্ঞা আর মানছে কে! কৌশিকী অমাবস্যায় এবারও পূর্ণ্যার্থীদের দেখা মিলল তারাপীঠে। গর্ভগৃহে ঢুকে পুজো দিলেন খোদ বীরভূমের পুলিশ সুপার শ্যাম সিং। 
 

<p><br />
বিধি নিষেধের কড়াকড়া ছিল যথেষ্ট। আনলক পর্বে মাস খানেকের জন্য খুলেছিল তারাপীঠ মন্দির। ১৮ মার্চ থেকে করোনা আতঙ্কে ফের মন্দিরের দরজা বন্ধ হয়ে গিয়েছে।<br />
&nbsp;</p>


বিধি নিষেধের কড়াকড়া ছিল যথেষ্ট। আনলক পর্বে মাস খানেকের জন্য খুলেছিল তারাপীঠ মন্দির। ১৮ মার্চ থেকে করোনা আতঙ্কে ফের মন্দিরের দরজা বন্ধ হয়ে গিয়েছে।
 

<p><br />
১৩ জুন একটি উচ্চ পর্যায়ে বৈঠক হয় রামপুরহাটে মহকুমাশাসকের দপ্তরে। সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, মেলার বসার তো কোনও প্রশ্নই নেই। এবার কৌশিকী অমাবস্যায় তারাপীঠ বন্ধ রাখা হবে। সাধারণ ভক্ত, এমনকী ভিআইপি-দেরও মন্দির ঢুকতে দেওয়া হবে না।<br />
&nbsp;</p>


১৩ জুন একটি উচ্চ পর্যায়ে বৈঠক হয় রামপুরহাটে মহকুমাশাসকের দপ্তরে। সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, মেলার বসার তো কোনও প্রশ্নই নেই। এবার কৌশিকী অমাবস্যায় তারাপীঠ বন্ধ রাখা হবে। সাধারণ ভক্ত, এমনকী ভিআইপি-দেরও মন্দির ঢুকতে দেওয়া হবে না।
 

<p><br />
মঙ্গলবার ছিল কৌশিকী অমাবস্যা। সরকারি নির্দেশ বুড়ো আঙুল দেখিয়ে যথারীতি তারাপীঠে মন্দির ঢুকে পড়েন বেশ কয়েকজন পূর্ণ্যার্থী। মন্দির চত্বরে দাঁড়িয়ে পুজো ও অঞ্জলিও দেন তাঁরা।&nbsp;<br />
&nbsp;</p>


মঙ্গলবার ছিল কৌশিকী অমাবস্যা। সরকারি নির্দেশ বুড়ো আঙুল দেখিয়ে যথারীতি তারাপীঠে মন্দির ঢুকে পড়েন বেশ কয়েকজন পূর্ণ্যার্থী। মন্দির চত্বরে দাঁড়িয়ে পুজো ও অঞ্জলিও দেন তাঁরা। 
 

<p><br />
বাদ যাননি খোদ বীরভূমের পুলিশ সুপার শ্যাম সিং। &nbsp;সন্ধ্যায় হলুদ পাঞ্জাবী ও সাদা পায়জামা পরে তারাপীঠ চত্বরে যজ্ঞে অংশ নেন তিনি। এরপর মাস্ক ছাড়াই গর্ভগৃহে ঢুকে দেন পুজোও।<br />
&nbsp;</p>


বাদ যাননি খোদ বীরভূমের পুলিশ সুপার শ্যাম সিং।  সন্ধ্যায় হলুদ পাঞ্জাবী ও সাদা পায়জামা পরে তারাপীঠ চত্বরে যজ্ঞে অংশ নেন তিনি। এরপর মাস্ক ছাড়াই গর্ভগৃহে ঢুকে দেন পুজোও।
 

<p>নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে তারাপীঠের গর্ভগৃহে খোদ পুলিশ সুপারের পুজো দেওয়ার ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কেন নিয়ম ভাঙলেন? জেলার শীর্ষ পুলিশকর্তার সাফাই, 'দায়িত্ব পালন করার জন্য় মন্দিরে গিয়েছিলাম। তারাপীঠ তো জেলার বাইরে নয়। &nbsp;তাই থাকতেই পারি।'&nbsp;</p>

নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে তারাপীঠের গর্ভগৃহে খোদ পুলিশ সুপারের পুজো দেওয়ার ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কেন নিয়ম ভাঙলেন? জেলার শীর্ষ পুলিশকর্তার সাফাই, 'দায়িত্ব পালন করার জন্য় মন্দিরে গিয়েছিলাম। তারাপীঠ তো জেলার বাইরে নয়।  তাই থাকতেই পারি।' 

loader