মানসিক অসুস্থতার চিকিত্সা ব্যবস্থার জন্য মেডিকেল বীমা বাড়ানোর বিষয়ে নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের করা একটি আবেদনের শুনানি নিয়ে কেন্দ্র ও বীমা নিয়ন্ত্রক ও উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (আইআরডিএ) একটি নোটিশ জারি করেছে আদালত। অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত-এর মৃত্যুর ঘটনা নজর কেড়েছে, কতটা ভয়ানক হতে পারে মানসিক অসুস্থতা। বিচারপতি আরএফ নরিমন, নবীন সিনহা ও  বিআর গাওয়াই-এর একটি বেঞ্চ এই মামলার ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে শুনানির সময় এই নোটিশ জারি করেছেন। 

আবেদনে এই সংক্রান্ত বহু বিষয়ে এই বেঞ্চ কেন্দ্র এবং আইআরডিএর কাছে উত্তর চেয়েছে। এই আবেদনটি অ্যাডভোকেট গৌরব কুমার বনসাল দায়ের করেছেন। গৌরব বানসাল এই বিষয়ে বলেছেন যে, ২০১৪ এর মানসিক স্বাস্থ্য আইন অনুযায়ী, মানসিক অসুস্থতা বীমা পলিসিতে অন্তর্ভুক্ত করা হবে, তবে এখনও পর্যন্ত এই নিয়মের উপর আইআরডিএর রেড টেপের কারণে কার্যকর করা হয়নি। মনের অসুখ শরীরের অসুখের থেকে কম গুরুত্বপূর্ণ নয়, এই বার্তা বিভিন্ন মহল থেকে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার আর্জি উঠছে। একটি মামলার প্রেক্ষিতে এ দিন সুপ্রিম কোর্ট প্রশ্ন তোলে, ‘শারীরিক অসুস্থতার জন্য স্বাস্থ্যবিমা থাকলে, মানসিক অসুস্থতার জন্য কেন থাকবে না?’

সুপ্রিম কোর্টের তরফ থেকে কেন্দ্র এবং বীমা নিয়ন্ত্রক ও উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ-এর কাছে জানতে চাওয়া হয়েছে, কেন মানসিক স্বাস্থ্যের বিমা করানো হলে তার কভারেজ কেন বাড়বে- এই বিষয়ে যুক্তি দিয়ে বিস্তারিত জানানে হবে আদালতকে। দুই সপ্তাহ পরে এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে বলে জানা গিয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই অসুখ দেখা যায় না, তাই এই নিয়ে অনেকেই ওয়াকিবহল নন। বরং মনের অসুস্থতার ফলে বৃদ্ধি পেতে পারে আরও নানান শারীরিক সমস্যা। তাই এই বিষয়ে আরও নজর দেওয়া উচিত।