সন্তানদের নিয়ে মর্ত্যে আসার সময় হয়েছে মায়ের। অপেক্ষা আর মাত্র কিছুদিনের। মহালয়া থেকেই কলকাতার বিভিন্ন থিমের পুজোর দেখার জন্য ভিড় জমে রাস্তায়। তবে শুধুমাত্র পুজো প্যান্ডেলই নয় কলকাতার পুজোর মধ্যে শামিল ফ্ল্যাট বাড়ির পুজোও। এইসব বাড়ির পুজোগুলি বেশি জাঁকজমকপূর্ণ না হলেও প্রতিটি বাড়ির পুজোর মধ্যেই রয়েছে নিজস্বতা ও নতুনত্বের ছোঁয়া। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল কেষ্টপুর গনপতি পার্ক আবাসিক দুর্গোৎসব। 

এবছরের তাদের থিম হল 'অন্তরালে'। আমরা যে আনন্দে হইচই করে দুর্গোৎসব পালন করি। আমরা একবারও খেয়াল করি না বা মনে রাখি না তাদের কথা যারা এই প্যান্ডেলের নেপথ্যে রয়েছে। প্যান্ডেল মিস্ত্রি থেকে শুরু করে প্রতিমা শিল্পী সকলের উদ্যোগেই সফল হয় একটি দুর্গা পুজো। তবে এই সফলের নেপথ্যের এই ব্যক্তিরা লোকচক্ষুর আড়ালে থেকেই নিজেদের কাজটি করে চলে। নিজেরা অন্ধকারে থাকলেও সে দিকে বিন্দুমাত্র ভ্রূক্ষেপ নেই তাদের। এই আড়ালে থাকা মানুষগুলিকে উদ্দেশ্য করেই তাদের এবারের থিম 'অন্তরালে'। 

প্রতিবছরেই নতুন নতুন চিন্তা ভাবনার সঙ্গে নিজেদের পুজোমন্ডপ সাজিয়ে তোলেন তারা। তার সঙ্গে থিমেও থাকে অভিনবত্বের ছোঁয়া। এবছর তাদের থিম সৃজনে রয়েছেন সঞ্জয় চৌধুরী এবং মণ্ডপ শিল্পী রয়েছেন মিন্টু নস্কর। তবে প্রতিবছরেই সুন্দরভাবে সেজে ওঠে তাদের প্রতিমা। এবছর তাদের প্রতিমা শিল্পী হলেন শঙ্কর পাল।