বিশ্বনাথ দাস, হাওড়া-বালির তৃণমূল বিধায়ক বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন দলেরই এক নেতা। তাঁকে সময় মতো এলাকায় পাওয়া যায় না বলে অভিযোগ করলেন তিনি। একইসঙ্গে, গীতাঞ্জলি প্রকল্পে টাকা নয়ছয়েও অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের ওই বিধায়কের বিরুদ্ধে। বালির প্রাক্তন কাউন্সিলরের এই বিস্ফোরক অভিযোগ তীব্র অস্বস্তিতে পড়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব।

আরও পড়ুন-আগামী ৩০ নভেম্বর বারাণসী সফরে প্রধানমন্ত্রী, দেশবাসীকে নতুন উপহার দিতে চলেছেন মোদি

বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়ার বিরুদ্ধে একগুচ্ছ অভিযোগ। বালির প্রাক্তন তৃণমূল সভাপতি তথা প্রাক্তন কাউন্সিলার তফজিল আহমেদের অভিযোগ, প্রথমত এমএলএ কে সময়মতো এলাকায় পাওয়া যায় না। সাধারণ মানুষ শংসাপত্র সহ বিভিন্ন অনুদানের বিষয়ে কথা বলতে গেলে দীর্ঘদিন ধরে হেনস্থা হতে হচ্ছে।  সাধারণ মানুষের জন্য সরকারি বিভিন্ন ভাতা বালিতে  বিলি করে না করে নিজের এলাকাতে বিলি করেন তৃণমূল বিধায়ক । শুধু তাই নয়, উনি ক্লাবের জন্য বা গীতামঞ্জলী প্রকল্পে বাড়ি তৈরি প্রকল্পের টাকা টাকা বিতরণের ক্ষেত্রেও নয়ছয় করেছেন।

আরও পড়ুন-শুভেন্দু মন্ত্রিত্ব ছাড়ার পরই তৃণমূলের পার্টি অফিস 'দখল', বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে উত্তপ্ত খেজুরি

যদিও, সমস্ত বিষয়টি উড়িয়ে দিয়েছেন তৃণমূল বৈশালী ডালমিয়া। তাঁর পালটা অভিযোগ, যে তফজিল আহমেদ এখন দলের পদে নেই । তিনি দলকে কলিমালিত্ত করার জন্য এটা করছেন । এর পেছনে অন্য কোনও রাজনৈতিক দলের মদত রয়েছে কিনা তার দলকে খতিয়ে দেখা আর্জি জানিয়েছেন বিধায়ক । রাজ্যে বিধানসভা ভোটের আগে এই ঘটনাকে সামনে রেখে জোরকদমে পথে নেমে পড়েছে বিজেপি। তাঁদের দাবি, দলের সকল সদস্যই প্রথমদিন থেকেই দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত । প্রাক্তন কাউন্সিলর বর্তমানে কোন রকম ভাগ পাচ্ছেন না বলেই বিধায়কের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে ।