সঞ্চীব কুমার দুবে, পূর্ব মেদিনীপুর-শুক্রবার মন্ত্রিত্ব পদ ছেড়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। তার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তাঁরই গড়ে তৃণমূলের পরপর ৬টি পার্টি অফিস দখলের অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। তৃণমূলের কয়েকটি পার্টি অফিসে ভাঙচুরের অভিযোগ ওঠে। আবার ভাঙচুরের পর ওই পার্টি অফিস গুলিতে তৃণমূলের পতাকা নামিয়ে বিজেপির পতাকা দেওয়া হয়। ঘটনার জেরে সংঘর্ষে জড়ায় তৃণমূল-বিজেপি।

আরও পড়ুন-তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিকে খোদ মন্ত্রীর ভাই, ভোটের আগে বাংলায় বদলাচ্ছে রাজনৈতিক চালচিত্র

ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি মহকুমার খেজুরিতে। শুভেন্দু মন্ত্রিত্ব পদ ছাড়তেই শুক্রবার খেজুরির বিভিন্ন জায়গায় অশান্ত হয়ে পড়ে। তৃণমূলের অভিযোগ, খেজুরি এক ব্লকের বীরবন্দর পাটনা, কণ্ঠীবাড়ি এলাকায় তৃণমূলের পরপর ৬টি পার্টি অফিসে ভাঙচুর চালায় তৃণমূল। ভাঙুচুরের পর সেগুলিতে তৃণমূলের পতাকা নামিয়ে বিজেপির পতাকা তুলে দেওয়া হয়। শুক্রবার রাতে এই ঘটনার পর, শনিবার সকালে বিষয়টি জানাজানি হতেই সংঘর্ষে জড়ায় তৃণমূল ও বিজেপি। কিন্তু, তৃণমূল সংঘাতের পথে না গিয়ে ঘটনার প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ করে। যদিও, সংঘর্শের আগেই ঘটনাস্থলে খেজুরি থানার পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আরও পড়ুন-ভোটার তালিকা সংশোধন ঘিরে বিজেপির উপর অতর্কিত হামলা, বাঁশ-রড দিয়ে মারধরের অভিযোগ

তৃণমূলের পার্টি অফিস দখলের প্রতিবাদ জানিয়ে শনিবার সকাল থেকে রাস্তা অবরোধ করেন তৃণমূলের কর্মী সমর্থকরা। এলাকার মিঁয়া রোডের কাছে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূল। পার্টি অফিস ভাঙচুরের ঘটনায় অভিযুক্ত বিজেপি কর্মীদের কড়া শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তৃণমূলের কর্মী সমর্থকরা। যদিও, এই ঘটনার তাঁদের দায় নেই বলে জানিয়েছে বিজেপি নেতৃত্ব। ঘটনা তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব বলে দাবি করেছে বিজেপি নেতৃত্ব।