এলাকায় বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছিল সে। অভিযোগ তেমনই। মদের আসর থেকে তুলে নিয়ে শেষপর্যন্ত এক যুবককে পিটিয়ে মেরে ফেলল তার সঙ্গীরাই! ফের গণপিটুনির ঘটনা ঘটল হাওড়ার উলুবেড়িয়ায়। 

ঘড়িতে তখন রাত প্রায় দশটা। রবিবার উলুবেড়িয়ার বোয়ালিয়া এলাকায় আরও বেশ কয়েকজনের সঙ্গে বসে মদ্যপান করছিল শেখ মনতাজুল নামে এক যুবক। পুলিশ জানিয়েছে, একসময় তাদের মধ্যে বচসা শুরু হয়। বচসা হাতাহাতিতে গড়াতে বেশি সময় লাগেনি। এরপর আচমকাই মনতাজুলকে মদের আসর থেকে তুলে নিয়ে যায় বাকীরা। রাস্তায় ফেলে তাকে ইঁট, বাঁশ ও লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ যখন ঘটনাস্থলে পৌঁছয়, ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে। হাসপাতালে নিয়ে গেলে আক্রান্ত যুবককে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

আরও পড়ুন: সিএএ-র সমর্থনে প্রচারের 'মাশুল', বিজেপির মণ্ডল সভাপতিকে 'কুপিয়ে খুন'

আরও পড়ুুন: চলন্ত ট্রেনে প্রসবযন্ত্রণা, কামরাতেই সন্তানের জন্ম দিলেন মহিলা
 
কিন্তু কেন এমন ঘটনা ঘটল? স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, সম্প্রতি এলাকার অসামাজিক কাজকর্ম বেড়েছে। অপরাধমূলক কাজে জড়িয়ে পড়েছিল মনতাজুল। গত কয়েক দিন তোলাবাজিও করছিল সে। সত্যিই কি তাই? উল্টো কথা বলছেন মৃতের পরিবারের লোকেরা। তাঁদের পাল্টা দাবি,  অপরাধমূলক কাজের প্রতিবাদেরই মাশুল দিল মনতাজুল। পরিকল্পনামাফিক পিটিয়ে খুন করা হয়েছে ওই যুবককে। এদিকে এই ঘটনার পর তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে উলুবেড়িয়ার বোয়ালিয়া এলাকা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে নামানো হয় ব়্যাফ।  বেশ কয়েকজনকে পুলিশ আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে বলে জানা গিয়েছে। এর আগে উলুবেড়িয়ারই আমতলায় বন্ধুকে খুনের অভিযোগ গণপিটুনির শিকার হন দুই যুবক। তাঁদের বেধড়ক মারধর করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। শেষপর্যন্ত পুলিশের হস্তক্ষেপে  প্রাণে বাঁচে আক্রান্তরা।