চলতি মাসের তিন তারিখ ফাঁসি হওয়ার কথা ছিল নির্ভয়াকাণ্ডের চার অপরাধীর। কিন্তু আইনি জটিলতায় সেই ফাঁসি এবারও পিছিয়ে গেল। এই নিয়ে টানা তৃতীয়বার ফাঁসি পিছোল নির্ভয়ার চার ধর্ষকের। ন্যায় বিচার পেতে নির্ভয়ার মা-বাবার মত ধর্য্যের পরীক্ষা দিচ্ছে গোটা দেশ। এর মধ্যেই রাঁচি গণধর্ষণকাণ্ডে ১১ অভিযুক্তকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিল আদালত।

হায়দরাবাদে মহিলা পশু চিকিত্‍সককে ধর্ষণ ও খুন ঘিরে যখন উত্তাল ছিল গোটা দেশ, তখন আরও একটি মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে রাঁচিতে৷ ২৫ বছর বয়সি এক আইনের ছাত্রীকে কপালে বন্দুক ঠেকিয়ে ১২ জন মিলে ধর্ষণ করে৷ রাঁচির হাই-সিকিউরিটি ভিআইপি জোনের ভিতরেই ঘটেছিল এই গণধর্ষণের ঘটনা৷

আরও পড়ুন: নতুন কীর্তি বিজেপি বিধায়কের, ১০২ বছরের স্বাধীনতা সংগ্রামীকে বললেন পাক এজেন্ট

কাঙ্কে পুলিশ স্টেশনে ১২ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছিল  ধর্ষিত তরুণী৷ অভিযোগে জানিয়েছিলেন, গত ২৬ নভেম্বর বিকেল সাড়ে ৫টায় তিনি বন্ধুদের সঙ্গে রাঁচির উপকণ্ঠে সংগ্রামপুর এলাকায় গিয়েছিলেন৷ তখন বাইকে করে দুই ব্যক্তি তাঁকে অপহরণ করে নিয়ে যায়৷ বন্ধুরা বাধা দিতে গেলে মারধর করে৷ তরুণীর কপালে বন্দুক ঠেকিয়ে রেখেছিল দুষ্কৃতীরা৷

তারপর তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল  রাঁচির ভিআইপি জোনে৷ ১২ জন মিলে ধর্ষণ করা শুরু করে৷ যেখানে ঘটনাটি ঘটেছে, সেখান থেকে মুখ্যমন্ত্রীর বাসভবন মাত্র ১০ কিমি৷ এছাড়াও ঝাড়খণ্ড হাইকোর্টের প্রধানবিচারপতি, ডিজিপির বাড়িও কাছেই৷ তরুণী জানিয়েছেন, যে মোটরবাইকে তাঁকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল, মাঝ রাস্তায় বাইকের তেল ফুরিয়ে যায়৷ লোকটি তার কয়েকজন বন্ধুকে ফোন করে৷ এরপর কয়েকজন একটি গাড়ি নিয়ে আসে৷ তরুণীকে ওই গাড়িতে তুলে একটি ভাঙা বাড়ির পিছনে নিয়ে গিয়ে ১২ জন মিলে ধর্ষণ করে৷

আরও পড়ুন: করোনা নিয়ে নাজেহাল বিশ্ব, চটজলদি সমাধান দিলেন যোগী আদিত্যনাথ

এই ঘটনার রাঁচির দায়রা আদালত গত ২৭ ফেব্রুয়ারি ১১ জনকে দোষী সাব্যস্ত করে। বাকি ছিল সাজা ঘোষণা। বিচারক নবনীত কুমার সোমবার দোষীদের যাবজ্জীবন সাজা দেন। সঙ্গে প্রত্যেকের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযুক্তদের মধ্যে একজন নাবালক হওয়ায় তাঁর বিচার চলছে জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ডে। 

অপরাধের নব্বই দিনের মধ্যে রাঁচী ধর্ষণকাণ্ডে সাজা ঘোষণা করল রাঁচির নগরদায়রা আদালত। এদিকে এই রায়ের বিরুদ্ধে তারা উচ্চতর আদালতে যাবেন বলে জানিয়েছেন দোষীদের আইনজীবী।