২৬ জানুয়ারি গোটা দেশ সাক্ষী থেকেছে ভয়াবহ কৃষক আন্দোলনের। এদিন দিল্লিতে ট্রাক্টর ব়্যালির অনুমতি দেওয়া হয়েছিল পুলিশের পক্ষ থেকে। কিন্তু সেই ব়্যালি যে এই ভয়াবহতায় পরিণত হতে তা আগে থেকে অনুমান করা এক কথায় ছিল অসম্ভব, এমনটাই বারে বারে বলতে শোনা যায় মঙ্গলবার বিভিন্ন মহলের পক্ষ থেকে। তবে দিনভর একটাই প্রশ্ন ঘুরে ফিরে উঠে আসে প্রজাতন্ত্রের দিন, সত্যি কি এই বিপুল বিক্ষোভ পলকে গড়ে তোলা সম্ভাব! 

আরও পড়ুন- প্রজাতন্ত্র রাজধানীতে কৃষক-পুলিস খণ্ডযুদ্ধ, ঘটনায় আহত ৮৬ জন পুলিস আধিকারিক..

এরই উত্তর এবার ফাঁস হয়ে গেল সর্বত্র। প্রকাশ্যে এলো কৃষকদের পূর্ব পরিকল্পিত পদক্ষেপ নেওয়ার খানিক ঝলক। সূত্র মারফত উঠে আসা এক ভিডিওতে সাফ নজরে আসে প্রজাতন্ত্র দিবসের এই বিক্ষোভ তথা হামলা আগে থেকেই প্ল্যানিং করা হয়েছিল। ভারতীয় কিষাণ ইউনিয়নের হরিয়ানা বিভাগের আধিকারিক গুরনাম সিং চান্ধুনি কয়েক সপ্তাহ আগেই স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিল ২৬ তারিখে ঠিক কোন রূপ ধারন করতে চলেছে এই কৃষক বিক্ষোভ। ভিডিও-তে উঠে আসে সাফ মন্তব্য- ২৬ তারিখ সরকারের কাছে একটি কড়া বার্তা পৌঁচ্ছনো প্রয়োজন। তারা কৃষকদের নিয়ে ভাবতে নারাজ। তাই তাদের ভাবাতে হবে। সকলের উদ্দেশ্যে বলা হচ্চে এই দিন ট্রাক্টর নিয়ে উপস্থিত হতে। এখানেই শেষ নয়। 

পাশাপাশি এও বলতে শোনা যায়, এদিন গুলি চলবে, লাঠি চার্জ হবে, তাতে পিছিয়ে পড়লে চলবে না। ২৬ জানুয়ারি হবে এক ফাইলান ম্যাচ। আর সেই বিক্ষোভ যে ঠিক কোন আকার ধারণ করার ক্ষমতা রেখেছিল, তার সাক্ষী থেকেছে গোটা দেশ মঙ্গলবার। এদিন বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বদলে যেতে থাকে দিল্লির চেনা ছবি, পরিস্থিতি কঠিন হয়ে ওঠায় স্তব্ধ হয়ে যায় রাজধানী, অথচ এই বিক্ষোভ যে তলায় তলায় পরিকল্পনা করেই বাস্তবিক রূপ নিয়েছিল, তা চোখ এড়ায় সকলের।