'জয় শ্রী রাম' ধ্বনিকে কেন্দ্র করে উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। এবারের লোকসভা নির্বাচনের সময়ে থেকেই 'জয় শ্রী রাম' বলাকে কেন্দ্র করে রীতিমতো জুলুমবাজি চালাচ্ছেন গেরুয়াধারীরা। রাস্তা-ঘাটে সাধারণ মানুষকে দিয়ে জোর করে 'জয় শ্রী রাম' বলতে বলা, আর তা না করলে করা হচ্ছে হেনস্থা। শারীরিকভাবেও নিগ্রহ করা হচ্ছে কোথাও কোথাও। এমন ধারা 'রামরাজত্ব'-এর বিরোধীতাও করছেন বিরোধীরা। কিন্তু চিত্রটা যে একেবারেই বদলায়নি তা আবারও প্রমাণিত হল এই ঘটনা থেকে।

সূত্রের খবর, রাচির মহাত্মা গান্ধী মার্গ-এ তিনজন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের যুবককে জোর করে'জয় শ্রী রাম' বলতে বাধ্য করা হয়। বাধ্য করে একদল অজ্ঞাত পরিচয় ব্যক্তি। জানা গিয়েছে, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের তিন যুবককে প্রথমে মারধর করে ওই দুষ্কৃতিরা, পরে তাদেরকে জোর করে 'জয় শ্রী রাম' বলতে বাধ্য করা হয়। তাঁদেরকে এমনভাবে নিগ্রহ করা হয় যে, তারা গুরুতরভাবে আহত হন। এরপর তাদের নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়। 

ট্রাইব্যুনালের নির্দেশে পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কে ৭৩০০ কোটি ফেরত দিতে হবে নীরব মোদীকে

এই ঘটনার প্রতিবাদে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উত্তেজিত কিছু মানুষ এমজি মার্গ অবরোধ করে। এদিন চার্চ কমপ্লেক্সের কাছে তাঁরা ওই অভিযুক্তদের গ্রেফতারের দাবিতে এক হন। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ বাহিনী। অভিযুক্তদের খোঁজে পুলিশ।