কংগ্রেস নেতার বাড়ি থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা উদ্ধার। ঘটনা কর্ণাটকের। আয়কর দফতর বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জি পরমেশ্বর ও তাঁর সহযোগীদের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালাচ্ছে। বেঙ্গালুরু তুমাকুরুর ৩০টিরও বেশি জায়গায় এখনও পর্যন্ত তল্লাশি চালান হয়েছে। তাতেই উদ্ধার হয়েছে ৪ কোটি ২৫ লক্ষেরও বেশি নগদ টাকা। 

শুক্রবার সকাল থেকেই আয়কর দফতরের এই তল্লাশি চালানোর কথা জানা যায়। সব মিলিয়ে ৩০০ বেশি আয়কর আধিকারিক এই তল্লাশি চালাচ্ছেন।  কর্ণাটকের প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী জি পরমেশ্বর ছাড়াও প্রাক্তন সাংসদ আরএল জালাপ্পার সঙ্গে সম্পর্ক যুক্ত বিভিন্ন স্থানেও এই তল্লাশি চালান হয়। 

মেডিক্যাল পরীক্ষায় দর্নীতির নিয়ে এই অভিযান চালান হয়। আয়কর বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, অযোগ্য প্রার্থীদের থেকে ৫০ লক্ষেরও বেশি টাকা নিয়ে মেডিক্যালে আসন বিক্রির খবর আসার পরই এই তল্লাশি শুরু হয়। তল্লাশিতে প্রচুর টাকা ও কাগজপত্র পাওয়া গিয়েছে। 

পরমেশ্বরের ভাইপো আনন্দ এবং সিদ্ধার্থ মেডিক্যাল কলেজে এদিন তল্লাশি চালায় আয়কর দফতর। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্কিত একটি ট্রাস্ট বর্তমানে এই মেডিক্যাল কলেজটির পরিচালনায় রয়েছে। 

সিদ্ধার্থ গ্রুপ  অফ ইনস্টিটিউশেনর সঙ্গে যেমন যুক্ত রয়েছে পরমেশ্বরের পরিবার। অন্যদিকে কংগ্রেস নেতা জালাপ্পা পুত্র ডোড্ডাবাল্লাপুরা ও কোলারে আরএল জালাপ্পা ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। 

তবে আয়কর দফতরের তল্লাশির ব্যাপারে তার কাছে কোনও খবর নেই বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছিলেন পরমেশ্বর। অন্যদিকে কর্ণাটকে উপনির্বাচনের আগে  আয়কর দফতরের হানা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রনোদিত বলে দাবি করেছেন জালাপ্পা।