মঙ্গলবার দৈনিক সংক্রমণের হার কিছুটা আশার আলো দেখিয়েছিল। পর পর ২ দিন ৭৮ হাজারের উপরে সংক্রমণ থাকার পর মঙ্গলবার তা ৭০ হাজারের নিচে নেমেছিল। কিন্তু বুধবার পরিস্থিতি সেই আগের জায়গাতেই ফিরে গেল। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা আক্রান্ত হলেন ৭৮,৩৫৭। ফলে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৭ লক্ষ পার করে গেল। ভারতে বর্তমানে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৭ লক্ষ ৬৯ হাজার ৫২৪।

 

 

এদিকে মঙ্গলবার দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৯০০ নিচে নেমেছিল। কিন্তু বুধবার তা ফের হাজার পার করল। গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড ১৯ রোগে মৃত্যু হয়েছে ১,০৪৫ জনের। ফলে দেশে করোনার বলি এখনও পর্যন্ত ৬৬ হাজার ৩৩৩জন। ইতিমধ্যে মেক্সিকোকে পেছনে ফেলে বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যায় ৩ নম্বরে উঠে এসেঠে ভারত।

আরও পড়ুন: আর নিরাপদ নয় ৬ ফুটের সামাজির দূরত্ব, ঠান্ডা ও আর্দ্র পরিবেশে করোনা ছড়াতে পারে এর প্রায় তিনগুণ

বেড়ে চলা করোনা সংক্রমণের মধ্যে আশার আলো অবশ্য দেখাচ্ছে সুস্থতার হার। ইতিমধ্যে দেশে করোনামুক্ত হয়েছেন ২৯ লক্ষ ১৯ হাজার ৯ জন। ফলে দেশে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা এখন ৮ লক্ষ ১ হাজার ২৮২। 

এদিকে মঙ্গলবার দেশে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ১০  লক্ষের বেশি।  কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী,রবিবার গোটা দেশে ১০ লক্ষ ১২  হাজার ৩৬৭  কোভিড টেস্ট হয়েছে।  সব মিলিয়ে ভারতে এ পর্যন্ত ৪ কোটি ৪৩  লক্ষ ৩৭ হাজার ২০১ নমুনার কোভিড পরীক্ষা হয়েছে।  এই নিয়ে দেশে তৃতীয় দিন করোনার নমুনা পরীক্ষা ১০ লক্ষের গণ্ডি পার করল। 

 

 

বেশ কিছুদিন ধরেই দৈনিক হিসাবে করোনাভাইরাস আক্রান্তে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে ভারত। বলা যায়, করোনার কেন্দ্রস্থল এখন ভারত।
ওয়ার্ল্ডোমিটার বলছে, গত ২৪ ঘণ্টাতেও সেই রেকর্ড অক্ষত রয়েছে। এই নিয়ে আগস্টের ৪ তারিখ থেকে প্রায় প্রতিদিনই দৈনিক আক্রান্তে শীর্ষে থাকছে ভারত। আগস্টের শেষ সপ্তাহ থেকে শুরু করে সেপ্টেম্বরের ২ তারিখেও এর হেরফের হচ্ছে না, বরং ক্রমাগত বাড়ছে আক্রান্তের হার।

আরও পড়ুন: একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে রেখেছিলেন অনন্য ভূমিকা, নড়াইলের জামাইয়ের জন্য বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় শোক আজ

বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, ভারত বর্তামনে তৃতীয় অবস্থানে থাকলেও আক্রান্ত ও মৃত্যুর ভয়াবহতা যে হারে বাড়ছে তা যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে যেতে পারে শিঘ্রই। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে ২ লাখ ৬০ হাজার ৪ জনের শরীরে, আর মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৮৯৯ জনের। সারাবিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এখন ২ কোটি ৫৮ লাখ ৯৯ হাজার ৬২১ জন। মারা গেছে ৮ লাখ ৬১ হাজার ২৩২ জন। বিশ্বব্যাপী সুস্থ হয়ে উঠেছে ১ কোটি ৮১ লাখ ৯৩ হাজার ৩০ জন।