Asianet News BanglaAsianet News Bangla

নারী দিবসে মোদীর ক্যাম্পইনে আমন্ত্রণ, প্রস্তাব ফেরাল ভারতের গ্রেটা থুনবার্গ লিসিপ্রিয়া

  • মহিলাদের উদ্বুদ্ধ করা  জীবন সংগ্রামের কাহিনী
  • নারী দিবসে প্রধানমন্ত্রীর তরফে বিশেষ ক্যাম্পেইনের আয়োজন
  • সেই ক্যাম্পেইনে জায়গা পায় ৮ বছরের লিসিপ্রিয়া
  • ট্যুইট করে প্রস্তাব ফিরিয়ে দিল খুদে পরিবেশকর্মী
8 year old activist decline on Womens Day campaign invite
Author
Kolkata, First Published Mar 7, 2020, 2:09 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

সুইডেনের পার্লামেন্টের সামনের রাস্তায় বসে আছেন এক কিশোরী, একদম একা। হাতে একটা প্ল্যাকার্ড, তাতে লেখা ‘জলবায়ুর জন্য স্কুল ধর্মঘট’। ২০১৮ সালের সে সময়টায় তীব্র তাপপ্রবাহ ও দাবানলে সুইডেনের অবস্থা ভয়াবহ। জলবায়ু সংকটের বিরুদ্ধে কেন যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না- এর প্রতিবাদে ওই কিশোরী স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিল। ২০ আগস্ট থেকে টানা তিন সপ্তাহ সুইডিশ পার্লামেন্টের সামনে টানা বসেছিল কন্যা। ১৬ বছর বয়সী কিশোরী গ্রেটা থুনবার্গের এই আন্দোলনই পরে বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছিল বুনো দাবানলের মতো।  

 

8 year old activist decline on Womens Day campaign invite

 

জলবায়ু পরিবর্তনের ভয়ংকর থাবা থেকে পৃথিবীকে রক্ষায় ১৬ বছর বয়সী গ্রেটা গড়ে তোলে  জলবায়ু পরিবর্তন আন্দোলন। এই আন্দোলনের নাম ‘ফ্রাইডেস ফর ফিউচার’। সুইডেনের গ্রেটার মতই মণিপুরের ৮ বছরের লিসিপ্রিয়া কাঙ্গুজাম খুব অল্প বয়স থেকেই পরিবেশ বাঁচানোর দাবিতে সরব। ভারতের 'গ্রেটা থুনবার্গ' হিসেবে ইতিমধ্যে পরিচিতি লাভ করতে শুরু করেছে লিসিপ্রিয়া। ইতিমধ্যে ২০১৯ সালে ওয়ার্ল্ড চিলড্রেন পিস প্রাইজ সম্মানে সম্মানিতও করা হয়েছে তাকে। ভারত সরকারের পক্ষ থেকে এখনও তাঁকে সরকারি ভাবে কোনও সম্মান জানানো হয়নি, যদিও নারী দিবস উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা করা #SheInspiresUs ক্যাম্পেনে তুলে ধরা হয়েছে আট বছরের এই বালিকার কথা। 

আরও পড়ুন: করোনা বিশ্বজুড়ে প্রাণ কাড়বে ১.৫ কোটি মানুষের, ইতিমধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা লাখ ছাড়াল

সনম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী ট্যুইট করে জানিয়েছে, উইমেন্স ডে'র দিন নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট তিনি মহিলাদের ব্যবহার করতে দেবেন। পাশাপাশি সার দেশে নানা ক্ষেত্রে মহিলাদের দুরন্ত জীবন সংগ্রামের কাহিনী সবাইকে শেয়ার করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। এই নিয়েই শুরু হয়েছে  #SheInspiresUs নামে একটি ক্যাম্পেইন। সেই ক্যাম্পেনই তুলে ধরা হয়েছিল আট বছরের লিসিপ্রিয়া কাঙ্গুজানের কথা। কিন্তু এই প্রস্তাব একেবারেই পছন্দ হয়নি খুদে বালিকার। বরং পত্রপাঠ প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাব খারিজ করেছে সে। লিসিপ্রিয়ার সাফ কথা, যেহেতু তার কথা শোনা হয় না, তাই এসব করে কোনও লাভ নেই।

আরও পড়ুন: বীভৎস নাৎসি অত্যাচারের আরও এক ছবি, খোঁজ মিলল মানুষের চামড়ার তৈরি অ্যালবামের

লিসিপ্রিয়া ট্যুইটারে লিখেছে, "প্রিয় নরন্দ্রে মোদীজি, আমার কথা না শুনলে আমায় নিয়ে মাতামাতি করবেন না। দেশের অসংখ্য মহিলার মধ্যে আমায় বেছে নেওয়ার জন্য ধন্যবাদ। কিন্তু অনেক ভেবে আমি ঠিক করেছি এই সম্মান আমি ফিরিয়ে দেব। জয় হিন্দ।"

 

 

আরেকটি ট্যুইটে লিসিপ্রিয়া লিখেছে, "সরকার আমার কথা শওনে না, আর আমাকেই দেশের অনুপ্রেরণাদায়ক মহিলাদের মধ্যে একজন হিসেবে বেছে নেওয়া হল। এটি কি ঠিক? আমাদের পৃথিবীর ৩২০ কোটি মহিলাদের মধ্যে যে  সকল মহিলা অন্যদের অনুপ্রেরণা যোগায়া তাঁদের মধ্যে আমায় বেছে নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদীজি।" তবে আট বছরের বালিকার ট্যুরটার প্রফাইলটি তার অভিভাবকরাই হ্যান্ডেল করেন বলে জানা গিয়েছে।

 

 

পরিবেশ নিয়ে আন্দোলনের জন্য ২০১৯ সালে ডঃ এপিজে আব্দুল কালাম চিলড্রেন অ্যাওয়ার্ড পায় লিসিপ্রিয়া। গত বছর ডুন মাসে দিল্লির সংসদ ভবনের বাইরে পরিবেশ দূষণ নিয়ে সরব হয়েছিল এই বালিকা। রাষ্ট্রসংঘে পরিবেশ রক্ষা নিয়ে একটি অনুষ্ঠানেও গ্রেটা থুনবার্গ ও জেরি মার্গোলিনের সঙ্গে এক মঞ্চে দেখা গিয়েছিল ছোট্ট লিসিপ্রিয়াকে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios