স্বাধীনতা দিবসে রাজ্যের সেরা কনস্টেবলের পুরস্কার পেয়েছিলেন। আর তার চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই  ঘুষ নিতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ে গেলেন সেই কনস্টেবলই। এমনই কাণ্ড ঘটিয়ে একদিনের মধ্যেই সংবাদ শিরোনামে চলে এসেছেন তেলেঙ্গানা পুলিশের এক কর্মী। 

একটি সর্বভারতীয় ইংরেজি সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, স্বাধীনতা দিবসের দিনই নিষ্ঠা এবং দক্ষতার সঙ্গে কাজ করার জন্য পাল্লে তিরুপতি রেড্ডি নামে ওই পুলিশকর্মীকে সেরা কনস্টেবলের পুরস্কার দেয় তেলেঙ্গানা সরকার। পুলিশ সুপারের উপস্থিতিতে রাজ্যের এক মন্ত্রী ওই পুলিশকর্মীর হাতে শংসাপত্র এবং পুরস্কার তুলে দেন। 

কিন্তু এর পরে চব্বিশ ঘণ্টাও কাটেনি। শুক্রবার সতেরো হাজার টাকা ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে রাজ্যের দুর্নীতি দমন শাখার অফিসাররা হাতেনাতে ধরে ফেলেন পাল্লে তিরুপতিকে। অভিযোগ পুলিশের কাছে আসা এক ব্যক্তিকে হয়রান করছিলেন ওই কনস্টেবল। 

অভিযোগ, গত এক বছর ধরে এক কৃষকে একটি মামলা নিয়ে হয়রান করছিলেন ওই কনস্টেবল। ট্যাক্টর বাজেয়াপ্ত করার হুমকি দিয়ে ওই ব্যক্তির থেকে সতেরো হাজার টাকা দাবি করেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ওই কনস্টেবলের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন শাখায় অভিযোগ জানান এম রমেশ নামে ওই ব্যক্তি। এর পর দুর্নীতি দমন শাখার পাতা ফাঁদে পা দেন ওই কনস্টেবল। টাকা নেওয়ার সময়ই মেহবুবনগর জেলার আই টাউন পুলিশ স্টেশনে ওই কনস্টেবলকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন দুর্নীতি দমন শাখার অফিসাররা।