মুম্বই বাসিন্দা আরোহী পন্ডিত ৩৭ হাজার কিলোমিটার পথ অতিক্রম করতে বেড়িয়ে পড়েছিলেন একা। ছোট বিমানে চেপে পাড়ি দিয়েছিলেন আটলান্টিক। মোট ১২০ ঘন্টা বিমান চালিয়ে ২৩ বছরের আরোহী বিশ্বরেকর্ড গড়ে দেশের মুখ উজ্জ্বল করলেন।

লাইট স্পোর্ট এয়ারক্রাফট নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র থেকে যাত্রা শুরু করেছিলেন তিনি। যাত্রা পথে বেশ কয়েকবার নামতে হয় তাকে। আইসল্যান্ড, গ্রিনল্যান্ডে নামার পর পার হয়েছিলেন আটলান্টিক মহাসাগর। যাত্রা শেষ করে ১৩ই মে কানাডার ইকালুয়েট বিমানবন্দরে ফিরে আসেন আরোহী।

তবে এই প্রথম নয়, আটলান্টিক পার করার স্বপ্ন তিনি অনেক আগেই দেখেছিলেন। গত বছরই এই বিমানটি নিয়ে বেড়িয়ে পরেছিলেন আরোহী, কিন্তু খারাপ আবহাওয়ার জন্য সেই সময় ফিরে আসতে হয় তাকে। ছোট থেকেই তার স্বপ্ন ছিল আকাশ ছোঁয়ার। প্রশিক্ষণও নিয়েছিলেন তিনি, তারপর উইমেন এমপাওয়ার এক্সপিডিশন যোগ গিয়েছিলেন তিনি। হাজার হাজার কিলোমিটার আকাশে উড়ে যাওয়া তার কাছে খুব সহজ ব্যাপার।

এই অভিযানে তিনি সঙ্গে নিয়েছিলেন হালকা ওজনের স্পোর্টস এয়ারক্রাফট, নাম মাহি, সাইনাস মডেল নং ৯১২। একটি ইঞ্জিন থাকা এই বিমানের ওজন ছিল ৪০০ কেজি। এই অভিযানে যাওয়ার আগে দস্তুর মতন সাত মাস ট্রেনিং-ও নিয়েছিলেন তিনি। অভিযান থেকে ফিরে সাংবাদিক বৈঠকে আরোহী জানান, এই অভিযানটি করে আমি খবু গর্বিত। দূরের শূণ্যতা আর সৌন্দর্য্য, দুয়েরই অনুভূতি অসাধারণ।