Asianet News BanglaAsianet News Bangla

স্ত্রীর সঙ্গে ১৩ বছর পর সিনেমা হলে অমিত শাহ, দেখলেন অক্ষয় কুমারের সম্রাট পৃথ্বীরাজ

অমিত শাহ নিজেই জানিয়েছেন দীর্ঘ ১৩ বছর পরে তিনি স্ত্রীর সঙ্গে সিনেমা হলে গিয়ে সিনেমা দেখলেন। এমনিতে তেমন সিনেমা দেখা হয় না বলেও জানিয়েছেন তিনি। সিনেমার অভিনেতা -অভিনেত্রী ও কলাকুশলীদের সঙ্গে একই সারিতে বসে সিনেমাটি দেখেন। 

After 13 years, Amit Shah went to the cinema with his wife and saw Akshay Kumar's Smarat Prithviraj bsm
Author
Kolkata, First Published Jun 2, 2022, 4:11 PM IST

একদম অন্যমেজাজে ধরা পড়লেন অমিত শাহ। এমনিতে কর্মব্যস্ত হিসেবেই তাঁকে সবাই চেনে। কিন্তু এদিন স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে সিনেমা হলে গিয়ে সিনেমা দেখে এলেন। তবে এই ঘটনা আচমকাই হয়নি। নতুন দিল্লিতে সম্রাট পৃথ্বীরাজ ছবির জন্য বিশেষ  স্ক্রীনিংএর ব্যবস্থা করা হয়েছিল। সেখানেই সপরিবারে হাজির হলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। আর সাংবাদিকদের ক্যামেরার সামনে ধরা দিলেন একদম অন্য মেজাজে। স্ত্রীর সঙ্গে রীতিমত মস্করা করতে দেখা গেল অমিত শাহকে। 

অমিত শাহ নিজেই জানিয়েছেন দীর্ঘ ১৩ বছর পরে তিনি স্ত্রীর সঙ্গে সিনেমা হলে গিয়ে সিনেমা দেখলেন। এমনিতে তেমন সিনেমা দেখা হয় না বলেও জানিয়েছেন তিনি। সিনেমার অভিনেতা -অভিনেত্রী ও কলাকুশলীদের সঙ্গে একই সারিতে বসে সিনেমাটি দেখেন। তাঁর পরিবারের আরও বেশ কয়েকজন সদস্যই হাজির হয়েছিলেন। 
 

সম্রাট পৃথ্বীরাজ ছবিটি অমিত শাহের ভালো লেগেছে। তিনি বলেছেন এই ছবিতে নারীর সম্মান ও তাদের ক্ষমতায়নের কথা হয়েছে। পাশাপাশি ভারতীয় সংস্কৃতিকে তুলে ধরা হয়েছে। তিনি বলেছেন মধ্যযুগে ভারতে নারীরে যে রাজনৈতিক ক্ষমতা ও স্বাধীনতা ভোগ করত তা তুলে ধরা হয়েছে এই ছবিতে। সমাজের জন্য এই সিনেমা একটি জোরাল বার্তা দিয়েছ। তিনি আরও বলেছেন ভারতীয় ইতিহাসের ছাত্র হিসেবে এই ছবিটি তাঁর ভালো লেগেছে। 

এতপর্যন্ত তো সব ঠিকই ছিল। তারপরই অমিত শাহ মঞ্চ ছেড়ে এগিয়ে যান। কিন্তু তাঁর সোনাল কিছুটা অবাক হয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন। কোন দিকে যাবেন বুঝতে পারছিলেন না। তখনই অমিত শাহ সিনেমার ডায়লগের মতই স্ত্রীক উদ্দেশ্যে বলেন, 'চলিয়ে হুকুম' । যা শুনে উপস্থিত দর্শক ও সাংবাদিকদের মধ্যে হাসির রোল ওঠে। 

অমিত শাহ দেখতে যতই রাশভারি হোননা কেন তিনি কিন্তু ভিরতে ভিরতে অত্যান্ত প্রেমিক পুরুষ। শোনা যায় সোনালকে প্রথম দেখেই তাঁর প্রেমে পড়ে গিয়েছিলেন তিনি। তখন মাত্র ২৩ বছর বয়স তাঁর। যদিও সোনাল সাহকে ডাকসাইটে সুন্দরী বলা যায়। তিনি বলিউড অভিনেত্রীদের তুলনা কম সুন্দরী ছিলেন না। তবে অমিত শাহ নিজেই বিয়ের উদ্যোগ নেন আর সমস্ত ব্যবস্থা পাকা করেই সোনালকে নিজের ঘরনী করে নিয়ে আসেন। যদিও তখনও রাজনীতিতে যোগদেননি তিনি। 

যাইহোক শেষপর্যন্ত তাঁদের ছেলে জয় শাহ এগিয়ে এসে মায়ের হাত ধরেন আর তাঁকে এগিয়ে নিয়ে যান। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হওয়ার পর এই প্রথম অমিত শাহ সপরিবারে কোনও সিনেমার বিশেষ স্ক্রিনিং দেখলেন।

সম্রাট পৃথ্বীরাজের প্রচারে মোদীর প্রশংসা, অক্ষয়কে 'সুবিধেবাদী' বলল নেটিজেনরা 

১ কোটি থেকে দেড় কোটি, ৭ স্টার সিঙ্গারের লাইভ শো-র রেট জানলে চোখ কপালে উঠবে

ব্যাঙ্কে ঢুকে ম্যানেজারকে গুলি করে খুন, পরপর হিন্দু খুনে আতঙ্ক বাড়ছে উপত্যকায়

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios