করোনাভাইরাসের সংক্রমণে কারণে চলতি বছর বাতিল করে দেওয়া হল অমরনাথ যাত্রা। মন্দির পরিচালন কমিটির  বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। এই নিয়ে পরপর দুবছর বন্ধ করে দেওয়া হল অমরনাথ যাত্রী। গতবছর জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা রদ ও বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা তুলে নেওয়ার আগেই অশান্তি এড়াতে মাঝপথে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল অমরনাথ যাত্রা। তড়িঘড়ি যাত্রীদের ফিরে আসতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল কেন্দ্রের তরফ থেকে। 

মহামারীর এই আবহে দাঁড়িয়ে যাত্রা স্থগিত রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছে শ্রী অমরনাথজি মন্দির পরিচালন কমিটি। একই সঙ্গে তীর্থযাত্রী ও দর্শনার্থীদের ভাবাবেগে আঘাত করার জন্য দুঃখ প্রকাশও করা হয়েছে। মন্দির কমিটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে লক্ষ লক্ষ ভক্তের অনুভূতি সম্পর্কে সচেতন বোর্ড। পাশাপাশি ধর্মীয় অনুভূতিগুলিকেও বাঁচিয়া রাখাতে সচেষ্ট। তাই সকাল ও সন্ধ্যায় অরতি সরাসরি সম্প্রচার করা হবে। ভার্চুয়াল দর্শন অব্যাহত রাখা হবে বলেও মন্দির কমিটির পক্ষ থেকে জানান হয়েছে। প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী প্রথা অনুযায়ী মন্দিরের ক্রিয়াকর্ম চলবে বলেও জানান হয়েছে। মন্দির কমিটির এই সিদ্ধান্ত জম্মু ও কাশ্মীর কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের প্রশাসনকেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। 

 

To keep the religious sentiments alive, Board shall continue live telecast/virtual darshan of morning & evening aarti. The traditional rituals shall be carried out as per past practice. Chhadi Mubarak shall be facilitated by the Govt: Raj Bhavan, Government of Jammu & Kashmir https://t.co/Y55JwOLgxN

— ANI (@ANI) July 21, 2020 /> প্রথমে ২১ জুলাই থেকে অমরনাথ যাত্রা শুরু হওয়ার কথা ছিল। এক দফায় মাত্র ৫০০ জন যাত্রী বা দর্শনার্থীকে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে। পাশাপাশি চলতি বছর অমরনাথ যাত্রাকে সন্ত্রাসবাদীরা টার্গেট করেছে বলেও জানান হয়েছিল। যদিও চলতি বছর অমরনাথ যাত্রা হবে কিনা তা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে একটি মামলাও দায়ের হয়েছিল। যদিও সেই আবেদন খারিজ করে দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট।