গত ফেব্রুয়ারি মাসেই তৃতীয়বারের জন্য দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসেছেন আম আদমি পার্টির প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল। উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েই ফের একবার দিল্লির ক্ষমতায় ফিরেছেন কেজরি। কিন্তু ক্ষমতায় ফিরেই কড়া চ্যালেঞ্জের মুখে আম আদমির প্রধান। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে নতুন করে উত্তাল রাজধানী। যার জেরে হিংসা ছড়ায় দিল্লির উত্তর-পূর্ব প্রান্তে। প্রাণহানি, ভাঙচুর , অগ্নিকাণ্ডের বিভীষিকার মধ্যে দিয়ে যেতে হয় দিল্লিবাসীকে। দিল্লির এই অশান্তির জন্য কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের পাশাপাশি কেজিরর আপ সরকারে দিকেও অভিযোগের আঙ্গুল তোলে কংগ্রেস। আর এই আবহেই  এবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

তৃতীয়বার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর এটাই ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে কেজরিওয়ালের প্রথম সাক্ষাৎ। বেলা ১১টা নাগাদ সংসদভবন চত্বরেই আয়েজন করা হয়েছিল বৈঠকের। সেই মত নির্দিষ্ট সময়ে পিএমও-তে হাজির হন কেজরি। উত্তর-পূর্ব দিল্লির হিংসার ঘটনায় এখনও ভীত-সন্ত্রস্ত সাধারণ মানুষ। এই পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর এই বৈঠক যথেষ্ট অর্থবও। 

বৈঠকে দিল্লির হিংসা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর আলোচনা হয়েছে বলে জানান কেজরিওয়াল।  গত সপ্তাহে অশান্ত দিল্লির জন্য বিজেপি নেতাদের বেলাগাম মন্তব্যকেই দায়ি করছেন অনেকে। কিপল মিশ্রা সহ একাধিক বিজেপি নেতার দিকে উঠছএ অভিযোগের আঙ্গুল। যদিও এই বিষটি নিয়ে তাঁদের মধ্যে আলোচনা হয়নি বলে দাবি করেন কেজরি।  

আরও পড়ুন: ঝাড়খণ্ডে আইনের ছাত্রীকে গণধর্ষণ, ১১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিল আদালত

দিল্লি হিংসায় দলমত নির্বিশেষে দোষী ব্যক্তিরা যাতে কঠোর শাস্তি পায় সেকথা তিনি প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন। বৈঠক শেষে বলেন কেজরি। এদিকে অশান্ত দিল্লিতে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে বারবার প্রশ্ন উঠেছে। সেকথাও এদিন বৈঠকে তিনি তুলেছেন বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।  দিল্লি হিংসার পাশাপাশি দুজনের বৈঠকে করোনা ভাইরাসের প্রসঙ্গও উঠেছে বলে জানা যাচ্ছে। 

 

 

দিল্লির নির্বাচনে আপের অসাধারণ সাফল্যের পর কেজরিওয়ালকে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রত্যুত্তরে কেজরিও দিল্লির উন্নয়নে কেন্দ্রের সঙ্গে সহযোগিতার ভিত্তিতে একযোগে কাজ করার বার্তা দিয়েছিলেন। গত সপ্তাহে  দিল্লির পরিস্থিতি নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গেও বৈঠক করেন কেজরিওয়াল। 

আরও পড়ুন: সংসদের নিরাপত্তা জোনে ভাঙল ব্যারিকেড, জঙ্গি হামলার অ্যালার্টে তৎপর নিরাপত্তাবাহিনী

এদিকে দিল্লির হিংসার ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ১,২০০ জনকে গ্রেফতার করেছে দিল্লি পুলিশ। মোট ৩৬৯টি  মামলা দায়ের করা হয়েছে। এরমধ্যে অস্ত্রআইনে মামলা হয়েছে ৪৪টি।