বিহারের বিধানসভা নির্বাচনের পাশাপাশি উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাত-সহ বেশ কয়েকটি রাজ্যে বিধানসভা ৭৭টি আসনে উপনির্বাচন হয়েছিল। এদিন বিহারের পাশাপাশি সেইসব উপনির্বাচনের ভোট গণনাও চলেছে। বিহারের ভোটগণনার প্রবণতা বলছে এখনও অবধি ১২৮টি আসনে এগিয়ে এনডিএ। এরমধ্যে বিজেপি এগিয়ে ৭৩ টি আসনে। বিহারের মতো অন্যান্য রাজ্য়ের উপনির্বাচনের ভোট গণনাতেও পদ্মেরই জয়জয়কার হওয়ার আভাস পাওয়া যাচ্ছে।

মধ্যপ্রদেশে জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া-সহ বিদ্রোহী কংগ্রেসী বিধায়করা কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপি-তে যোগ দেওয়ায়, মোট ২৮টি আসন ফাঁকা হয়েছিল। সেই ২৮টি আসনেই উপনির্বাচন হয়েছে। ভোট গণনার প্রবণতা বলছে বিজেপি এর মধ্যে ১৭টি আসনে এগিয়ে, আর কংগ্রেস এগিয়ে মাত্র ৯ টি আসনে। এর পাশাপাশি মায়াবতীর বসপা এগিয়ে রয়েছে ২টি আসনে।

ইতিমধ্যেই বিশিষ্ট কংগ্রেস নেতা দিগ্বিজয় সিং ইভিএম-এ কারচুপির অভিযোগ তুলেছেন। বিজেপি সাংসদ নরোত্তম মিশ্র পাল্টা জবাবে বলেছেন, দিগ্বিজয় সিং ইভিএম নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন মানে বিজেপি জিতছেই।

আরও পড়ুন - Live Results Update- ধাক্কা সামলিয়ে এগিয়ে চলেছে এনডিএ, মহাজোট পেতে পারে ১০০ আসন

আরো পড়ুন - বিহার নির্বাচন গণনা- এনডিএ ১২৯, মহাজোট ১০৩, অন্যান্য ১১

আরও পড়ুন - NDA এগিয়ে গেলেও নীতিশের মুখ্যমন্ত্রীর পদ নিয়ে জল্পনা শুরু, বিহারে সবথেকে শক্তিশালী BJP

গুজরাত-এর ৮টি বিধানসভা আসনে উপনির্বাচন হয়েছে। নরেন্দ্র মোদীর রাজ্য়ের ৮টি আসনেই এগিয়ে রয়েছে তাঁর দল বিজেপি। গান্ধিনগরে ইতিমধ্যেই বিজেপি নেতা-কর্মীদের জয় উদযাপন করতে দেখা গিয়েছে।

উত্তরপ্রদেশে উপনির্বাচন ছিল ৭টি বিধানসভা আসনে। যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে এই ৭টি কেন্দ্রের মধ্যে বিজেপি এগিয়ে ৫টি আসনে। ১টি আসনে এগিয়ে সমাজবাদী পার্টি এবং অপর আসনে এগিয়ে রয়েছেন নির্দল প্রার্থী।

একমাত্র ওড়িশার দুটি বিধানসভা আসনে বিশেষ সুবিধা করে উঠতে পারেনি বিজেপি। দুটি আসনেই এগিয়ে রয়েছে সেই রাজ্য়ের শাসক দল বিজু জনতা দল।

ঝাড়খণ্ডের দুমকায এগিয়ে আছে বিজেপি আর বেরমোয় এগিয়ে কংগ্রেস।

হরিয়ানার উপনির্বাচনে বিজেপি প্রা্থী কুস্তিগির যোগেশ্বর দত্ত পিছিয়ে রয়েছেন কংগ্রেস প্রার্থী ইন্দু রাজ-এর থেকে।