দশটি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কের সংযুক্তিকরণের প্রতিবাদে মঙ্গলবার ফের দেশজুড়ে ব্যাঙ্ক ধর্মঘট। যার ফলে ব্যাঙ্কিং পরিষেবা ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা থাকছে। এর পাশাপাশি ব্যাহত হতে পারে এটিএম পরিষেবাও। 

ব্যাঙ্ক কর্মীদের দু'টি সংগঠন অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক এমপ্লয়িজ ফেডারেশ (এআইবিইএ) এবং ব্যাঙ্ক এমপ্লয়িজ ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া (বেফি) এই ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। অধিকাংশ রাষ্ট্রাযত্ত্ব ব্যাঙ্কে এই ধর্মঘটের ভালরকম প্রভাব পড়বে বলেই মনে করা হচ্ছে। যদিও দেশের বৃহত্তম ব্যাঙ্ক স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার দাবি, তাদের পরিষেবায় এই ধর্মঘটের সেভাবে প্রভাব পড়বে না। কারণ, তাদের অধিকাংশ কর্মীই ধর্মঘটের ডাক দেওয়া দুই কর্মী সংগঠনের সদস্য নয়। 

এআইবিবইএ এবং বেফি-র দাবি, ব্যাঙ্কগুলির সংযুক্তিকরণ এবং ব্যাঙ্কিং ক্ষেত্রের সংস্কারের প্রতিবাদের পাশাপাশি গ্রাহকদের থেকে ব্যাঙ্কগুলি যেভাবে পরিষেবার বিনিময়ে চড়া সার্ভিস চার্জ আদায় করছে, তার বিরুদ্ধেও এই ধর্মঘটে প্রতিবাদ জানানো হচ্ছে। অনাদায়ী ঋণ আদায় করা, ঋণখেলাপিদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা ছাড়াও কর্মীদের চাকরির নিরাপত্তার দাবিও জানানো হয়েছে ধর্মঘটী দুই সংগঠনের পক্ষ থেকে। 

আরও পড়ুন- গ্রাহকেদর বিক্ষোভে উত্তাল রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সদর দফতর, দেখুন ভিডিও

বেফি- র জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, 'ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণ আসলে ব্যাঙ্কগুলির বেসরকারিকরণের আগের পদক্ষেপ। আমরা এই পরিকল্পনার বিরোধিতা করছি।'

গত অগাস্ট মাসে একটি বিবৃতি জারি করে দেশের আরও দশটি রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কের সংযুক্তিকরণের ঘোষণা করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। দেশের অর্থনৈতিক কাঠামোকে শক্তিশালী করতেই এই পদক্ষেপ বলে দাবি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। এর ফলে মোট রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাঙ্কের সংখ্যা ২৭ থেকে কমে ১২ হয়ে যাবে।