Asianet News BanglaAsianet News Bangla

বিজেপি বলছে ঐতিহাসিক পদক্ষেপ, কাশ্মীর সিদ্ধান্তের বিরোধিতা জোটসঙ্গী জেডিইউ-এর

  • কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার
  • সিদ্ধান্তের বিরোধিতায় কংগ্রেস, পিডিপি, ন্যাশনাল কনফারেন্স
  • বিরোধিতা করল নীতিশ কুমারের জেডিইউ
  • বিজেপি-র পাশে মায়াবতীর দল
BJP ally JDU is not supporting decision on Kashmir
Author
India, First Published Aug 5, 2019, 1:37 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

জম্মু কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা ঘিরে দ্বিধাবিভক্ত দেশের রাজনৈতিক দলগুলি। রাজ্যসভায় জম্মু কাশ্মীর নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এই ঘোষণা করার পরেই তার তীব্র বিরোধিতা করেন কংগ্রেসের গুলাম নবি আজাদ। অন্যদিকে কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে সমর্থন জানিয়ে বিজেপি বিরোধী হিসেবে পরিচিত মায়াবতীর দল বিএসপি। সমর্থন জানিয়েছে বিজেডি এবং এআইএডিএমকে। কিন্তু ৩৭০ ধারা অবলুপ্তিকে সমর্থন করছে না বিজেপি-র জোটসঙ্গী নীতিশ কুমারের দল জেডিইউ। 

প্রত্যাশিতভাবেই এ দিন কেন্দ্রের এই ঘোষণায় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন কাশ্মীরের দুই প্রধান রাজনৈতিক দল পিডিপি এবং ন্যাশনাল কনফারেন্স। পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি বলেছেন, 'কাশ্মীরে প্রতিশ্রুতি রক্ষায় ব্যর্থ হয়েছে ভারত। ৩৭০ ধারা বাতিল করার ভয়াবহ ফল হবে ভারতীয় উপমহাদেশে। কাশ্মীরের মানুষকে সন্ত্রস্ত করে কাশ্মীর দখলের চেষ্টা চলছে।'

ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ওমর আবদুল্লা অভিযোগ করেছেন, কাশ্মীরের মানুষের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে ভারত সরকার। কাশ্মীরের মানুষের প্রতি এই সিদ্ধান্তকে কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির প্রমাণ বলেই মনে করছেন তিনি। 

জম্মু কাশ্মীর থেকে নির্বাচিত কংগ্রেস নেতা এবং রাজ্যসভার সাংসদ গুলাম নবি আজাদ অভিযোগ করেন, ৩৭০ ধারার অবলুপ্তি ঘটিয়ে ভারতের সংবিধানকে হত্যা করেছে বিজেপি। ভোটের লোভে কাশ্মীরের রাজনীতি, সংস্কৃতি, ইতিহাসকে অস্বীকার করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন গুলাম নবি আজাদ। এ বিষয়ে এখনও রাহুল গান্ধীর কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। প্রতিক্রিয়া দেননি তৃণমূলনেত্রী এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তবে সিদ্ধান্তের সমালোচনায় গুলাম নবি আজাদ যে সাংবাদিক সম্মেলন করেন, সেখানে হাজির ছিলেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও ব্রায়েন।

যদিও বিজেপি-র শরিক দল জেডিএই কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন করছে না। জেডিইউ নেতা কে সি ত্যাগী বলেন, 'আমাদের নেতা নীতিশ কুমার জয়প্রকাশ নারায়ণ, রাম মনোহর লোহিয়া, জর্জ ফার্নান্ডেজদের দেখানো পথে চলতে বিশ্বাসী। তাই আমাদের দল এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন করছে না। আমারা মনে করি ৩৭০ ধারার অবলুপ্তি ঘটানো অনুচিত।'

প্রত্যাশিতভাবেই কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন বিজেপি নেতা এবং সাংসদরা। প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেছেন, '৩৭০ ধারা নিয়ে সরকার ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে, যা জাতীয় সংহতি বাড়াতে সাহায্য করবে।'

বিজেপি নেতা রাম মাধব বলেন, 'সাত দশক ধরে গোটা দেশের দাবি আজ আমাদের জীবদ্দশায় বাস্তবায়িত হতে দেখলাম।' এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়ে টুইট করেছেন বিজেপি সাংসদ রাজীব চন্দ্রশেখর-ও। 

 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios